ভিনদেশি মজার গল্প

লোকের ওপার হাঁটা

  আশরাফুল আলম পিনটু ১০ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

এক ছেলে তার ১৮তম জন্মদিন উদযাপন করছিল। আর এ দিনে তার বাবা যা করেছিলেন...

প্যাডি নামের এক ছেলে। বহুদিন থেকে একটা গল্প শুনে আসছে। খুবই অদ্ভুত গল্প। গল্পটা তার পারিবারিক এক ঐতিহ্য। শুনে খুবই চমকিত প্যাডি। গল্পটা এরকম- তার বাবা ১৮তম জন্মদিনে লেকের পানির ওপর দিয়ে হেঁটেছিলেন। তার দাদা, এমনকি দাদার বাবাও পানির ওপর দিয়ে হেঁটেছিলেন তাদের ১৮তম জন্মদিনে। অর্থ্যাৎ তারা সবাই তাদের ১৮তম জন্মদিনে পানির ওপর হাঁটতে সক্ষম হয়েছিলেন। বিশেষ সেই দিনে তারা প্রত্যেকেই লেকের ওপর দিয়ে হেঁটে ওপাশের পানশালায় গিয়েছিলেন। আর সেই দিনটিই ছিল তাদের বৈধভাবে মদ খাওয়ার প্রথম দিন।

আজ প্যাডির ১৮তম জন্মদিন। আনন্দ-উচ্ছ্বাসে খুবই উত্তেজিত সে। বাপ-দাদার মতো আজ পানির ওপর হাঁটতে পারবে সে! মদ খাওয়ার বৈধতা পাবে!

একটা নৌকায় বন্ধু মাইক নিয়ে প্যাডি গেল লেকের মাঝখানে। তারপর নৌকা থেকে পা বাড়াল পানির দিকে। পানির ওপর হাঁটার চেষ্টা করল। কিন্তু পারল না। ডুবে যেতে লাগল। ভাগ্যিস বন্ধু মাইক ছিল! সঙ্গে সঙ্গে সে প্যাডিকে টেনে তুলল নৌকায়। বেঁচে গেল সে।

কেন এমন হল? হতবিহ্বল প্যাডি। খুব রাগ হল তার। বিষয়টা জানতে দাদির কাছে গেল।

‘দাদি, আজ আমার ১৮তম জন্মদিন। তাহলে আমি কেন বাবা কিংবা দাদা আর দাদার বাবার মতো লেকের ওপর হাঁটতে পারলাম না?’ প্যাডি জানতে চাইল দাদির কাছে।

দাদি গভীরভাবে প্যাডির অস্থির নীল চোখের দিকে তাকালেন। তারপর হেসে বললেন, ‘তুই লেকের ওপর হাঁটতে পারিসনি, কারণ তোর বাবা, তোর দাদা আর দাদার বাবা সবাই জন্মেছেন ডিসেম্বরে। ওই সময় প্রচণ্ড ঠাণ্ডায় লেকের পানি জমাট বেঁধে যায়। তারা তাই লেকের ওপর হাঁটতে পেরেছে। কিন্তু তুই জন্মেছিস আগস্টে। এখন তো গরমকাল। পানি জমাট বাঁধার সময় নয়। হাঁটবি কী করে? তুই কী বোকারে!’

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×