রাজধানীর যানজট কমানো সম্ভব
jugantor
রাজধানীর যানজট কমানো সম্ভব

  জুবের আহমদ  

২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বিশেষজ্ঞরা বলেন, পরিকল্পিত নগরীতে প্রয়োজন মোট আয়তনের ২৫ ভাগ রাস্তা। রাস্তার অপ্রতুলতা ও অপরিকল্পিত ব্যবস্থা ঢাকা মহানগরীর যানজটের প্রধান কারণ।

রাজধানীর যানজট সমস্যার সমাধানে ঢাকার আশপাশে শীতলক্ষ্যা, বুড়িগঙ্গা, তুরাগ-এ তিনটি নদীর দুই পাশ দিয়ে কমপক্ষে চার লেন রাস্তা নির্মাণ করতে হবে। এছাড়া এ তিনটি নদীর উপর কমপক্ষে আরও পাঁচটি করে ব্রিজ নির্মাণ করতে হবে। ঢাকার যেসব খাল ও খালের দুই পাড় দখল হয়ে গেছে, সেসব খাল উদ্ধার ও গভীর করে দুই পাড়ে রাস্তা নির্মাণ করতে হবে। নদী ও খাল ব্যবহার করে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যাত্রী, মালামাল পরিবহনের ব্যবস্থা করতে হবে।

একতলা বাসের পরিবর্তে যতটা সম্ভব দোতলা বাস চালানোর ব্যবস্থা নিলে যানবাহন কিছুটা কমবে। পর্যাপ্ত গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা না রাখলে ভবন নির্মাণের নকশা অনুমোদন করা যাবে না। যে কাজগুলো শুধু ঢাকা ছাড়া অন্য কোথাও হয় না, সে কাজগুলো প্রত্যেক বিভাগীয় শহরে করার ব্যবস্থা করতে হবে। দেশের যেসব এলাকায় কর্মসংস্থানের সুযোগ নেই সেসব এলাকা চিহ্নিত করে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে। ফলে কর্মের জন্য ওইসব এলাকার মানুষকে আর ঢাকায় আসতে হবে না, এতেও যানজট কিছুটা কমবে।

মেট্রোরেল হলে যাত্রীবাহী, মালবাহী গাড়ি কমে যাবে কি? না, কমবে না। মেট্রোরেল হলে এর যাত্রীরা যানজটমুক্তভাবে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যেতে পারবেন; কিন্তু রাস্তা বৃদ্ধি না পেলে যানজটে পাবলিক গাড়ির যাত্রীরা আটকে থাকবেন আগের মতোই। গাড়ির রাস্তায় যানজট কমবে না। পাতাল রেল হলেও একই অবস্থা হবে। সেজন্য মেট্রোরেল চালু করার আগে ঢাকার রাস্তা সম্প্রসারণের উদ্যোগ নিতে হবে। যেখানে চার রাস্তা একসঙ্গে মিলিত হয়েছে, সেখানে পয়েন্টের মধ্যখানে ডিভাইডার দিয়ে রাস্তাটা দুভাগ করতে হবে।

পয়েন্টের মাঝখানে উত্তর-দক্ষিণ ডিভাইডার নির্মাণ করা হলে পূর্ব-পশ্চিম দিকের গাড়ি সোজা অপর পাশে যেতে পারবে না। বিপরীত পাশে যেতে হলে একটু ঘুরে যেতে হবে। তবে উত্তর-দক্ষিণ দিকের গাড়ি সোজা অপর পাশে যেতে পারবে। জায়গা অনুযায়ী উত্তর-দক্ষিণ অথবা পূর্ব-পশ্চিম ডিভাইডার নির্মাণ করতে হবে। পয়েন্ট থেকে একটু দূরে যেখানে অন্য কোনো রাস্তা মিলিত হয়নি, সেখানে ডিভাইডারে গোলচত্বর তৈরি করে গাড়ি একপাশ থেকে অন্যপাশে যাওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে।

আশা করি ঢাকার যানজট একদিন দূর হবে। কোনো একদিন যানজটমুক্ত ঢাকায় সূর্য উঠবে। সেদিন মানুষের দুর্ভোগ কমবে।

জুবের আহমদ : প্রাবন্ধিক

Juber3848@gmail.com

রাজধানীর যানজট কমানো সম্ভব

 জুবের আহমদ 
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বিশেষজ্ঞরা বলেন, পরিকল্পিত নগরীতে প্রয়োজন মোট আয়তনের ২৫ ভাগ রাস্তা। রাস্তার অপ্রতুলতা ও অপরিকল্পিত ব্যবস্থা ঢাকা মহানগরীর যানজটের প্রধান কারণ।

রাজধানীর যানজট সমস্যার সমাধানে ঢাকার আশপাশে শীতলক্ষ্যা, বুড়িগঙ্গা, তুরাগ-এ তিনটি নদীর দুই পাশ দিয়ে কমপক্ষে চার লেন রাস্তা নির্মাণ করতে হবে। এছাড়া এ তিনটি নদীর উপর কমপক্ষে আরও পাঁচটি করে ব্রিজ নির্মাণ করতে হবে। ঢাকার যেসব খাল ও খালের দুই পাড় দখল হয়ে গেছে, সেসব খাল উদ্ধার ও গভীর করে দুই পাড়ে রাস্তা নির্মাণ করতে হবে। নদী ও খাল ব্যবহার করে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যাত্রী, মালামাল পরিবহনের ব্যবস্থা করতে হবে।

একতলা বাসের পরিবর্তে যতটা সম্ভব দোতলা বাস চালানোর ব্যবস্থা নিলে যানবাহন কিছুটা কমবে। পর্যাপ্ত গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা না রাখলে ভবন নির্মাণের নকশা অনুমোদন করা যাবে না। যে কাজগুলো শুধু ঢাকা ছাড়া অন্য কোথাও হয় না, সে কাজগুলো প্রত্যেক বিভাগীয় শহরে করার ব্যবস্থা করতে হবে। দেশের যেসব এলাকায় কর্মসংস্থানের সুযোগ নেই সেসব এলাকা চিহ্নিত করে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে। ফলে কর্মের জন্য ওইসব এলাকার মানুষকে আর ঢাকায় আসতে হবে না, এতেও যানজট কিছুটা কমবে।

মেট্রোরেল হলে যাত্রীবাহী, মালবাহী গাড়ি কমে যাবে কি? না, কমবে না। মেট্রোরেল হলে এর যাত্রীরা যানজটমুক্তভাবে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যেতে পারবেন; কিন্তু রাস্তা বৃদ্ধি না পেলে যানজটে পাবলিক গাড়ির যাত্রীরা আটকে থাকবেন আগের মতোই। গাড়ির রাস্তায় যানজট কমবে না। পাতাল রেল হলেও একই অবস্থা হবে। সেজন্য মেট্রোরেল চালু করার আগে ঢাকার রাস্তা সম্প্রসারণের উদ্যোগ নিতে হবে। যেখানে চার রাস্তা একসঙ্গে মিলিত হয়েছে, সেখানে পয়েন্টের মধ্যখানে ডিভাইডার দিয়ে রাস্তাটা দুভাগ করতে হবে।

পয়েন্টের মাঝখানে উত্তর-দক্ষিণ ডিভাইডার নির্মাণ করা হলে পূর্ব-পশ্চিম দিকের গাড়ি সোজা অপর পাশে যেতে পারবে না। বিপরীত পাশে যেতে হলে একটু ঘুরে যেতে হবে। তবে উত্তর-দক্ষিণ দিকের গাড়ি সোজা অপর পাশে যেতে পারবে। জায়গা অনুযায়ী উত্তর-দক্ষিণ অথবা পূর্ব-পশ্চিম ডিভাইডার নির্মাণ করতে হবে। পয়েন্ট থেকে একটু দূরে যেখানে অন্য কোনো রাস্তা মিলিত হয়নি, সেখানে ডিভাইডারে গোলচত্বর তৈরি করে গাড়ি একপাশ থেকে অন্যপাশে যাওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে।

আশা করি ঢাকার যানজট একদিন দূর হবে। কোনো একদিন যানজটমুক্ত ঢাকায় সূর্য উঠবে। সেদিন মানুষের দুর্ভোগ কমবে।

জুবের আহমদ : প্রাবন্ধিক

Juber3848@gmail.com

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন