সংরক্ষিত পাঠক আসন

পাত্র নির্বাচন

  পাভেল হোসাইন ইমরান ১৭ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রহমান সাহেব ইন্টারনেট ঘাঁটাঘাঁটি করে শেষমেষ একজন স্বনামধন্য ঘটকের সঙ্গে বৈঠকে বসার সিদ্ধান্ত নিলেন। এবার যেভাবেই হোক রহমান সাহেব তার মেয়েকে একজন ভালো ছেলের সঙ্গে বিয়ে দিয়েই ছাড়বেন।

ঘটক সাহেব নামকরা। তিনি শুধু ঘটক না, তিনি একজন ব্র্যান্ড। এ পর্যন্ত শ’খানেক বিয়ে করিয়েছেন। সাধারণ জনগণ থেকে শুরু করে গণমাধ্যমের সেলিব্রেটিরাও রয়েছেন সেই তালিকায়। সে সব বিয়ের তথ্য থেকে শুরু করে ছবি পর্যন্ত- সব ঘটক সাহেবের ব্যক্তিগত ফেসবুক পেইজ, ইন্সটাগ্রাম, টুইটার এমনকি ইউটিউবেও আপলোড করে রাখা হয়েছে।

ঘটক বললেন, “জি স্যার, আপনার সেবায় সর্বাত্মক নিয়োজিত আমি এবং আমার ‘বিয়ে করাকরি’ প্রতিষ্ঠান।”

‘দেখুন আমার সর্বাত্মক লাগবে না। শুধু একবার মেয়ের বিয়েটা দিতে পারলেই বাঁচি।’

‘বুঝেছি স্যার। আপনার মাথায় ভারি টেনশন।’

‘মেয়ে বড় হয়েছে। টেনশন তো ভারি হবেই। তো বলুন আপনার সংগ্রহে আমার মেয়ের জন্য কোনো কোনো যোগ্য পাত্র রয়েছে?’

‘স্যার, আগে তো আপনার মেয়ের বায়োডাটা আমাকে দেখতে হবে।’

‘এই নিন আমার মেয়ের বায়োডাটা।’

ঘটক বায়োডাটায় খানিকক্ষণ চোখ বুলালো। এরপর টেবিলের নিচে থেকে বেশ কয়েকটা ফাইল বের করে রহমান সাহেবের সামনে মেলে ধরল, ‘এই ছেলেটাকে দেখুন। নাম্বার ওয়ান ফার্স্ট বয়। ইঞ্জিনিয়ার।’

‘চলবে না। পরেরটা দেখান।’

‘এই ছেলে তো ডাক্তার। শুরুতেই ঢাকা মেডিকেলে জয়েন করেছে।’

‘না এটাও না। বদলান।’

‘এই ছেলেকে দেখুন। এসআই। সামনের দিকে আরও বড় পোস্টে যাবে।’

‘পোস্ট দিয়ে কী হবে ভাই। ভালো কিছু দেখান।’

ঘটক এবার মহাবিরক্ত! একদম তলানি থেকে একটা ফাইল বের করে আনলেন।

‘স্যার, এর চেয়ে ভালো আর নাই। ছেলে পাইলট। কাতার এয়ারলাইন্সের বিমান চালায়।’

‘ধুরু মিয়া! আপনারে ঘটকালীর লাইসেন্স কে দিছে? কী সব ছাতা-মাথা দেখান? আমার মেয়ের স্ট্যাটাস আপনি দেখেছেন?’

‘স্যার বায়োডাটা দেখেছি।’

‘তা দেখেও বুঝলেন না কার সঙ্গে আমার মেয়ের যায়! কী সব ড্রাইভারের ছবি দেখাচ্ছেন। আমি আমার মেয়েকে কোনো দুঃখে প্লেনের ড্রাইভারের সঙ্গে বিয়ে দেব! দিতে হলে বিয়ে দেব প্লেনের মালিকের সঙ্গে!’ শুনে মাথা ঘুরে পড়ে জ্ঞান হারালো ঘটক।

সরকারি তিতুমীর কলেজ, ঢাকা।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×