গোপালের বউয়ের চোর ধরা

  যুগান্তর ডেস্ক    ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

চোরেরও আক্কেল নেই! গোপালের ঘরে ঢুকতেও তার অন্তর কাঁপল না। চোর ঘরে ঢুকতে গিয়ে ছাদের টালি খুলতে লাগল। গোপাল তখনও জেগে ছিল। এমন সময় বাড়িতে ডাকাতের দল হা-রে-রে করে ঢুকে পড়ল। চোর ডাকাত একই সময় একই বাড়িতে।

গোপাল তাড়াতাড়ি টাকা-পয়সা-গয়নাগাটি নিয়ে খিড়কির দরজা দিয়ে পালিয়ে গেল। চোর কিন্তু পালাতে পারল না। সে টালির চালেই বসে রইল।

দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকেই গোপালের বউকে সামনে পেয়ে তাকে ডাকাতের সর্দার বলল, ‘তাড়াতাড়ি সিন্দুকের চাবি দে, না হলে রক্ষা নেই।’

গোপালের বউ গোপালের মতোই বুদ্ধিতে পাকা। সাহসীও বটে। চোরকে সে আগেই দেখেছে। সে বলল, ‘দেখতে পাচ্ছ না, বাড়ির কর্তা ভয়ে সিন্দুকের চাবি নিয়ে চালের ওপর উঠে বসে আছে?’

ডাকাতরা সেই চোরকেই বাড়ির কর্তা ভেবে তাকে টেনে নামিয়ে এনে বলল, ‘তাড়াতাড়ি সিন্দুকের চাবি বের কর, না হলে দেখছিস তো এই রামদা?’ এই বলে ডাকাতরা চোরকে পেটাতে লাগল।

এর মধ্যেই গ্রামবাসী লাঠিসোটা দিয়ে ডাকাতদের তাড়া করল। ডাকাতরা চলে গেলে মৃত্যুপথযাত্রী চোরকেই আবার পেটাতে গেলে গোপালের বউ তাদের থামিয়ে দিয়ে বলল, ‘ওকে আর মেরে কাজ নেই। ওর জন্যেই জানমাল রক্ষা হল সবার।’ তারপর সব কাহিনী সবিস্তারে বললে গোপালের বউকেও সবাই ধন্য ধন্য করে উঠল।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×