বিপিএল-এর রাশিফল

  মুহা. তাজুল ইসলাম ২০ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

চিটাগং ভাইকিংস

টসে হারলে অন্য দলের অধিনায়কের সিদ্ধান্ত অনুসারে ব্যাটিং বা বোলিংয়ে নামতে হবে। দলের বোলাররা আবেদন করলে আম্পায়ার সব সময় আউট নাও দিতে পারেন। একাদশে জাতীয় দলের বর্তমান এবং সাবেক দু’ধরনের ক্রিকেটারই থাকবে। মুশফিকরা বড় রান তাড়া করে জিততে না পারলে হারতে হবে। শনির বলয়ের প্রভাব থাকায় ব্যাটসম্যানরা বল খোঁচা মারার ব্যাপারে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

রংপুর রাইডার্স

মাশরাফি প্রতিদিন টসে নাও জিততে পারেন। দলের প্রতিটি খেলায় অনেকগুলো বাউন্ডারির পাশাপাশি ওভার বাউন্ডারিও হতে পারে। ব্যাটসম্যানরা কম রান করলে দল হারতে পারে। ক্রিস গেইল এবং এবি ডি ভিলিয়ার্স ছয় মারলে সেগুলো বোলারদের মাথার ওপর দিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। শুক্রের প্রভাবে ক্যাচ আউটের ব্যাপারে সতর্কতা অবলম্বন বাঞ্ছনীয়।

ঢাকা ডায়নামাইটস

সাকিব আল হাসান রান করার পাশাপাশি বেশ কিছু উইকেটও পেতে পারেন। সুনীল নারায়ণের বল মাঝে মধ্যে টার্ন করতে পারে। বোলাররা কখনও কখনও নো বল করতে পারেন। ব্যাটসম্যানদের মাঝে ভুল বোঝাবুঝি হলে রান আউটের প্রবল সম্ভাবনা আছে। বৃহস্পতির প্রভাবে মিস ফিল্ডিংয়ের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।

সিলেট সিক্সার্স

দলের অধিনায়ক প্রতিটি ম্যাচে অবশ্যই টসে নামবেন। স্কোয়াডে দেশি খেলোয়াড়ের পাশাপাশি বিদেশি খেলোয়াড়ও থাকবে। পেসারদের পাশাপাশি স্পিনাররাও উইকেট পেতে পারেন। তাসকিনের কোনো কোনো বল জোরে হতে পারে। কিপারের পাশ দিয়ে কখনও কখনও বল গড়িয়ে চার হতে পারে। মঙ্গলের আকর্ষণে স্ট্যাম্পিংয়ের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স

প্রতিটি ম্যাচে একজন অধিনায়ক এবং দু’জন ওপেনার থাকবেন। ফিল্ডিংয়ের সময় আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে দলের অধিনায়ক রিভিউ নিতে পারেন। তামিম ইকবাল ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি ফিল্ডিংও করবেন। শহীদ আফ্রিদি কখনও কখনও গুগলি বল করে এলবি বা বোল্ড করতে পারেন। বুধের প্রভাবে নো-বলের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।

খুলনা টাইটান্স

মাহমুদুল্লাহ ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি মাঝে মধ্যে বোলিংয়ে আসতে পারেন। বিদেশি খেলোয়াড়দের পাশাপাশি দেশি খেলোয়াড় কখনো ভালো করে বসতে পারে। মালিঙ্গার স্ট্যাম্পের বল মিস করলে ব্যাটসম্যান এলবিডাব্লিউ বা বোল্ড হয়ে যাওয়ার প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে। চন্দ্রের প্রভাবে ওয়াইড বল দেয়ার ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।

রাজশাহী কিংস

টসে জিতলে দলের অধিনায়ক ব্যাটিং না নিলে ফিল্ডিং নেবেন। প্রতিটি ম্যাচেই স্কোয়াডে ডানহাতি খেলোয়াড়ের পাশাপাশি বাঁহাতি খেলোয়াড় থাকতে পারেন। পেসাররা কখনও দুই-একটা বাউন্সার দিয়ে বসতে পারেন। মুস্তাফিজ কাটার করলে ব্যাটসম্যানদের খেলতে সমস্যা হতে পারে। শনির প্রভাবে ব্যাটসম্যানদের ডট বলের ব্যাপারে সতর্ক

থাকতে হবে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×