নাটোর-৪: ঐক্যজোটের প্রার্থী হতে চান কারাবন্দি অধ্যক্ষ দেলোয়ার
jugantor
নাটোর-৪: ঐক্যজোটের প্রার্থী হতে চান কারাবন্দি অধ্যক্ষ দেলোয়ার

  বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি  

১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নাটোর-৪ আসনে ঐক্যজোটের প্রার্থী হতে চান কারাবন্দি অধ্যক্ষ দেলোয়ার হোসেন খান
নাটোর-৪ আসনে ঐক্যজোটের প্রার্থী হতে চান কারাবন্দি অধ্যক্ষ দেলোয়ার হোসেন খান। ছবি: যুগান্তর

নাটোর-৪ (বড়াইগ্রাম-গুরুদাসপুর) আসনে ২০ দলীয় ঐক্যজোটের মনোনয়ন পেতে চান কারাবন্দি অধ্যক্ষ দেলোয়ার হোসেন খান। তিনি জেলা জামায়াতের নায়েবে আমীর ও নাটোর সিটি কলেজের অধ্যক্ষ।

দলীয় নিবন্ধন না থাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ইতোমধ্যেই তার পক্ষে সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও বড়াইগ্রাম উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দফতর থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন দলের নেতারা।

বড়াইগ্রামের পারকোল গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান দেলোয়ার জেলা ছাত্রশিবিরের সভাপতি ছাড়াও জেলা জামায়াতের সেক্রেটারি ও বর্তমানে নায়েবে আমীর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। দুই উপজেলাজুড়ে ব্যক্তি পরিচিতি ও সাংগঠনিক শক্তিকে কাজে লাগিয়ে তিনি এ আসনে নির্বাচন করতে চান।

এ লক্ষ্যে দরিদ্রদের মাঝে শীতবস্ত্র, ঈদসামগ্রী, টিউবওয়েল বিতরণ, ভোটারদের সঙ্গে যোগাযোগ ও পোস্টারিংসহ গণসংযোগ করে যাচ্ছেন দলের নেতাকর্মীরা।

জোটের কাছে জামায়াত জেলার যে দু’টি আসন দাবি করেছে তার মধ্যে এটি অন্যতম জানিয়ে বড়াইগ্রাম জামায়াতের আমীর অধ্যাপক আবুল হোসেন জানান, ১৯৯১ সালের নির্বাচনে এ আসনে জামায়াত ২৯ হাজার ভোট পেয়েছিল। বর্তমানে সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধির পাশাপাশি ভোটার সংখ্যাও বেড়েছে।

প্রকাশ্যে শোডাউন করতে না পারলেও জোরেশোরে গণসংযোগ চলছে। ঐক্যজোটের মনোনয়ন পেলে বিজয়ী হতে তেমন বেগ পেতে হবে না বলে তিনি জানান।

গুরুদাসপুর উপজেলা জামায়াত আমীর আবদুল খালেক জানান, মূলত নির্বাচন থেকে দূরে রাখতেই ষড়যন্ত্রমূলকভাবে তফসিল ঘোষণার দিনই ডিবি পুলিশকে দিয়ে তাকে আটক করানো হয়েছে।

জোটের আন্দোলনে বারবার কারা নির্যাতিত এ প্রার্থীর ব্যক্তিগত ও দলীয় ভূমিকার মূল্যায়ন করে তাকেই মনোনয়ন দেয়া হবে বলে নেতাকর্মীরা আশা করছেন বলে তিনি জানান।

নাটোর-৪: ঐক্যজোটের প্রার্থী হতে চান কারাবন্দি অধ্যক্ষ দেলোয়ার

 বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি 
১৭ নভেম্বর ২০১৮, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
নাটোর-৪ আসনে ঐক্যজোটের প্রার্থী হতে চান কারাবন্দি অধ্যক্ষ দেলোয়ার হোসেন খান
নাটোর-৪ আসনে ঐক্যজোটের প্রার্থী হতে চান কারাবন্দি অধ্যক্ষ দেলোয়ার হোসেন খান। ছবি: যুগান্তর

নাটোর-৪ (বড়াইগ্রাম-গুরুদাসপুর) আসনে ২০ দলীয় ঐক্যজোটের মনোনয়ন পেতে চান কারাবন্দি অধ্যক্ষ দেলোয়ার হোসেন খান। তিনি জেলা জামায়াতের নায়েবে আমীর ও নাটোর সিটি কলেজের অধ্যক্ষ।

দলীয় নিবন্ধন না থাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ইতোমধ্যেই তার পক্ষে সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও বড়াইগ্রাম উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দফতর থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন দলের নেতারা।

বড়াইগ্রামের পারকোল গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান দেলোয়ার জেলা ছাত্রশিবিরের সভাপতি ছাড়াও জেলা জামায়াতের সেক্রেটারি ও বর্তমানে নায়েবে আমীর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। দুই উপজেলাজুড়ে ব্যক্তি পরিচিতি ও সাংগঠনিক শক্তিকে কাজে লাগিয়ে তিনি এ আসনে নির্বাচন করতে চান।

এ লক্ষ্যে দরিদ্রদের মাঝে শীতবস্ত্র, ঈদসামগ্রী, টিউবওয়েল বিতরণ, ভোটারদের সঙ্গে যোগাযোগ ও পোস্টারিংসহ গণসংযোগ করে যাচ্ছেন দলের নেতাকর্মীরা।

জোটের কাছে জামায়াত জেলার যে দু’টি আসন দাবি করেছে তার মধ্যে এটি অন্যতম জানিয়ে বড়াইগ্রাম জামায়াতের আমীর অধ্যাপক আবুল হোসেন জানান, ১৯৯১ সালের নির্বাচনে এ আসনে জামায়াত ২৯ হাজার ভোট পেয়েছিল। বর্তমানে সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধির পাশাপাশি ভোটার সংখ্যাও বেড়েছে।

প্রকাশ্যে শোডাউন করতে না পারলেও জোরেশোরে গণসংযোগ চলছে। ঐক্যজোটের মনোনয়ন পেলে বিজয়ী হতে তেমন বেগ পেতে হবে না বলে তিনি জানান।

গুরুদাসপুর উপজেলা জামায়াত আমীর আবদুল খালেক জানান, মূলত নির্বাচন থেকে দূরে রাখতেই ষড়যন্ত্রমূলকভাবে তফসিল ঘোষণার দিনই ডিবি পুলিশকে দিয়ে তাকে আটক করানো হয়েছে।

জোটের আন্দোলনে বারবার কারা নির্যাতিত এ প্রার্থীর ব্যক্তিগত ও দলীয় ভূমিকার মূল্যায়ন করে তাকেই মনোনয়ন দেয়া হবে বলে নেতাকর্মীরা আশা করছেন বলে তিনি জানান।