সিরাজগঞ্জ-৩: ওসি অপসারণের দাবি বিএনপির

প্রকাশ : ২৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

ছবি: যুগান্তর

সিরাজগঞ্জ-৩ (রায়গঞ্জ-তাড়াশ) আসনের নির্বাচনী প্রচারণায় আ’লীগের হামলা, পোস্টার ছেঁড়া, মাইক্রোবাস ভাংচুর ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানসহ নেতাকর্মীদের আহত করার অভিযোগ এনে নির্বাচনী পরিবেশ ও সমতল মাঠ নিশ্চিতের দাবি জানিয়েছেন বিএনপি প্রার্থী আবদুল মান্নান তালুকদার।

রোববার সকালে জেলা রিটার্নিং অফিসার বরাবর লিখিত আবেদন করেন তিনি। এছাড়াও হামলাকারীদের মদদ দেয়া, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে আ’লীগকে সহায়তা করা ও পক্ষপাতিত্বমূলক আচরণের অভিযোগ করে রায়গঞ্জ থানার ওসি এবং তদন্ত ওসি অপসারণ দাবি করেছেন তিনি।

আবদুল মান্নান তালুকদার জানান, শনিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় রায়গঞ্জ উপজেলার আটঘরিয়া বাজারে ধানের শীষের নির্বাচনী পথসভা চলাকালে স্থানীয় আ’লীগের সন্ত্রাসীরা সশস্ত্র অবস্থায় হামলা চালিয়ে সভামঞ্চ ও মাইক্রোবাস ভাংচুর এবং উপজেলা চেয়ারম্যান ও থানা বিএনপি নেতা আয়নুল হকসহ বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীকে আহত করে। এ সময় স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তা চাওয়া হলেও কোনো প্রকার সহায়তা পাননি।

লিখিত বক্তব্যে তিনি আরও জানান, তার নির্বাচনী এলাকার বিভিন্ন স্থানে ধানের শীষের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলেছে আ’লীগের লোকজন। প্রচারকাজে বাধাদানসহ বিএনপির নেতাকর্মী ও সমর্থকদের ভয়ভীতি দেখিয়ে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে।

এর আগে ১২ ডিসেম্বর তাড়াশ উপজেলার বিনোদপুর বাজার এলাকায় নির্বাচনী সভা চলাকালে আ’লীগের একদল সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে কয়েকটি মাইক্রোবাস ও মোটরসাইকেল ভাংচুর এবং অন্তত ১০ জনকে মারধর করে আহত করে।

রোববার দুপুরে আবদুল মান্নান তালুকদার সিরাজগঞ্জ শহরের ধানবান্ধির বাসভবনে উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান, এ সময় পুলিশের পক্ষপাতিত্বমূলক আচরণ ও আ’লীগ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় রায়গঞ্জ থানার ওসি পঞ্চানন্দ সরকার ও তদন্ত ওসি শহিদুল ইসলামের দ্রুত অপসারণ দাবি করেন তিনি।