বাগেরহাট-৩: ফরিদকে প্রার্থী চায় বিএনপি

প্রকাশ : ০৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  রামপাল (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

লায়ন ডক্টর শেখ ফরিদুল ইসলাম। ছবি: যুগান্তর

বাগেরহাট-৩ (রামপাল-মোংলা) আসনে দীর্ঘদিন বিএনপির কোনো প্রার্থী এই আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করায় দুর্বল জামায়াতকে বারবার বিপুল ভোটে পরাজিত করে আসনটি ধরে রেখেছেন ক্ষমতাশীন আওয়ামী লীগ।

রামপাল-মোংলায় ৫০-৫৫ হাজার সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ভোট রয়েছে। যে কারণে বারবার পরাজিত এ আসনটিতে আর কোনো ছাড় দিতে চায় না বিএনপি নেতাকর্মীরা। তাদের দীর্ঘদিনের দাবি ছিল, রামপাল-মোংলা আসনে জামায়াতকে নয় বরং বিএনপির যোগ্য কোনো ব্যক্তিকেই মনোনয়ন দেয়া হোক।

সর্বশেষ দীর্ঘ যাচাই-বাছাই করে সাবেক ছাত্রদল নেতা ও বর্তমান বাগেরহাট জেলার বিএনপি সহ-সভাপতি লায়ন ডক্টর শেখ ফরিদুল ইসলামকে ২০ দলীয় ঐক্যজোট থেকে মনোনয়ন দেয়া হয়। এরপর থেকে ক্ষমতাশীন আওয়ামী লীগ নড়েচড়ে বসেন।

হেভিওয়েট ঐক্যজোটের প্রার্থীকে ঘিরে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। সাধারণ আমজনতা মনে করছেন, এবার তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক লড়াই হবে। আওয়ামী লীগের প্রার্থী হাবিবুন নাহার ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে কর্মিসমাবেশ ও বর্ধিত সভা করে যাচ্ছেন প্রতিনিয়ত।

কৌশলগত কারণে বিএনপির প্রার্থী লায়ন ডক্টর শেখ ফরিদুল ইসলাম নেতাকর্মীদের নিয়ে কোথাও কোনো সভা সমাবেশ করতে না পারলেও তার কর্মীরা সরব রয়েছে। তাদের দাবি, রাজপথে নয় বরং জনসমর্থনে ভোটের মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চায় তারা।

এই নেতা দীর্ঘ ৯ বছর ধরে আর্তমনবতার সেবাই নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন দলমত নির্বিশেষে। যে কারণে সবার কাছে তার ব্যক্তি ইমেজই এবার নির্বাচনী বড় হাতিয়ার।

রামপাল-মোংলায় প্রতি বছর তিনি ব্যক্তিগতভাবে চক্ষু চিকিৎসা শিবির, শিক্ষাবৃত্তি প্রদান, শিক্ষা উপকরণ বিতরণ, গরিব-অসহায় রোগীদের চিকিৎসা প্রদান, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে অনুদান বিতরণ এবং গায়েবি মামলার শিকার শত শত নেতাকর্মীকে আইনি সহায়তা প্রদান করে এলাকায় ব্যাপক সুনাম অর্জন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র লায়ন ডক্টর শেখ ফরিদুল ইসলাম।

তিনি বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি ঐক্যবদ্ধভাবে গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে বদ্ধপরিকর।

আমার বিশ্বাস, অবহেলিত এই রামপাল মোংলায় যোগ্যতার ভিত্তিতে জনমত যাচাই করে ২০ দলীয় ঐক্যজোট সঠিক সিদ্ধান্তে আমাকে চূড়ান্ত মনোনয়ন দিলে গণমানুষকে সঙ্গে নিয়ে বিপুল ভোটে বিজয়ে দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার কারামুক্তির মিছিলে অংশ হিসেবে আসনটি কেন্দ্রকে উপহার দিতে পারব।