নিয়োগে অনিয়ম: পর্যটন কর্পোরেশনকে দুর্নীতিমুক্ত করুন

  যুগান্তর ডেস্ক    ১৮ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

নিয়োগে অনিয়ম

নিয়ম না মেনে পর্যটন কর্পোরেশনের জনবল কাঠামোয় ৩ শতাধিক নতুন পদ সৃষ্টি এবং এসব পদে নিয়োগ ও পদোন্নতির বিষয়টি উদ্বেগজনক।

উল্লেখ্য, নতুন কোনো পদ সৃষ্টির ক্ষেত্রে প্রশাসনিক মন্ত্রণালয়সহ জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, প্রশাসনিক উন্নয়ন সংক্রান্ত সচিব কমিটি এবং অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে আর্থিক অনুমোদন নেয়ার বিধান রয়েছে।

অথচ এসব আইন ও বিধান না মেনে পর্যটন কর্পোরেশন শুধু বোর্ডসভায় গৃহীত সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে পদ সৃষ্টি, নিয়োগ এবং নিয়োগকৃতদের বদলি ও পদোন্নতি পর্যন্ত দিয়েছে। পর্যটন কর্পোরেশন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের অধিভুক্ত একটি প্রতিষ্ঠান।

কাজেই এককভাবে প্রতিষ্ঠানটির নতুন পদ সৃষ্টির কোনো এখতিয়ার নেই। সেক্ষেত্রে অনিয়ম ও দুর্নীতির বিষয়টি স্পষ্ট। এ অনিয়ম-দুর্নীতিতে জড়িতদের চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় আনা জরুরি।

আশ্চর্যজনক হল, কেবল নতুন পদ সৃষ্টিজনিত অনিয়ম নয়; একইসঙ্গে সংস্থাটির আইসিটি ব্যবস্থাপকের বিরুদ্ধে বড় ধরনের আর্থিক অনিয়মের অভিযোগও উঠেছে। অভিযোগ রয়েছে, এ খাতে প্রায় ৫ কোটি টাকার একটি কর্মসূচি গ্রহণ করা হলেও সেখানে নাকি তেমন কোনো কাজই হয়নি।

এ ক্ষেত্রে সংঘটিত দুর্নীতির সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীদের কঠোর শাস্তি হওয়া উচিত। বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জনের অন্যতম একটি মাধ্যম হল পর্যটন খাত। বিশ্বের অনেক দেশ, এমনকি আমাদের নিকট প্রতিবেশী ভারতও এ খাতে অভাবনীয় সাফল্য পেয়েছে।

অথচ আমাদের পর্যটন খাতের উন্নয়ন ও বিকাশ নিয়ে সংস্থাটির কর্তাব্যক্তিরা নানারকম বাগাড়ম্বর ও সভা-সেমিনার করলেও বাস্তবে অনিয়ম-দুর্নীতির পাহাড় গড়ে ব্যক্তিগতভাবে লাভবান হওয়ার প্রতিই তাদের অধিক ঝোঁক। এটি মোটেই কাম্য নয়।

সরকারের নানামুখী উদ্যোগ ও চেষ্টা সত্ত্বেও পর্যটন খাতের বিকাশ কাক্সিক্ষত পর্যায়ে ঘটেনি। এর কারণ মূলত একদিকে দায়িত্বপ্রাপ্তদের আন্তরিকতার অভাব, অন্যদিকে দুর্নীতিসহ বিভিন্ন অনিয়ম।

তাছাড়া এ কথাও সত্য যে, আমাদের দেশে এখনও পর্যটন শিল্পের গুরুত্ব উপলব্ধির চেষ্টা করা হয়নি। ফলে সম্ভাবনাময় হওয়া সত্ত্বেও এ খাত থেকে প্রাপ্তির পরিমাণ সামান্যই রয়ে গেছে। বলার অপেক্ষা রাখে না, অপরূপ নৈসর্গিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি হিসেবে বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের খ্যাতি থাকায় পর্যটন খাতের উন্নয়ন ঘটিয়ে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের সুযোগ আমরা গ্রহণ করতে পারি।

তবে এজন্য সর্বাগ্রে পর্যটন কর্পোরেশনকে শতভাগ দুর্নীতি ও অনিয়মমুক্ত একটি প্রতিষ্ঠানরূপে গড়ে তোলায় মনোযোগ দিতে হবে। সরকার পর্যটন কর্পোরেশনে বিরাজমান দুর্নীতি-অনিয়ম দূর করতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের পাশাপাশি পর্যটন খাতের বিকাশে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেবে, এটাই প্রত্যাশা।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×