বিচিত্রিতা

সাগরে সোনার খোঁজে

  যুগান্তর ডেস্ক    ১৯ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সাগরে সোনার খোঁজে

পানির নিচে সাগরের বুকে যে পরিমাণ খনিজসম্পদ আছে, তার দাম হয়তো শত শত কোটি মার্কিন ডলার। যেমন লোহিত সাগরের নিচের কাদামাটিতে সোনা, রুপো, দস্তা, তামা সব কিছু পাওয়া যায়।

ভূত্বকের ৭৫ ভাগ সাগরের পানিতে ঢাকা এক সুবিশাল এলাকা। পানির নিচে সাগরের বুকে তেল ছাড়া আরও অনেক খনিজসম্পদ লুকানো আছে। কিন্তু তা বের করে আনার মতো প্রযুক্তি এখনও মানুষের হাতে নেই।

জার্মানির কিল শহরের হেল্মহলৎস সামুদ্রিক গবেষণা কেন্দ্রের বিজ্ঞানীরা এক্ষেত্রে বিশেষ করে নজর দিয়েছেন লোহিত সাগর, মানে রেড সিয়ের দিকে। গবেষণা কেন্দ্রের আর্কাইভে রেড সি সমুদ্রবক্ষের অ্যাটলান্টিস-২ স্তরের মাটির হাজার হাজার নমুনা জমা রয়েছে।

বিজ্ঞানীরা দেখেছেন, সাগরের মাটিতে তামা, রুপোর মতো মহার্ঘ্য পদার্থ রয়েছে। এমনকি টন টন সোনাও রয়েছে বলে বিজ্ঞানীদের ধারণা। মেরিন বায়োলজিস্ট ডক্টর ভার্নার ব্রুকমান এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘অ্যাটলান্টিস ২-এর মতো এত বেশি খনিজসম্পদ আর সমুদ্রবক্ষে অন্য কোথাও পাওয়া যায় না। বর্তমান দাম অনুযায়ী ওখানকার খনিজসম্পদের মূল্য হবে ১৪ থেকে ১৬ বিলিয়ন ডলার। আমাদের কাছে যা নমুনা আছে, তা থেকে বলা যায়, ওখানে প্রায় ৩০ থেকে ৪০ টন সোনা আছে।’

সোনা, রুপো, দস্তা, তামা সবই সাগরের পানির নিচের কাদামাটিতে পাওয়া গেছে। গবেষণা কেন্দ্রে রাখা নমুনাগুলো থেকে মাটির উপাদান সঠিকভাবে বলা যায়। লোহিত সাগরের তলায় যেন সত্যিই সোনার খনি রয়েছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter