পর্তুগাল প্রবাসীরা বাঙালি আছেন থাকবেন

  যুগান্তর ডেস্ক    ০৫ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশে পহেলা বৈশাখ উদযাপিত হয় যেভাবে, ঠিক একই সময়ে একইভাবে বিদেশে থাকা বাংলাদেশিরাও দেশের সঙ্গে মিল রেখে উদযাপন করে থাকেন বাংলা নববর্ষ। অনেক সময় ক্যালেন্ডারের দিনক্ষণে পহেলা বৈশাখের প্রথম দিন পেরিয়ে গেলেও প্রবাসে থাকা বাংলাদেশিরা কিছুটা পর হলেও আনন্দ-উৎসবে দিবসটি পালন করে থাকেন।

প্রবাসে কর্মব্যস্ততা এবং জীবন-সংগ্রামে সবাই হাঁপিয়ে ওঠেন। বিদেশি সংস্কৃতিতে বাঙালি যখন হাবুডুবু খায়, তখন নিজস্ব শেকড় সন্ধান করে আত্মতৃপ্তি খুঁজে ফেরে। বিশেষ করে নতুন প্রজন্মের কাছে নিজের সংস্কৃতিকে তুলে ধরার জন্য বড় মাধ্যম এ পহেলা বৈশাখ। আর সে লক্ষ্যেই পর্তুগালে নানা আয়োজনে উদযাপন করা হল বাংলা নববর্ষ।

দিনব্যাপী নানা অনুষ্ঠান আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে দিনটি। বিদেশের নানা মিশ্র সংস্কৃতির সঙ্গে বিশ্বের মাঝে বাঙালির সংস্কৃতি তুলে ধরাই আয়োজনের উদ্দেশ্য।

এ উপলক্ষে বাংলাদেশ দূতাবাস লিসবনের আয়োজনে লিসবনের বিখ্যাত ওরিয়েন্ত মিউজিয়াম (Museo do Oriente) এ ‘বাংলাদেশ উৎসব’ আয়োজন করা হয়েছে। এ উৎসবে অংশগ্রহণের জন্য পর্তুগালে বসবাসরত সব বাংলাদেশিদের সাদর আমন্ত্রণ জানিয়ে ছিল বাংলাদেশ দূতাবাস লিসবন।

অনুষ্ঠানে ছিল দেশীয় আমেজে। দেশি-বিদেশি অতিথিদের অভ্যর্থনা। এরপর ছিল মঙ্গল শোভাযাত্রা। ওরিয়েন্ত মিউজিয়ামের সামনে থেকে শুরু হয়ে এটি শেষ হয়েছে লিসবনের টাগুস নদীর তীরে। এরপর শিশু-কিশোরদের জন্য মঙ্গল শোভাযাত্রায় ব্যবহৃত মুখোশ বানানো প্রশিক্ষণ কর্মশালা ছিল। এছাড়া বাংলাদেশের চিত্রকর্ম ও পোশাক প্রদর্শনী রঙের উদ্বোধন করা হয়। এরপর বেইজিং হলে বাংলাদেশি সঙ্গীতের ওপর কর্মশালা। বিকাল বেলা ছিল বাংলাদেশি লোকসংগীত, বাউল ও সুফি সংগীত পরিবেশন শেষে নৃত্য এবং বাঙালি ঐতিহ্যবাহী পোশাক প্রদর্শনী।

দূরের আটলান্টিক পাড়ের দেশ পর্তুগালে বসবাসরত বাঙালি মেয়েদের রঙের শাড়ি, কপালে লাল টিপ, হাতে চুড়ি কিংবা ছেলেদের রঙিন পাঞ্জাবি আলোকিত করে তুলেছিল লিসবনের চারপাশ। বাঙালির রঙিন উৎসবের কাছে হার মেনেছে প্রকৃতি। ঢাকার রমনার উৎসবের মতো না হলেও প্রবাসী বাঙালিরা সেজেগুজে, বিশেষ করে নারীর পরনে শাড়ি আর ছেলেদের পরনে পাঞ্জাবি মনে করিয়ে দিয়েছে আমরা বাঙালি ছিলাম, আছি... থাকব।

নাঈম হাসান পাভেল, লিসবন পর্তুগাল থেকে

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.