ঈদে ঘরেফেরা: যাত্রা নির্বিঘ্ন করতে হবে

  সম্পাদকীয় ২৫ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঈদে ঘরেফেরা
ঈদে ঘরেফেরা। ফাইল ছবি

বৃহস্পতিবার রাজধানীর বিআরটিএ ভবনে ঈদে ঘরমুখী মানুষের যাত্রা নির্বিঘ্ন করার লক্ষ্যে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৈঠকে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সড়ক সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন যে, আসন্ন ঈদে উত্তরাঞ্চল ও ময়মনসিংহ অঞ্চলের পথে সড়ক সমস্যার কারণে যাত্রী ভোগান্তি হতে পারে।

মন্ত্রী যাত্রীসাধারণের ভোগান্তি লাঘব করতে গাজীপুরের মেয়র, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও বিআরটিএকে পদক্ষেপ নিতে অনুরোধ জানিয়েছেন। মন্ত্রী বলেছেন, উপরের দুই রুট ছাড়া দেশের বাকি অঞ্চলে ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক হবে।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর কথা অনুযায়ী, উত্তরাঞ্চল ও ময়মনসিংহ রুট ছাড়া দেশের বাকি অঞ্চলে ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন হবে কিনা, তা স্পষ্ট হবে আর কয়েকদিন পর। কিন্তু আলোচ্য এ দুই রুটের রাস্তার অবস্থা যে ভালো নয়, তা দিব্য চোখেই দেখা যায়। বৃহত্তর ময়মনসিংহ ও টাঙ্গাইল হয়ে উত্তরাঞ্চলের অনেক গাড়ি টঙ্গী-গাজীপুর দিয়ে চলাচল করে।

বর্তমানে রাজধানীর এয়ারপোর্ট থেকে গাজীপুর পর্যন্ত রোড ট্রানজিটের কাজ চলছে। এছাড়া রাস্তার অনেকাংশে ড্রেনও অবৈধ দখলে রয়েছে। রোড ট্রানজিটের কাজ চলমান থাকায় পরিবহন চলাচলে যে বিঘ্ন ঘটবে তা বলাই বাহুল্য। আমাদের স্মরণে রয়েছে, গত ঈদে যাত্রীসাধারণ মারাত্মক ভোগান্তির শিকার হয়েছিলেন।

এবার বিশেষত উত্তরাঞ্চল ও ময়মনসিংহ রুটে তার পুনরাবৃত্তি ঘটার আশঙ্কা প্রবল। তবে মন্ত্রী যেমনটা বলেছেন, বাস মালিক ও গাড়ি চালকরা যদি আন্তরিক থেকে সড়কে নিয়ম-শৃঙ্খলা মেনে চলেন, তাহলে পরিস্থিতি ততটা নাজুক হবে না নিশ্চয়ই।

আরেকটি বড় বিপদ হল, ঈদ এলেই সড়কে লক্কড়-ঝক্কড় মার্কা গাড়ি নামানো হয়। মন্ত্রী মহোদয় এ দিকটায়ও নজর দেয়ার কথা বলেছেন। তবে শুধু মুখের কথায় যে কাজ হয় না, এ অভিজ্ঞতা আমাদের রয়েছে।

ঈদে ঘরমুখী মানুষের দুর্ভোগ সাংবাৎসরিক ঘটনায় পরিণত হয়েছে। এমনও দেখা গেছে, যানজটের কারণে নির্ধারিত সময়ে বাড়ি ফিরতে না পেরে রাস্তায় ঈদের নামাজ পড়তে বাধ্য হয়েছেন অনেকেই। প্রতি বছরই ঈদের আগে সড়ক পরিবহনমন্ত্রী আশ্বাস দিয়ে থাকেন ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন হবে। কিন্তু বাস্তবক্ষেত্রে তার কথার প্রতিফলন দেখা যায় না।

ঈদের এখনও বেশ কয়েক দিন বাকি রয়েছে। আমরা আশা করব, এখন থেকেই কর্মতৎপরতা বৃদ্ধি করে সড়কের যেসব জায়গায় সমস্যা রয়েছে, সেসব জায়গায় বিশেষ দৃষ্টি দেয়া হবে। গাড়ির মালিক ও চালকরাও যাতে সড়ক আইন মেনে চলে শৃঙ্খলা বজায় রাখেন, সে ব্যাপারেও আমরা জোর তাগিদ দিতে চাই।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×