আর বিলম্ব নয়: এ বছর থেকেই শুরু হোক গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষা

  সম্পাদকীয় ০৪ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আর বিলম্ব নয়: এ বছর থেকেই শুরু হোক গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষা
আর বিলম্ব নয়: এ বছর থেকেই শুরু হোক গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষা। ফাইল ছবি

এ বছর থেকেই দেশের সব স্বায়ত্তশাসিত ও সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই সব কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার ব্যাপারে নীতিগতভাবে একমত হয়েছে। সমবৈশিষ্ট্যের বিচারে অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়কেও গুচ্ছবদ্ধ করার প্রস্তাব চূড়ান্ত করেছে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদ।

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার দাবি দীর্ঘদিনের। বিশ্ববিদ্যালয়গুলো বর্তমানে যে পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষার ব্যবস্থা করছে, তা পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের জন্য এক বিড়ম্বনার পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে। শিক্ষার্থীদের দৌড়াতে হচ্ছে এক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আরেক বিশ্ববিদ্যালয়ে। এতে পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের শারীরিক ধকল সহ্য করতে হচ্ছে যেমন, তেমনি আর্থিকভাবেও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন তারা। বর্তমান পদ্ধতিতে সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে মেয়ে পরীক্ষার্থীরা।

অপরিচিত, অচেনা জেলা অথবা বিভাগীয় শহরে গিয়ে তারা সমস্যায় ভুগছে বাসস্থানের। ছেলে পরীক্ষার্থীদের মসজিদে রাত কাটিয়ে পরদিন সকালে পরীক্ষা দিতেও দেখা গেছে। এ অবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার আয়োজন করা হলে সব ধরনের ভোগান্তির অবসান ঘটবে, সন্দেহ নেই। সবচেয়ে বড় কথা, বর্তমানে যদি মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা গুচ্ছ পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হতে পারে, তাহলে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় তা হতে পারবে না কেন?

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষার বিষয়টি বহুদিন ধরে আলোচিত হয়ে আসছে। কিছু বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের আপত্তির মুখে বিষয়টিতে ঐকমত্য প্রতিষ্ঠিত হতে পারেনি। সর্বশেষ ২০১৩ সালে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ভিসিদের সভায় গুচ্ছভিত্তিক ভর্তি পরীক্ষার ব্যাপারে নীতিগতভাবে ঐকমত্য প্রতিষ্ঠিত হয়। কিন্তু গত ৬ বছরেও তা কার্যকর করা যায়নি। আমরা আশা করব, সেই ঐকমত্যের ভিত্তিতে এ বছর থেকেই গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।

আগামী ২১ জুলাইয়ের মধ্যেই এইচএসসির ফলাফল প্রকাশের কথা রয়েছে। সে হিসাবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় ভর্তি পরীক্ষার সময় রয়েছে মাত্র তিন মাস। অর্থাৎ গুচ্ছ পদ্ধতিতে পরীক্ষা নিতে হলে এখন থেকেই এতদসংক্রান্ত প্রক্রিয়াগুলো সম্পন্ন করার তোড়জোড় শুরু করতে হবে। দেশে সাধারণ, কৃষি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, প্রকৌশল ও প্রযুক্তিসহ কয়েকটি বৈশিষ্ট্যের বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে।

সমবৈশিষ্ট্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় যাতে যৌথভাবে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা নেয়া যায়, সে লক্ষ্যে বাস্তবসম্মত সিদ্ধান্ত নিয়ে তা কার্যকর করতে হবে। কোনো অবস্থায়ই যাতে গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষার বিষয়টি আরও এক বছর পিছিয়ে না যায়, সেদিকে লক্ষ রাখতে হবে সংশ্লিষ্ট সবাইকে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×