নির্বাচনকেন্দ্রিক সহিংসতা

সমঝোতার রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করা জরুরি

  যুগান্তর ডেস্ক    ০৫ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

পাঁচদিন অতিবাহিত হওয়ার পরও রাজশাহীর গোদাগাড়ী ও তানোরে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে নির্বাচনকেন্দ্রিক সহিংসতা না থামার বিষয়টি উদ্বেগজনক। জানা গেছে, ভোটের দিন সংঘটিত সহিংসতার জের ধরে এসব এলাকায় প্রতিপক্ষের বাড়িঘরে হামলা, ভাংচুর, লুটপাট ও আগুন দেয়ার ঘটনা অব্যাহত রয়েছে।

আমরা মনে করি, এ সহিংসতা অবিলম্বে বন্ধ করার পদক্ষেপ নেয়া দরকার। দুঃখজনক হল, কেবল রাজশাহীর দুটি অঞ্চলেই নয়, নির্বাচনে ভোট গ্রহণের দিন ও পরে দেশের নানা স্থানে সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘটনায় শুধু সিলেট বিভাগেই কমপক্ষে ৩০টি মামলা হয়েছে।

এছাড়া নির্বাচনের দিন আওয়ামী লীগ সমর্থকদের সঙ্গে কথা কাটাকাটির জের ধরে নোয়াখালীর সুবর্ণচরের একজন গৃহবধূ গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এসব ঘটনা রোধে যথাযথ ভূমিকা পালনে অবহেলার অভিযোগ উঠেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিরুদ্ধে।

নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতা নতুন নয়। ২০১৪ সালে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর ব্যাপক সহিংসতার কারণে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয়েছিল। সে সময় লাগাতার সহিংস ঘটনার প্রেক্ষাপটে যুক্তরাষ্ট্রের সাময়িকী ‘ফরেন পলিসি’ সংঘাতের দিক থেকে শীর্ষে থাকা বিশ্বের যে ১০টি দেশের তালিকা তৈরি করেছিল, তাতে বাংলাদেশের নামও অন্তর্ভুক্ত ছিল।

সাময়িকীটির অনলাইন সংস্করণে সে সময় বলা হয়েছিল, ২০১৪ সালে বিশ্ব-স্থিতিশীলতার ক্ষেত্রে যেসব দেশ হুমকিস্বরূপ, বাংলাদেশ তার অন্যতম। উল্লেখ্য, রক্তক্ষয়ী সংঘাত, নাগরিকের মৌলিক অধিকার পূরণে ব্যর্থতা এবং বৈষম্য ও বিভেদ সৃষ্টিকারী শাসনব্যবস্থার ওপর গুরুত্ব দিয়ে তালিকাটি তৈরি করা হয়েছিল।

বিদায়ী বছরের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যে সংঘর্ষ-ভাংচুর ছাড়াও বেশকিছু হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট কর্তৃক নির্বাচনের ফলাফল বর্জন এবং নির্বাচিত দলীয় সংসদ সদস্যদের শপথ গ্রহণ না করার সিদ্ধান্তে রাজনীতিতে অসহনশীলতার পরিবেশ রয়েই গেছে।

মূলত গত দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে দেশের দুই বড় দলের মধ্যে যে বৈরীমূলক সম্পর্ক চলছে, তারই কুফল ভোগ করছে জনগণ। দুই দলের মধ্যকার বৈরিতার প্রভাব পড়ায় উত্তেজিত কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে বেড়ে চলেছে সংঘাত-সহিংসতা।

এ পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের উপায় হল দেশে সমঝোতার রাজনীতি প্রতিষ্ঠা। দুই বড় দল যদি প্রতিশোধপরায়ণতার রাজনীতি পরিহার করতে পারে, তাহলে দেশে কোনো সংকট দানা বাঁধবে না। প্রশ্ন হল, বড় দু’দলের নেতারা কি এ বিষয়টি আদৌ অনুধাবন করেন?

ঘটনাপ্রবাহ : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×