শাজাহান সিরাজের মৃত্যু

  ১৬ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বাঙালির হৃদয়ে বেঁচে থাকবেন তিনি

আ স ম আবদুর রব

শাজাহান সিরাজের মৃত্যুর খবরে আমি হতবিহ্বল হয়ে পড়ি। পরিণত বয়সে মৃত্যু হলেও তার মৃত্যুসংবাদ আমার কাছে ছিল একেবারেই অপ্রত্যাশিত। জাতিরাষ্ট্র বিনির্মাণের অন্যতম কারিগর, স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠক, স্বাধীন বাংলা ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের অন্যতম নেতা, মুক্তিসংগ্রামের সিপাহশালার শাজাহান সিরাজ আমাদের জাতির অস্তিত্বের অংশ। তার মৃত্যু জাতির অন্তরাত্মাতে ক্ষতের সৃষ্টি করে গেল। তিনি ছাত্রলীগের রাজনীতিতে অসম সাহসিকতা ও সংগ্রামী হিসেবে ছাত্র-যুবসমাজকে সংগঠিত এবং তাদের মধ্যে স্বাধীনতার মন্ত্র ছড়িয়ে দেয়ার ক্ষেত্রে যুগান্তকারী ভূমিকা রাখেন। ছাত্রলীগের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হওয়ার সঙ্গে তিনি সিরাজুল আলম খানের স্বাধীন বাংলা নিউক্লিয়াসেও যুক্ত হন।

১৯৭১ সালের ঐতিহাসিক ৩ মার্চ পল্টন ময়দানে স্বাধীন বাংলা ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের এক বিশাল জনসভায় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাজাহান সিরাজ স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠ করেন। সেই ঐতিহাসিক সমাবেশে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের ঘোষণা ও কর্মসূচি প্রকাশ করা হয়। নিউক্লিয়াস প্রণীত ইশতেহার শাজাহান সিরাজ পাঠ করার মধ্য দিয়ে নিজেকে ইতিহাসের স্বর্ণোজ্জ্বল অধ্যায়ে সংযুক্ত করেন।

স্বাধীনতার পর মুক্তিযুদ্ধের চেতনাভিত্তিক রাষ্ট্র বিনির্মাণের তাগিদে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল গঠন ও সংগ্রাম-আন্দোলনেও বিশাল ভূমিকা গ্রহণ করেন। যৌবনের বহু সোনালি দিন শাজাহান সিরাজ দেশমাতৃকার জন্য কারাগারে কাটিয়েছেন। তিনি আমার আন্দোলন-সংগ্রামের সাথী, আমার অনুভূতি, আমার চেতনার অংশ। শাজাহান সিরাজের মৃত্যু দেশের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি। যতদিন আমাদের স্বাধীনতা, জাতির অস্তিত্ব, পতাকা ও জাতীয় সঙ্গীত থাকবে, ততদিন শাজাহান সিরাজ বেঁচে থাকবেন সব বাঙালির হৃদয়ে।

আ স ম আবদুর রব : সভাপতি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি); শাজাহান সিরাজের সংগ্রামের সাথী

তার অবদান ইতিহাসের অবিচ্ছেদ্য অংশ

নূরে আলম সিদ্দিকী

স্বাধীন বাংলা কেন্দ্রীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের সদস্য সচিব, স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠক, মুক্তিযুদ্ধের গর্বিত সংগঠক শাজাহান সিরাজ মারা গেছেন। তিনি ইহজগৎ থেকে পরলোকে গমন করলেও স্বাধীনতাযুদ্ধ সংগঠিত করতে তার গুরুত্বপূর্ণ অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে। তিনি একটি জাতির মুক্তি আন্দোলনের সাফল্যের গৌরবে চিরঞ্জীব ও কালজয়ী মহান নেতা হিসেবে অমর হয়ে থাকবেন ইনশাআল্লাহ। আমি তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করছি।

রাজনীতিতে মতের ভিন্নতা থাকলেও ব্যক্তিগত জীবনে তিনি আমার সহোদরপ্রতিম ছিলেন।

নূরে আলম সিদ্দিকী : তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান ছাত্রলীগের সভাপতি; শাজাহান সিরাজের সংগ্রামের সাথী

আরও খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত