জিরো টলারেন্স নীতি প্রয়োগ করুন

  মোহাম্মদ শরীফ ২৫ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রূপপুরে পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পে দুর্নীতি
রূপপুরে পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পে দুর্নীতি

দেশের একমাত্র পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মিত হচ্ছে পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার রূপপুরে। বৈদেশিক অর্থঋণ সহায়তায় নির্মিত হচ্ছে এটি। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের নিদর্শনগুলোর একটি রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র। সরকারের সফলতার একটি উদাহরণ এটি।

রূপপুরে পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পে কাজ করা কর্মীদের থাকার জন্য গ্রিনসিটি নামে একটি পৃথক আবাসন গড়ে তোলা হচ্ছে। সেখানে ১১টি ২০তলা ও ৮টি ১৬তলা ভবন নির্মিত হচ্ছে। সেখানে একটি ভবনের ১১০টি ফ্ল্যাটের জন্য আসবাবপত্র কেনায় ও তা ভবনে উঠাতে ব্যয় দেখানো হয়েছে ২৫ কোটি ৭০ লাখ টাকা! ব্যয়ের খাতগুলো দেখলে চোখ কপালে উঠে যায়।

একটি বালিশের মূল্য দেখানো হয়েছে ৫ হাজার ৯৫৭ টাকা আর তা ভবনে উঠানোর খরচ দেখানো হয়েছে ৭৬০ টাকা! এভাবে চুলা, কেটলি, খাট, ওয়ারড্রব, টেলিভিশন, আয়রনের মতো পণ্য কেনার পেছনে আকাশচুম্বি খরচ দেখানো সরকারকে কলা দেখানো বৈ কিছু নয়।

সেখানে একজন বাবুর্চির বেতন ধরা হয়েছে ৮০ হাজার টাকা, গাড়ি চালকের বেতন ৯২ হাজার টাকা এবং একজন ব্যক্তিগত সহকারীর বেতন ১ লাখ ৪৮ হাজার টাকা। জনগণের টাকায় এমন পুকুরচুরি সত্যিই লজ্জার।

বাংলাদেশ উন্নয়নের পথে হাঁটলেও দুর্নীতি বন্ধ হয়নি। এদেশে দুর্নীতির প্রধান উৎস হল উন্নয়ন খাতগুলো। ইউরোপে একটি রাস্তা পাকা করতে যত টাকা ব্যয় হয়, বাংলাদেশে ব্যয় হয় তার কয়েকগুণ। বেশি টাকা ব্যয় করা হলেও এখানে রাস্তা নির্মাণ হয় অত্যন্ত নিুমানের। চাঁদপুরে একটি রাস্তা পাকা করার দু’দিন পরই পিচ উঠে গেছে।

এমন চিত্র এখন সাধারণ বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে আমাদের কাছে। আর এসব বিষয়ের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের মনে তৈরি হচ্ছে সরকারের প্রতি নেতিবাচক ধারণা। উন্নয়ন খাতে দুর্নীতি যারা করছে, তারা সরকারি লোক নয়।

সরকারের নাম ব্যবহার করে কতিপয় অসাধু ব্যক্তি এর ফায়দা নিচ্ছে। এসব দুর্নীতির খবরের আড়ালে সরকারের উন্নয়নের সফলতা ঢেকে যাচ্ছে। দুঃখের বিষয় হল, সরকার অনেক ক্ষেত্রেই ব্যর্থ হচ্ছে এসব দুর্নীতিবাজকে শাস্তি দিতে। সরকারি প্রভাব কাজে লাগিয়েই বেঁচে যাচ্ছে এসব পুকুরচুরি করা অসৎ ব্যক্তি।

অন্যদিকে এর ফলে দুর্নীতির দায় গিয়ে পড়ছে সরকারের ওপর। প্রশ্ন হল, সরকার কেন এসব দুর্নীতির দায় নিচ্ছে? দুর্নীতিবাজদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিলে সরকারের ভাবমূর্তির উন্নতি হবে। তাই সরকারের উচিত দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি বাস্তবায়ন করা। দুর্নীতিবাজদের কোনোভাবেই ছাড় দেয়া চলবে না।

মোহাম্মদ শরীফ : শিক্ষার্থী, ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ, কুমিল্লা

ঘটনাপ্রবাহ : বালিশ দুর্নীতি

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×