সড়কে বিশৃঙ্খলা

আইন মানার সংস্কৃতিই পারে রোধ করতে

  যুগান্তর ডেস্ক    ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সড়কে গাড়ি
সড়কে গাড়ি। ফাইল ছবি

রাজধানীর সড়কগুলোতে বিশৃঙ্খলা, দুর্ঘটনা-প্রাণহানির পেছনের অন্যতম কারণ চালক ও যাত্রী- কারোরই আইনের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ না থাকা।

চালকরা যেমন যত্রতত্র গাড়ি থামাচ্ছেন, যাত্রী তুলছেন ও নামাচ্ছেন, এমনকি মানছেন না জেব্রাক্রসিং পারাপারের আইন, তেমনি যাত্রীরাও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মাঝ রাস্তা দিয়েই পার হচ্ছেন, জেব্রা ক্রসিং, ফুটওভার ব্রিজ বা আন্ডারপাস ব্যবহারের তোয়াক্কা করছেন না।

এতে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণহানি ঘটছে অথবা আজীবনের জন্য পঙ্গুত্ববরণ করতে হচ্ছে। অবশ্য যাত্রীদের জেব্রা ক্রসিং ব্যবহার না করার অন্যতম কারণ বাস-কারসহ প্রায় সব গাড়িই সিগন্যাল মতো জ্রেবা ক্রসিংয়ের আগে না থেমে চলে যায় বা জ্রেবা ক্রসিংয়ের ঠিক ওপরই দাঁড়ায়।

ওভার ব্রিজ ও আন্ডারপাস ব্যবহার না করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পার হওয়ার কারণও রয়েছে। বস্তুত এগুলো পরিকল্পিতভাবে নির্মাণ না করে এডহক ভিত্তিতে করার কারণে দেখা যাচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ মোড় থেকে অনেকদূরে এগুলোর অবস্থান, এমনকি এগুলোতে পৌঁছার জন্য ঝুঁকিপূর্ণ রাস্তা পার হতে হয়।

অর্থাৎ ওভারব্রিজ বা আন্ডারপাস ব্যবহার না করে ঝুঁকি নিয়ে মাঝ রাস্তা দিয়ে পার হতে দেখা যায় অনেককে। এ অবস্থায় সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানোর জন্য চালক থেকে শুরু করে পথচারী- এক কথায় সব মানুষের মধ্যে ট্রাফিক আইন ও সড়কের নিয়ম-কানুন মেনে চলার সংস্কৃতি গড়ে তোলার বিকল্প নেই।

এক্ষেত্রে ট্রাফিক পুলিশ বিভাগ, বিআরটিএ, সিটি কর্পোরেশন এবং সড়ক যোগাযোগ ও সেতু মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে যৌথ উদ্যোগ নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে। ব্যাপকহারে জনসচেতনতা তৈরিই পারে সড়কে শৃঙ্খলা নিশ্চিত করতে।

যুগান্তরে প্রকাশিত খবরে বলা হয়, জেব্রা ক্রসিং ও নির্দিষ্ট স্টপেজ ব্যবহার না করে যত্রতত্র যাত্রী ওঠানামার বিষয়ে চালক-হেলপার ও যাত্রীরা একে অপরকে দায়ী করছেন। চালকরা বলছেন, যাত্রীরা নির্দিষ্ট স্টপেজে ও জেব্রা ক্রসিংয়ে না দাঁড়িয়ে মোড়ে দাঁড়ান বিধায় তাদের তুলতে হয়। অন্যদিকে যাত্রীদের অভিযোগ চালকরা যেমন জেব্রা ক্রসিংয়ের ওপর দাঁড়ান, তেমনি স্টপেজের তোয়াক্কা না করে সুবিধামতো আগে-পরে যাত্রী উঠানো-নামানোর কাজটি সারেন।

দু’পক্ষের কেউই যে আইনের তোয়াক্কা না করে ইচ্ছামাফিক চলছেন, তাদের বক্তব্য থেকেই সেটি স্পষ্ট। এ অবস্থায় পথচারীদের কম কষ্ট ও সময় বাঁচানোর জন্য এবং চালক-হেলপারদের বেশি যাত্রী পেতে আইন ভঙ্গের সংস্কৃতি রোধে দীর্ঘমেয়াদি সচেতনতামূলক পদক্ষেপ নিতে হবে।

যাত্রী, পথচারী ও চালক সবাইকে মূল্যবান জীবন-অঙ্গহানি থেকে রক্ষার জন্য ট্রাফিক আইন মেনে চলা এবং সামান্য সুবিধার জন্য জীবনকে হুমকির মুখে ফেলা বোকামি- এমন বোধ তৈরি করা গেলে মানুষের সচেতন না হওয়ার কোনো কারণ নেই।

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter