একটি সমস্যার সহজ সমাধান

  মুহা. তাজুল ইসলাম ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ছেলে : বাবা, এখন তো ডেঙ্গুর সিজন। টেনশনে আছি। মশা কামড়িয়ে একদম গা ফুলিয়ে দিয়েছে।

বাবা : তাহলে গায়ে মলম লাগা। তোকে না একটা মলম দিয়েছিলাম, সুশীল কবিরাজের দেয়া?

ছেলে : মলম লাগিয়ে দেয়ার মতো কেউ নেই।

বাবা : দুঃখজনক। একটা কাজ কর, মশারি টানা।

ছেলে : মশারি টানাতে কষ্ট হয়, তাছাড়া মশারি টানাতে গেলে গরম লাগে!

বাবা : ফ্যান চালা। তাহলে আর গরম লাগবে না।

ছেলে : আজ সারা দিন তো কারেন্টই নেই। খাম্বায় নাকি বাজ পড়েছে।

বাবা : তাহলে আর কী করবি! মশার কয়েল ধরা।

ছেলে : কয়েলে মাত্রাতিরিক্ত রাসায়নিক পদার্থ আছে। এটা সিগারেটের চেয়েও একশ’ গুণ ক্ষতিকারক। তুমি কি চাও যে আমি নিজের এমন ক্ষতি করি?

বাবা : না, তা কখনও চাই না। তাহলে বারান্দায় গিয়ে শুয়ে পড়। জানালা দিয়ে বাতাস আসবে।

ছেলে : ওখানে একা একা যাওয়া যাবে না। ভয় লাগে। যদি জিন-ভূত ভর করে! বারান্দার পাশেই আবার তাল গাছ।

বাবা : তাহলে পাখা দিয়ে বাতাস কর।

ছেলে : ঘরে কোনো পাখা নেই। থাকলেও করতে পারতাম না, হাতে ব্যথা।

বাবা : তাহলে আর কী করবি? মশার কামড় খা। এছাড়া তো কোনো সমাধান দেখছি না!

ছেলে : সমাধান অবশ্য একটা আছে। আসল কথাটা তাহলে বলেই ফেলি। তুমি সম্ভবত খেয়াল করোনি যে আমি অনেক বড় হয়েছি। যদি আমাকে বিয়েটা দিয়ে দিতে, সমস্যার সহজ সমাধান হয়ে যেত। এই ধরো মলম লাগানোর জন্য কাউকে খুঁজতে হতো না, মশারি টানানোর কথা চিন্তা করতে হতো না, বারান্দায় গেলেও ভয় করত না। আবার ধরো পাখা দিয়ে বাতাস করারও একজন মানুষ থাকত।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×