দাওয়াইয়ের নাম হাসি
jugantor
দাওয়াইয়ের নাম হাসি

  গ্রন্থনা : উপমা ইসলাম  

২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

১ম ব্যক্তি : আমাদের চিকিৎসা বিজ্ঞান কতটা এগিয়েছে বলে মনে করেন?

২য় ব্যক্তি : চিকিৎসা বিজ্ঞান যতই এগিয়ে যাক, একটা জায়গায় কিন্তু ফেল!

১ম ব্যক্তি : কী সেটা?

২য় ব্যক্তি : স্কুলে যাওয়ার আগে বাচ্চাদের পেটব্যথা কমানোর ওষুধ তারা কখনো আবিষ্কার করতে পারবে না!

১ম বন্ধু : মাঝে মাঝে ইচ্ছা করে সবকিছু ছেড়েছুড়ে বনবাসে চলে যাই।

২য় বন্ধু : মানা করেছে কে? চলে যা!

১ম বন্ধু : আরে চলেই যেতাম। শুধু মোবাইল ফোনটা কোথায় চার্জ দেব সেটা ভেবে আর যাই না!

ছেলে : শুভ বাবা দিবস!

বাবা : ধন্যবাদ খোকা।

ছেলে : আজ এ উপলক্ষ্যে তোমাকে একটা গিফট দিতে চাই বাবা।

বাবা : তুই আমার চোখে জল এনে দিলি! কই, কী গিফট এনেছিস দেখি।

ছেলে : দরজার বাইরেই আছে। তুমি অনুমতি দিলে ভেতরে আসবে। তোমার বউমা! আমরা আজই পালিয়ে বিয়ে করেছি।

বাবা : এক্ষুনি আমার বাড়ি থেকে বের হ বেয়াদব ছেলে! আমি তোকে ত্যাজ্যপুত্র করলাম!

স্ত্রী : আচ্ছা, গেল কোরমা! তারপর?

স্বামী : তারপর আরেকটা বাসন ফেলে বলবে পোলাও পড়ে গেছে! তখন আমি বলব, ঠিক আছে তাহলে ডালটুকু অন্তত নিয়ে আসো। মেহমান তখন আর কিছু মনে করবে না।

দাওয়াইয়ের নাম হাসি

 গ্রন্থনা : উপমা ইসলাম 
২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

১ম ব্যক্তি : আমাদের চিকিৎসা বিজ্ঞান কতটা এগিয়েছে বলে মনে করেন?

২য় ব্যক্তি : চিকিৎসা বিজ্ঞান যতই এগিয়ে যাক, একটা জায়গায় কিন্তু ফেল!

১ম ব্যক্তি : কী সেটা?

২য় ব্যক্তি : স্কুলে যাওয়ার আগে বাচ্চাদের পেটব্যথা কমানোর ওষুধ তারা কখনো আবিষ্কার করতে পারবে না!

১ম বন্ধু : মাঝে মাঝে ইচ্ছা করে সবকিছু ছেড়েছুড়ে বনবাসে চলে যাই।

২য় বন্ধু : মানা করেছে কে? চলে যা!

১ম বন্ধু : আরে চলেই যেতাম। শুধু মোবাইল ফোনটা কোথায় চার্জ দেব সেটা ভেবে আর যাই না!

ছেলে : শুভ বাবা দিবস!

বাবা : ধন্যবাদ খোকা।

ছেলে : আজ এ উপলক্ষ্যে তোমাকে একটা গিফট দিতে চাই বাবা।

বাবা : তুই আমার চোখে জল এনে দিলি! কই, কী গিফট এনেছিস দেখি।

ছেলে : দরজার বাইরেই আছে। তুমি অনুমতি দিলে ভেতরে আসবে। তোমার বউমা! আমরা আজই পালিয়ে বিয়ে করেছি।

বাবা : এক্ষুনি আমার বাড়ি থেকে বের হ বেয়াদব ছেলে! আমি তোকে ত্যাজ্যপুত্র করলাম!

স্ত্রী : আচ্ছা, গেল কোরমা! তারপর?

স্বামী : তারপর আরেকটা বাসন ফেলে বলবে পোলাও পড়ে গেছে! তখন আমি বলব, ঠিক আছে তাহলে ডালটুকু অন্তত নিয়ে আসো। মেহমান তখন আর কিছু মনে করবে না।