সিঙ্গেল ডিজিট সুদহার: প্রধানমন্ত্রীর অসন্তোষের পর বাস্তবায়ন হবে কি?

  সম্পাদকীয় ০৭ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সুদ

ঋণের সুদহার ৯ শতাংশে নামিয়ে আনতে বহু তাগিদ, অনুরোধ, এমনকি খোদ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা এসেছে বহুবার। কিন্তু সেটি বাস্তবায়নের আশাবাদ এখনও সুদূর পরাহত। আদৌ সিঙ্গেল ডিজিট সুদহার বাস্তবায়ন করা যাবে কিনা, তা জোর দিয়ে বলার উপায় নেই।

সর্বশেষ মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে ঋণের সুদহার সিঙ্গেল ডিজিটে না নামানোয় অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় সুদহার সিঙ্গেল ডিজিট করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য অর্থমন্ত্রীকে নির্দেশ দেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা, সরকারের উচ্চপর্যায়ের একাধিক পদক্ষেপের পরও কেন ঋণের সুদহার এখনও সিঙ্গেল ডিজিটে নামানো যায়নি, তা আমাদের বোধগম্য নয়। কারণ সিঙ্গেল ডিজিট সুদে ঋণ দেবেন বলে সরকারের কাছ থেকে বহু সুবিধা আদায় করে নিয়েছেন ব্যাংক মালিকরা। তা সত্ত্বেও কিসের জোরে তারা প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করছেন না, খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেয়া জরুরি।

গত বছরের জুলাই থেকে আমানতের সুদহার ৬ শতাংশ এবং সব ধরনের ঋণের সুদহার ৯ শতাংশ বাস্তবায়নের ঘোষণা দেন ব্যাংক মালিকরা।

এ জন্য পূর্বশর্ত হিসেবে পাঁচটি বিশেষ সুবিধা তারা বাগিয়ে নেন, যার মধ্যে আছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে নগদ জমা বা সিআরআর এক শতাংশ কমানো, সরকারি আমানতের ৫০ ভাগ বেসরকারি ব্যাংকে রাখা, রেপো রেট কমানো এবং ঋণ-আমানত অনুপাত (এডিআর) সমন্বয়সীমা দফায় দফায় বাড়ানো।

এ ছাড়া বেসরকারি ব্যাংকে পরিচালক হিসেবে টানা ৯ বছর থাকা ও একই পরিবার থেকে সর্বোচ্চ ৪ জন পরিচালক থাকতে পারার মতো পরিবারতান্ত্রিক সুযোগও আদায় করেছেন ব্যাংক মালিকরা। কিন্তু বিপরীতে সিঙ্গেল ডিজিট সুদহার বাস্তবায়ন রয়ে গেছে স্বপ্নই। এটির বাস্তবায়ন আদৌ হবে কিনা, তা এখন দেখার বিষয়।

বস্তুত, সুযোগ-সুবিধা আদায় করার জন্য সিঙ্গেল ডিজিট সুদহারের প্রতিশ্রুতি দিলেও এটি বাস্তবায়নের ইচ্ছা যে ব্যাংক মালিকদের নেই তা তাদের আচরণ থেকেই স্পষ্ট। কিন্তু সরকারের নীতিনির্ধারণী মহল আন্তরিকভাবে চাইলে কোনোকিছু বাস্তবায়ন না হওয়ার বিষয়টি মেনে নেয়া কঠিন বৈকি। হতে পারে খোদ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার পরও সিঙ্গেল ডিজিট বাস্তবায়ন না হওয়ার পেছনে সংশ্লিষ্টদের গাফিলতি রয়েছে।

নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ হিসেবে বাংলাদেশ ব্যাংক ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট শাখা চাইলে সিঙ্গেল ডিজিট বাস্তবায়নে জোর ভূমিকা রাখতে পারে না, এমনটি মনে করার কোনো কারণ নেই। প্রায় দেড় বছর হতে চলল প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়ন না করার; কিন্তু নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ থেকে ব্যাংক মালিকদের ডাকা হয়েছে এমন কোনো নজির নেই। সময় অনেক গড়িয়েছে। অর্থনীতি ও উন্নয়নের স্বার্থে প্রধানমন্ত্রীর সর্বশেষ নির্দশনা মোতাবেক দ্রুত সিঙ্গেল ডিজিট বাস্তবায়ন করা হোক।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×