গরমে ডায়রিয়ার প্রকোপ

জনসচেতনতাই সবচেয়ে জরুরি

  যুগান্তর ডেস্ক    ২৮ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

তীব্র গরমে ডায়রিয়ার প্রকোপ দেখা দিয়েছে। এই প্রকোপ সারা দেশে দেখা দিলেও স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, রাজধানী ও এর আশপাশসহ দেশের ৮ বিভাগের ৯৬ উপজেলায় আক্রান্তের হার সবচেয়ে বেশি। আক্রান্তদের ভিড় ক্রমেই বাড়ছে আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্রসহ (আইসিডিডিআরবি) দেশের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে। চিকিৎসকদের মতে আবহাওয়ার পরিবর্তন ও অত্যধিক উষ্ণতাই ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ। এ ছাড়া দূষিত পানি পান, গরমের কারণে শরীরে পানিশূন্যতা এবং খোলা অথবা বাসি খাবার খাওয়াও ডায়রিয়া বেড়ে যাওয়ার পেছনে কারণ হিসেবে কাজ করছে।

দেশে ডায়রিয়ার প্রকোপ দেখা দেয়ার প্রেক্ষাপটে স্বাভাবিক কারণেই বেশকিছু সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণের প্রয়োজন পড়েছে। আবহাওয়া পরিবর্তনের ক্ষেত্রে মানুষের করণীয় কিছু নেই, তবে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করলে ডায়রিয়ার আক্রমণ থেকে নিজেকে রক্ষা করা সম্ভব। এসব সতর্কতামূলক ব্যবস্থার মধ্যে পানি ফুটিয়ে পান করা অন্যতম। বস্তুত ঝুঁকিমুক্ত বিশুদ্ধ পানি পান করার কোনো বিকল্প নেই। এছাড়া স্যালাইন ও অন্যান্য তরল খাবার, যেমন ডাবের পানি, চিড়া ভিজিয়ে তার পানি, ডালের পানি, ভাতের মাড়, চালেন গুঁড়ার জাউ ইত্যাদি খাওয়া যেতে পারে। আরেকটি সতর্কতা হল, রাস্তার পাশের খোলা খাবার বা শরবত জাতীয় পানীয় পরিহার করা। যে কোনো খাবার গ্রহণের আগে ভালোভাবে হাত পরিষ্কার করাও ডায়রিয়া প্রতিরোধের অন্যতম উপায়। ডায়রিয়ায় আক্রান্তদের মধ্যে বৃদ্ধ ও শিশুর সংখ্যাই বেশি। শিশুদের ক্ষেত্রে মায়ের দুধসহ অন্যান্য খাবার তাদের যথেষ্ট পরিমাণে খাওয়ানোই সমীচীন।

ডায়রিয়ার প্রকোপ বেড়েছে যেহেতু, সেহেতু এর চিকিৎসার বিষয়টিতে বিশেষ নজর দিতে হবে। সব সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিতে হবে বিশেষ ব্যবস্থা। রোগীর সংখ্যা বাড়লে ব্যবস্থা করতে হবে অতিরিক্ত জায়গার। এছাড়া বিশেষত স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোয় জনসাধারণের জন্য পরামর্শ প্রদানের আয়োজন করতে হবে। এ ব্যাপারে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদফতরের ভূমিকাই অধিক। রোগীকে চিকিৎসা সহায়তা প্রদানে গঠন করতে হবে প্রয়োজনীয় সংখ্যক মেডিকেল টিম। স্বাস্থ্য অধিদফতরের ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুযায়ী, এ পর্যন্ত ডায়রিয়াজনিত কারণে কোথাও কোনো মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি। আমরা আশা করব, ডায়রিয়া প্রতিরোধে জনগণের সচেতনতার পাশাপাশি এ রোগের কারণে মৃত্যুর ঘটনাও যাতে না ঘটে সে ব্যাপারে চিকিৎসাসংশ্লিষ্ট সবাই আন্তরিক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×