আকাশপথের চার্জ আদায়ে দুর্নীতি

বিমান ও সিভিল এভিয়েশনে হচ্ছেটা কী?

  সম্পাদকীয় ২৪ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সম্পাদকীয়

বিমানের দুর্নীতির যে কত শাখা-প্রশাখা তার কোনো ইয়ত্তা নেই। এবার সিভিল এভিয়েশনের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে আকাশপথের চার্জ আদায়ে ব্যাপক দুর্নীতির।

আন্তর্জাতিক বিমান পরিচালনা নীতি অনুযায়ী বাংলাদেশের ওপর দিয়ে পরিচালিত যে কোনো এয়ারলাইন্সের সিডিউল ও নন-সিডিউল ফ্লাইটের ওভারফ্লাই, ল্যান্ডিং ও রিফুয়েলিংয়ের জন্য পারমিশন চার্জ দিতে হয়।

এটি আদায় করে থাকে সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ। নিয়মটা হল, সিডিউল ফ্লাইটের জন্য একবারই ছয় মাসের জন্য পারমিশন দেয়া হয়, আর নন-সিডিউল ফ্লাইটের পারমিশন দেয়া হয় কেস-টু-কেস ভিত্তিতে।

সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে, বাংলাদেশের আকাশসীমা ব্যবহারে পছন্দের কোম্পানিকে নন-সিডিউল ফ্লাইটে পারমিশন আদায়ের কাজ দিয়ে প্রচুর টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে একটি চক্র।

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন ছাড়াই পছন্দের কোম্পানির সঙ্গে একটি গোপন চুক্তি করেছে সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ। পুকুর চুরি আর কাকে বলে! বিদেশি এয়ারলাইন্সের কাছ থেকে প্রতিটি পারমিশনের জন্য ১৯৫ ডলার আদায় করা হলেও সিভিল এভিয়েশন খাতা-কলমে পাচ্ছে মাত্র ৩০ ডলার। এভাবে প্রতি মাসে আত্মসাৎ হয়ে যাচ্ছে ১ কোটি ২৭ লাখ টাকা, অর্থাৎ বছরের হিসাবে ২৭ কোটি টাকার বেশি।

বলা প্রয়োজন, সিভিল এভিয়েশন অ্যাক্ট ২০১৭-এর ১০ ধারা অনুযায়ী যে কোনো পারমিটের আবেদন ও প্রদানের পদ্ধতি এএনও দ্বারা নির্ধারিত হয় এবং সব ফি নির্ধারণের ক্ষেত্রে সরকারের অনুমোদন বাধ্যতামূলক।

সিভিল এভিয়েশনের বিরুদ্ধে যে অভিযোগের কথা বলা হল তা গুরুতর। ইতিমধ্যেই বিষয়টিতে অনুসন্ধান শুরু করেছে দুদক, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র চেয়ে দুদকের পক্ষ থেকে সম্প্রতি চিঠি দেয়া হয়েছে সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের কাছে।

এর আগেও বিমানের ৮ এবং সিভিল এভিয়েশনের ১১ খাতে দুর্নীতির উৎস চিহ্নিত করেছিল দুদক এবং দুর্নীতি প্রতিরোধে ১৯ দফা সুপারিশও করা হয়েছিল দুদকের পক্ষ থেকে।

সুপারিশমালায় বলা হয়েছিল, দুর্নীতিতে জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া দরকার। এবার আকাশপথের চার্জ আদায়ে ব্যাপক দুর্নীতির খোঁজ পাওয়া গেল।

এককথায় বলা যায়, বিমান ও সিভিল এভিয়েশন দুর্নীতির এক বড় চারণভূমিতে পরিণত হয়েছে। আকাশপথের চার্জ আদায়ে দুর্নীতিসহ বিমান ও সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের যাবতীয় দুর্নীতির বিরুদ্ধে জেহাদ ঘোষণা করা ছাড়া বিকল্প কিছু নেই বলেই প্রতীয়মান হচ্ছে।

ঘটনাপ্রবাহ : বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে দুর্নীতি

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×