মৃত্যুর সঠিক কারণ নির্ণয়

সেমিনারের সুপারিশগুলো বাস্তবায়ন করুন

  যুগান্তর ডেস্ক    ৩০ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মানুষ নানা কারণে মৃত্যুমুখে পতিত হতে পারেন; কিন্তু ঠিক কী কারণে একজন মানুষ মারা গেলেন তা সঠিকভাবে নির্ণয় করা গুরুত্বপূর্ণ। মানসম্মত জনস্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে মৃত্যুর সঠিক কারণ নির্ণয় যেমন অন্যতম পূর্বশর্ত, তেমনি এর মধ্য দিয়ে অন্য রোগীর জন্য সঠিক ওষুধ নির্ধারণ এবং গবেষণায় অবদান রাখার সুযোগও রয়েছে। দেশে প্রতি বছর প্রায় ৯ লাখ মানুষ মারা যান; এর মধ্যে মাত্র ১৫ শতাংশ হাসপাতালে এবং বাকি ৮৫ শতাংশই মারা যান বাড়িঘরে। মৃত্যু যেভাবেই হোক, আমাদের দেশে সাধারণ কিছু কারণে মৃত্যু হয়েছে বলে উল্লেখ করে থাকেন ডাক্তাররা। ঝামেলা এড়ানো ও সময় বাঁচানোসহ নানা কারণে হয়তো এমনটি করা হয়; কিন্তু আধুনিক জনস্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনার নিয়মানুযায়ী মৃত্যুর সঠিক কারণ খুঁজে বের করার বিকল্প নেই।

মৃত্যুর সঠিক কারণ নির্ণয় সংক্রান্ত বিভাগীয় একটি সেমিনার ৫ ডিসেম্বর চট্টগ্রামের হোটেল র‌্যাডিসন ব্ল–’তে অনুষ্ঠিত হয়। এতে মৃত্যুর সঠিক কারণ নির্ণয়ের ক্ষেত্রে ৬টি সুপারিশ করা হয়েছে। এগুলো হল- এ সংক্রান্ত পাঠ মেডিকেল একাডেমিক কারিকুলামে অন্তর্ভুক্ত করা, বিষয়টিতে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণদান, রোগীর চিকিৎসাপত্রে জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর সংরক্ষণ, রোগী ভর্তির ফরমে রোগ সঠিকভাবে লেখা, সরকারি-বেসরকারি সব হাসপাতালে ইন্টারন্যাশনাল ফরমস অব মেডিকেল সার্টিফিকেট অব কজ অব ডেথ (আইএমসিসিওডি) অনুযায়ী মৃত্যুর সঠিক কারণ নির্ণয় সংক্রান্ত সেবা চালু করা এবং আইএমসিসিওডি ফরমটি কম্পিউটারে বা হাতে ক্যাপিটাল লেটারে লেখা। আমরা মনে করি, সারা দেশে সুপারিশগুলো বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেয়া দরকার। কারণ, মানুষ এক রোগে হাসপাতালে ভর্তি হলেও অন্য সমস্যায় মারা যান, এমন ঘটনা অনেক।

আশার কথা, মৃত্যুর কারণ নির্ণয়ে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত পদ্ধতিটি ২০১৭ সালে বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করেছে। কিন্তু পাইলট প্রকল্প হিসেবে যাত্রা করা কার্যক্রমটি বর্তমানে মাত্র ৩১টি সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে চলছে। এটি দ্রুত দেশের প্রতিটি হাসপাতালে ছড়িয়ে দেয়ার উদ্যোগ নিতে হবে। বর্তমান সময়ে নানা ব্যতিক্রমী রোগের প্রাদুর্ভাব ও তাতে আক্রান্ত হয়ে হঠাৎ মানুষের মৃত্যু বড় ধরনের সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এক রোগে আক্রান্ত রোগী অন্য একাধিক কারণে মারা যাচ্ছেন। এ অবস্থায় মৃত্যুর সঠিক কারণ নির্ণয় রোগের ধরন ও ওষুধ সংক্রান্ত গবেষণায় ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে, তাতে সন্দেহ নেই। গুরুত্ব বিবেচনায় দ্রুত সঠিক রোগ নির্ণয় নিশ্চিত করার বিষয়টি সব হাসপাতালের জন্য বাধ্যতামূলক করার উদ্যোগ নেয়া হোক।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×