ফ্রান্স প্রবাসীর সাফল্য

প্রকাশ : ১১ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক   

পেশায় তিনি একজন আইটি বিশেষজ্ঞ। তরুণ উদ্যোমী এই যুবকের সঙ্গে কথার ফাঁকে বেরিয়ে এসেছে সাফল্যের নানা গল্প গাথা। স্বপ্নে বিভোর হয়েই পাড়ি দিয়েছেন স্বপ্নের দেশ ফ্রান্সে। শুরুতে সবার মতোই কষ্ট করেছেন, বাইরের জগৎটা কতটা নির্মম দেখেছেন, শিখেছেন কিভাবে জীবনকে বদলে ফেলা যায়। নানা চড়াই উৎরাই পেরিয়ে আজ তিনি অন্য যুবকদের জন্য অনুকরণীয়। রুহুল আমিন বলেন, দেশে কখনও নিজের কাপড়গুলো ভালো করে গোছাইনি। পড়াশোনার ফাঁকে অন্য কোনো কাজ শেখার আগ্রহও ছিল না কিন্তু কম্পিউটারের প্রতি দুর্বলতা ছিল। তাই বাবার কাছ থেকে পরীক্ষায় ভালো রেজাল্ট করার পর একটি কম্পিউটার উপহার পাই। নিজে নিজে খুঁটিনাটি দেখতাম শিখতাম।

যেটুকু জানতাম ওটা যে প্রবাস জীবনে আমার সাফল্যের চাবিকাঠি হবে জানা ছিল না। তবে ভালো লাগছে এই ভেবে যে, প্রবাসে নানা ধরনের অড জব করতে হয়, কিন্তু আমাকে ঐদিকে যেতে হয়নি। মোবাইল কম্পিউটার অনেকটা সহজলভ্য হওয়ায় এর চাহিদা যেমন বাড়ছে তেমনি এর গুরুত্বের ফলে এই সেক্টরে কর্ম সংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হচ্ছে এবং এর কদর অনেক। প্রায় অনেক বছর কাজ করার পর আমি একটি দোকান নেই। এর রেজাল্ট অনেক ভালো। ওই দোকানের আয় থেকেই পাশে আরও একটি দোকান নেই। আমি মনে করি, যে কোনো কাজে মনোযোগ থাকলে সাফল্য আসবেই। আমি দীর্ঘ বছর ধরে লেগে আছি তাই ভালো ফল এসেছে।

ফয়সাল আহাম্মেদ দ্বীপ, ফ্রান্স থেকে