ব্যাংকিং খাতে বিশৃঙ্খলা

শক্তিশালী কমিশন গঠনে কার্যকর পদক্ষেপ নিন

  যুগান্তর ডেস্ক    ২২ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ব্যাংকিং
প্রতীকি ছবি

বাংলাদেশের ব্যাংকিং খাতে দুর্নীতি, অনিয়ম, অব্যবস্থাপনা চরম আকার ধারণ করার প্রেক্ষাপটে এ খাতে শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠা জরুরি হয়ে পড়েছে। ব্যাংকিং খাতের সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে বিশেষজ্ঞদের পক্ষ থেকে এ খাতে স্বচ্ছতা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে তিন বছর আগে একটি স্বাধীন কমিশন গঠনের ওপর গুরুত্ব আরোপ করা হলেও আজও কমিশন গঠনের উদ্যোগ নেয়া হয়নি।

ফলে ঋণ জালিয়াতিসহ একের পর এক অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটছে এ খাতে। বস্তুত খেলাপি ঋণের চাপে নাজুক পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে দেশের ব্যাংকিং খাতে। এ খাতে শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠার জন্য বিশেষ কমিশন গঠন করা কতটা জরুরি তা স্বয়ং অর্থমন্ত্রী উপলব্ধি করা সত্ত্বেও কমিশন গঠনে কেন যথাযথ উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে না, এটা এক প্রশ্ন বটে।

বিশেষজ্ঞরা বারবার সতর্ক করে বলেছেন- ব্যাংকিং খাতে জালিয়াতি ও অব্যবস্থাপনা রোধ করা না গেলে বিশৃঙ্খলা আরও চরম আকার ধারণ করবে। লক্ষ করা যাচ্ছে, এ খাতে বড় ধরনের অনিয়ম ও দুর্নীতির ঘটনা ঘটলেও সমস্যার সমাধানে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে না। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে এ খাতের সার্বিক অনিয়ম রোধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া জরুরি হয়ে পড়েছে।

দেশের উল্লেখযোগ্যসংখ্যক ব্যাংকের সার্বিক পরিস্থিতি মোটেই ভালো নয়। এসব ব্যাংকের দুর্বলতা কাটাতে জরুরি পদক্ষেপ নিতে হবে। মন্দ ঋণের কারণে বিভিন্ন ব্যাংকের আর্থিক ভিত্তি কতটা দুর্বল হয়ে পড়ছে, এটাও বহুল আলোচিত। খেলাপি ঋণ বাড়লে ভালো গ্রাহকরা নানাভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হন।

দেশে ব্যাংকিং খাতে একের পর এক ভয়াবহ দুর্নীতি ও লুটপাটের ঘটনা ঘটলেও অপরাধীদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে, এটাও এক প্রশ্ন। গোটা অর্থনীতি ও উন্নয়নের স্বার্থে এ খাতের দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া জরুরি। যেহেতু দেশের ব্যাংকিং খাত বহুমাত্রিক সমস্যায় জর্জরিত, সেহেতু এ খাতে যথাযথ শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠায় বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুযায়ী শক্তিশালী কমিশন গঠনে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। অর্থনীতিবিদদের মতে, এখনই কমিশন গঠন করে স্বচ্ছতা না ফেরালে ব্যাংকিং খাতের মেরুদণ্ড ভেঙে পড়বে।

ব্যাংকিং খাতের বহু সমস্যা অনেক আগেই চিহ্নিত করা হয়েছে। এখন দরকার সমস্যার সমাধানে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া। এ খাতে শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি ব্যাংকের গ্রাহকসেবা নিশ্চিত করার জন্যও যথাযথ পদক্ষেপ নিতে হবে।

 

 

আরও পড়ুন

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.