আষাঢ়ে আলাপ

কখনও কখনও তেল আর আষাঢ়ের বৃষ্টির জল মিলেমিশে একাকার হয়ে ফুটে ওঠে আমাদের দৈনন্দিন জীবনের নানা আলাপে। লিখেছেন -

  সোহানুর রহমান অনন্ত, এঁকেছেন : শফিক হীরা ১৪ জুলাই ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বাড়িয়ে বলতে গিয়ে যখন বেশি বলে ফেলি

ভাইয়া দেখছেন, ভাবি শাড়িটা পরাতে তার বয়স যে চল্লিশ সেটা বোঝাই যাচ্ছে না! মনে হয় সতেরো-আঠারো বছরের মেয়ে! কিন্তু উনার চোখ তিনটা লাগছে কেন?

ভাবি, আপনার পাওয়ার চশমাটা আগে পরেন, তখন চোখ আর বয়স দুটোই ঠিক দেখবেন। আপনার মতো খালি চোখে দেখে আমিও প্রতারিত হইছি!

বৃষ্টিতে যখন রাস্তাগুলো নদী হয়ে যায়

খাইছেরে, বৃষ্টির পর তো রাস্তা নদী হয়ে গেছে! আমার তো ভয়ে হাঁটু কাঁপতাছে! পানির মইধ্যে হাঁটতে গিয়া যদি খোলা ড্রেনের মধ্যে পড়ি!

আরে বেটা এ জন্যই তো এই লোকরে ভাড়া নিছি! এলাকার কোন রাস্তায় কয়টা ম্যানহোল আছে সব চোখ বন্ধ কইরা বইলা দিতে পারে! তার লগে গেলে কোনো রিস্ক নাই।

পাশের বাড়ির ভাবি মানেই সংবাদের কারখানা

ভাই, আপনি দেখছি এলাকার সবার গোপন খবর জানেন। কিন্তু আপনাকে তো এলাকায় তেমন একটা দেখিই না! কেমনে কী?

এইটাই তো বুদ্ধির খেইল! পাশের বাড়ির ভাবিকে, আমার বউরে দিয়ে একদিন চায়ের দাওয়াত করি। ব্যস, এলাকায় পাঁচ বছর আগে কার কী ঘটছে সেটাও পুনঃপ্রচার হিসেবে জেনে যাই।

লোকাল বাসে আলাপের শব্দদূষণ

ওই মিয়া, আপনি এমন ভুভুজেলা বাজিয়ে শব্দদূষণ করতাছেন কেন? কানের বলটিউব তো নষ্ট হয়ে গেল!

আপনারা যে বাসে উঠে আজাইরা আলাপ আর ঝগড়া করে পাশের যাত্রীদের ডিস্টার্ব করেন তখন শব্দদূষণ হয় না? দরকার হইলে কামলা নিয়ে ভুভুজেলা বাজামু! তবুও আপনাদের শিক্ষা না দিয়ে থামুম না।

এই সিজনে মশা বেশি তাই বিকল্প বুদ্ধি

বুঝলাম না, চোর এমন অজ্ঞান হয়ে পড়ে আছে কেন? হাত পায়ের ত্যাড়াব্যাঁকা স্টাইল দেখে তো মনে হইতাছে ভয়ংকর কিছু দেখছে!

আসলে মশার ভয়ে পুরো ফ্যামিলি রাতে ভূতের পোশাক পরে ঘুমাই! আমার বউ ওয়াশরুমে যাওয়ার জন্য উঠছিল। চোর বেটা দেইখা ভূত মনে করে ভয়ে অজ্ঞান হয়ে গেছে!

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×