এ কোন সমাজে বাস করছি আমরা!

  আজহার মাহমুদ ০৯ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

নিহত আবরারের মায়ের আহাজারি, তাকে সান্তনা দিচ্ছেন স্বজনরা

আমরা মানবজাতি সৃষ্টির সেরা জীব। তবে এ জাতির মধ্যেও যে অনেক অমানুষ আছে, তা আমাদের চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছে তারা। যারা বুয়েটের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করেছে, আমি তাদের কথা বলছি।

কী অপরাধ করেছে সে? নিজের মতামত তুলে ধরাটাই কি তার অপরাধ? তাহলে কি সত্য বলা যাবে না? আমরা এমন এক সমাজে বাস করছি, যে সমাজে সত্য বললে খুন হতে হয়, অন্যায়ের প্রতিবাদ করা যায় না, অনিয়মের বিরুদ্ধে কিছু বলা যায় না।

আবরার ফেসবুকে একটা পোস্ট দিয়ে ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সদ্য সম্পাদিত চুক্তির বিষয়ে তার ভিন্নমত প্রকাশ করেছিলেন। তার এ পোস্টের কারণে যদি কারও তাকে হত্যা করার কিংবা পেটানোর ইচ্ছা হয়, তাহলে বলতে হবে আমরা প্রথমত একটা অসুস্থ জাতি, যেখানে কিছু বোঝার আগে হত্যা আর কিছু জানার আগে খুন করা হয়। মনে আছে বিশ্বজিতের কথা? সেই দৃশ্য কি আপনাদের চোখে ভাসে না?

যখন প্রাণ বাঁচানোর জন্য তিনি এদিক-ওদিক ছুটছিলেন, তখনও ছাত্রলীগের দয়া-মায়া হয়নি। তারা কেড়ে নিয়েছে তার প্রাণ। আবরার ফাহাদও একই পথের বলি হলেন।

আপনার-আমার কাছে আবরার ফাহাদের মৃত্যু হয়তো তেমন কিছু নয়; কিন্তু তার পরিবার, বাবা-মা অনুভব করেন কী এর কষ্ট। ছেলেকে কষ্ট করে পড়িয়ে এতদূর এনেছিলেন তারা। যে বুয়েটে পড়া সবার স্বপ্ন থাকে, আবরার সেখানে পড়ার সুযোগ পেয়েছিলেন

নিজের মেধা ও যোগ্যতা দিয়ে। তিনি হতে পারতেন দেশের একজন সম্পদ। কিন্তু ছাত্রলীগের কতিপয় সদস্য তা হতে দিল না।

এ ঘটনায় বোঝার বাকি থাকে না আমরা কোন সমাজে আছি। তবে একটি কথা আমাদের বুঝতে হবে- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অন্যায়কে কখনও ছাড় দেন না। দুঃখের বিষয়, তার দল ও সংগঠনের অনেক নেতাকর্মী নানা অন্যায়ের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছেন। নিজের দলে যারা অন্যায় করেছেন, দুর্নীতি করেছেন, তাদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছেন প্রধানমন্ত্রী। তাই আমার দৃঢ় বিশ্বাস, আবরার হত্যার বিচার হবে। তার হত্যাকারীদের শাস্তি হবে।

আমাদের সমাজে একশ্রেণির মানুষ আছে, যারা গুজব ও মিথ্যা রটিয়ে মজা পায়। অনেকে বলছে, সম্রাটকে গ্রেফতার করে আবরার ফাহাদের ঘটনাকে আড়াল করতে চাইছে সরকার। এসব নোংরা কথাবার্তা ছড়িয়ে তারা প্রমাণ করে তারা আসলেই নোংরা রয়ে গেছে। তাদের মন এখনও পরিষ্কার করতে পারিনি আমরা। তাই নোংরা খোলস থেকে বেরিয়ে সবাইকে সত্যের পথে, ন্যায়ের পথে আসতে হবে। নতুবা আমরা এই নোংরা সমাজেই রয়ে যাব আজীবন।

আজহার মাহমুদ : প্রাবন্ধিক

[email protected]

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত