হাসতে পয়সা লাগে না
jugantor
হাসতে পয়সা লাগে না

  গ্রন্থনা : রাফিয়া আক্তার  

১০ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নরেশ : শুনলাম কাল নাকি তোর স্কুলের রেজাল্ট দেবে। যদি ফেল করিস তবে আমাকে আর বাবা বলে ডাকবি না!

পরদিন ছেলে পরীক্ষার রেজাল্ট নিয়ে ঘরে ফিরতেই নরেশ তার ছেলের কাছে জানতে চাইল, ‘কী রে, তোর রেজাল্ট কেমন হলো?’

ছেলে জবাব দিল, ‘কী আর বলব নরেশদা...!’

*

মেয়ে : আমি মেয়ে বলে তরকারি কম দিয়েছ এটা ঠিক না মা। মেয়েদেরও ছেলেদের সমান খাবার দিতে হয়।

মা : কম দিইনি। তোর ভাগেরটাই দিয়েছি। ঘরে শাক-সবজি যা নিয়ে আসে তার অর্ধেকই তুই চুলে আর মুখে ঘষাঘষি করিস। তাই তোর ভাগে যা ছিল তা-ই দিয়েছি। চুপচাপ খেয়ে নে।

*

১ম বান্ধবী : কী রে, শুনলাম তোর নাকি তিনটা বয়ফ্রেন্ড! সত্যি নাকি?

২য় বান্ধবী : ঠিকই শুনেছিস। জিনিসপত্রের যা দাম, আমি চাই না একজনের উপর বেশি চাপ পড়ুক।

*

স্ত্রী : আমাদের বিয়ের এত বছর হয়ে গেল, কখনো তো বললে না আমি দেখতে সুন্দর, আমার ফিগার সুন্দর। অথচ তোমার বন্ধুরা ঠিকই বলে।

স্বামী : কে কে বলে বলো তো?

স্ত্রী : তোমার বন্ধু রনি ভাই, সাব্বির ভাই এই তো পরশু আমাকে দেখে কথাগুলো বলছিল বারবার।

স্বামী : বুঝতে পেরেছি। ওদের কথায় কান দিও না। ওরা দুজনই কথায় কথায় শুধু মিথ্যে বলে।

*

১ম বন্ধু : আচ্ছা, তুই কি গোসল-টোছল কিছু করিস না?

২য় বন্ধু : কেন বল তো?

১ম বন্ধু : তোর মাথার চুল দেখে তো মনে হচ্ছে মাথায় ঘাস গজিয়েছে!

২য় বন্ধু : তাই তো বলি, একটু আগে অনেকক্ষণ ধরে আমার সামনে একটা গরু দাঁড়িয়েছিল। এখন বুঝতে পারছি কেন এভাবে দাঁড়িয়েছিল!

হাসতে পয়সা লাগে না

 গ্রন্থনা : রাফিয়া আক্তার 
১০ অক্টোবর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নরেশ : শুনলাম কাল নাকি তোর স্কুলের রেজাল্ট দেবে। যদি ফেল করিস তবে আমাকে আর বাবা বলে ডাকবি না!

পরদিন ছেলে পরীক্ষার রেজাল্ট নিয়ে ঘরে ফিরতেই নরেশ তার ছেলের কাছে জানতে চাইল, ‘কী রে, তোর রেজাল্ট কেমন হলো?’

ছেলে জবাব দিল, ‘কী আর বলব নরেশদা...!’

*

মেয়ে : আমি মেয়ে বলে তরকারি কম দিয়েছ এটা ঠিক না মা। মেয়েদেরও ছেলেদের সমান খাবার দিতে হয়।

মা : কম দিইনি। তোর ভাগেরটাই দিয়েছি। ঘরে শাক-সবজি যা নিয়ে আসে তার অর্ধেকই তুই চুলে আর মুখে ঘষাঘষি করিস। তাই তোর ভাগে যা ছিল তা-ই দিয়েছি। চুপচাপ খেয়ে নে।

*

১ম বান্ধবী : কী রে, শুনলাম তোর নাকি তিনটা বয়ফ্রেন্ড! সত্যি নাকি?

২য় বান্ধবী : ঠিকই শুনেছিস। জিনিসপত্রের যা দাম, আমি চাই না একজনের উপর বেশি চাপ পড়ুক।

*

স্ত্রী : আমাদের বিয়ের এত বছর হয়ে গেল, কখনো তো বললে না আমি দেখতে সুন্দর, আমার ফিগার সুন্দর। অথচ তোমার বন্ধুরা ঠিকই বলে।

স্বামী : কে কে বলে বলো তো?

স্ত্রী : তোমার বন্ধু রনি ভাই, সাব্বির ভাই এই তো পরশু আমাকে দেখে কথাগুলো বলছিল বারবার।

স্বামী : বুঝতে পেরেছি। ওদের কথায় কান দিও না। ওরা দুজনই কথায় কথায় শুধু মিথ্যে বলে।

*

১ম বন্ধু : আচ্ছা, তুই কি গোসল-টোছল কিছু করিস না?

২য় বন্ধু : কেন বল তো?

১ম বন্ধু : তোর মাথার চুল দেখে তো মনে হচ্ছে মাথায় ঘাস গজিয়েছে!

২য় বন্ধু : তাই তো বলি, একটু আগে অনেকক্ষণ ধরে আমার সামনে একটা গরু দাঁড়িয়েছিল। এখন বুঝতে পারছি কেন এভাবে দাঁড়িয়েছিল!

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন