গ্যাসের দাম বৃদ্ধির উদ্যোগ
jugantor
গ্যাসের দাম বৃদ্ধির উদ্যোগ
অযৌক্তিক মূল্য নির্ধারণ কাম্য নয়

  সম্পাদকীয়  

২১ জানুয়ারি ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

গ্যাস

গ্যাসের দাম বৃদ্ধির উদ্যোগে স্বভাবতই চিন্তিত সব শ্রেণির ভোক্তা ও শিল্পোদ্যোক্তারা। উল্লেখ্য, গ্যাস বিতরণ কোম্পানিগুলো তাদের প্রস্তাবনায় গ্যাসের দাম ১০৩ থেকে ১০৬ শতাংশ পর্যন্ত অর্থাৎ দ্বিগুণেরও বেশি করার কথা জানিয়েছে।

সরকারের জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগের সম্মতির পর গ্যাসের মূল্যহার বৃদ্ধির প্রস্তাব নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনে (বিইআরসি) জমা দিতে শুরু করেছে গ্যাস সঞ্চালন, উৎপাদন ও বিতরণ কোম্পানিগুলো।

বিতরণ কোম্পানিগুলো অতীতে কখনো একবারে গ্যাসের দাম এত বৃদ্ধির প্রস্তাব করেনি। এবার এ ধরনের প্রস্তাব করা হচ্ছে কেন, তা আমাদের বোধোগম্য নয়। জ্বালানি বিশেষজ্ঞরা এ ধরনের প্রস্তাবকে অবাস্তব বলে অভিহিত করেছেন।

বস্তুত এ সময় গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রস্তাব অযৌক্তিক বলে মনে করি আমরা। দেশে বেশ কিছুদিন ধরে দ্রব্যমূল্য ক্রমাগত বাড়ছে। এরই মধ্যে কিছুদিন আগে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে। এতে নিত্যপণ্যের দাম আরেক দফা বেড়ে সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে। বাস ভাড়া বৃদ্ধিকে কেন্দ্র করে পরিবহণ খাতে সৃষ্টি হয়েছে অরাজকতা।

এ প্রেক্ষাপটে গ্যাসের দাম বাড়ানো হলে দেশে মূল্যস্ফীতি আরও প্রকট হবে। কারণ গ্যাসের দাম বাড়লে গ্যাসনির্ভর শিল্পগুলোর ব্যয় বেড়ে যাবে। অন্যদিকে বাড়বে বিদ্যুতের দামও। ফলে পণ্যের উৎপাদন ব্যয় বাড়বে। সবকিছু মিলে দ্রব্যমূল্য আরও বাড়বে। এতে একদিকে বাড়বে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ, অন্যদিকে শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলো হারাবে প্রতিযোগিতা সক্ষমতা।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, এর ফলে করোনা মহামারির অভিঘাত থেকে দেশের অর্থনীতির ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা ব্যাহত হবে। আমরা জানি, করোনা পরিস্থিতিতে অনেক মানুষ কাজ বা চাকরি হারিয়েছে।

ছোট ও মাঝারি অনেক ব্যবসা বন্ধ হয়ে গেছে। কাজেই এ সময় গ্যাসের দাম বাড়ানোর উদ্যোগ থেকে সরে আসাই হবে সরকারের জন্য শুভবুদ্ধির পরিচায়ক।

তাই আমরা আশা করব, গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির বিষয়ে বাস্তব দৃষ্টিভঙ্গির পরিচয় দেবে কর্তৃপক্ষ। তা না হলে জন-অসন্তোষ তৈরি হবে। উৎপাদক ও ভোক্তার স্বার্থ দুই-ই বিপন্ন হবে অযৌক্তিক মূল্য নির্ধারণে। সেক্ষেত্রে যে বর্ধিত অর্থ আয়ের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হচ্ছে, তাও হয়তো আর পূরণ হবে না। তাই কোনোভাবেই গ্যাসের অযৌক্তিক মূল্য বৃদ্ধি কাম্য নয়।

গ্যাসের দাম বৃদ্ধির উদ্যোগ

অযৌক্তিক মূল্য নির্ধারণ কাম্য নয়
 সম্পাদকীয় 
২১ জানুয়ারি ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
গ্যাস
ফাইল ছবি

গ্যাসের দাম বৃদ্ধির উদ্যোগে স্বভাবতই চিন্তিত সব শ্রেণির ভোক্তা ও শিল্পোদ্যোক্তারা। উল্লেখ্য, গ্যাস বিতরণ কোম্পানিগুলো তাদের প্রস্তাবনায় গ্যাসের দাম ১০৩ থেকে ১০৬ শতাংশ পর্যন্ত অর্থাৎ দ্বিগুণেরও বেশি করার কথা জানিয়েছে।

সরকারের জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগের সম্মতির পর গ্যাসের মূল্যহার বৃদ্ধির প্রস্তাব নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনে (বিইআরসি) জমা দিতে শুরু করেছে গ্যাস সঞ্চালন, উৎপাদন ও বিতরণ কোম্পানিগুলো।

বিতরণ কোম্পানিগুলো অতীতে কখনো একবারে গ্যাসের দাম এত বৃদ্ধির প্রস্তাব করেনি। এবার এ ধরনের প্রস্তাব করা হচ্ছে কেন, তা আমাদের বোধোগম্য নয়। জ্বালানি বিশেষজ্ঞরা এ ধরনের প্রস্তাবকে অবাস্তব বলে অভিহিত করেছেন।

বস্তুত এ সময় গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রস্তাব অযৌক্তিক বলে মনে করি আমরা। দেশে বেশ কিছুদিন ধরে দ্রব্যমূল্য ক্রমাগত বাড়ছে। এরই মধ্যে কিছুদিন আগে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে। এতে নিত্যপণ্যের দাম আরেক দফা বেড়ে সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে। বাস ভাড়া বৃদ্ধিকে কেন্দ্র করে পরিবহণ খাতে সৃষ্টি হয়েছে অরাজকতা।

এ প্রেক্ষাপটে গ্যাসের দাম বাড়ানো হলে দেশে মূল্যস্ফীতি আরও প্রকট হবে। কারণ গ্যাসের দাম বাড়লে গ্যাসনির্ভর শিল্পগুলোর ব্যয় বেড়ে যাবে। অন্যদিকে বাড়বে বিদ্যুতের দামও। ফলে পণ্যের উৎপাদন ব্যয় বাড়বে। সবকিছু মিলে দ্রব্যমূল্য আরও বাড়বে। এতে একদিকে বাড়বে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ, অন্যদিকে শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলো হারাবে প্রতিযোগিতা সক্ষমতা।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, এর ফলে করোনা মহামারির অভিঘাত থেকে দেশের অর্থনীতির ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা ব্যাহত হবে। আমরা জানি, করোনা পরিস্থিতিতে অনেক মানুষ কাজ বা চাকরি হারিয়েছে।

ছোট ও মাঝারি অনেক ব্যবসা বন্ধ হয়ে গেছে। কাজেই এ সময় গ্যাসের দাম বাড়ানোর উদ্যোগ থেকে সরে আসাই হবে সরকারের জন্য শুভবুদ্ধির পরিচায়ক।

তাই আমরা আশা করব, গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির বিষয়ে বাস্তব দৃষ্টিভঙ্গির পরিচয় দেবে কর্তৃপক্ষ। তা না হলে জন-অসন্তোষ তৈরি হবে। উৎপাদক ও ভোক্তার স্বার্থ দুই-ই বিপন্ন হবে অযৌক্তিক মূল্য নির্ধারণে। সেক্ষেত্রে যে বর্ধিত অর্থ আয়ের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হচ্ছে, তাও হয়তো আর পূরণ হবে না। তাই কোনোভাবেই গ্যাসের অযৌক্তিক মূল্য বৃদ্ধি কাম্য নয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন