একগুচ্ছ কৌতুক
jugantor
একগুচ্ছ কৌতুক

  গ্রন্থনা : রাফিয়া আক্তার  

২২ মে ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মদ্যপানের অপকারিতা বোঝাতে একবার এক পাদ্রি একটি প্রদর্শনীর আয়োজন করলেন। প্রথমে এক গামলায় পানি আর আরেক গামলায় মদ রেখে গরুদের পান করতে দিলেন পাদ্রি। স্বভাবতই মদের গামলা না ছুঁয়ে পানির গামলার পানি পান করল গরুগুলো। এ দেখে পাদ্রি মাতালদের বললেন, ‘দখো, মদ কত খারাপ! গরু পর্যন্ত পান করে না।’

‘ওরা তো গরু, মদের মর্ম বুঝবে কী করে? সমঝদার মানুষ হইলে ঠিকই পানি ছেড়ে মদই খেত!’ পাল্টা মন্তব্য করল মাতালরা।

পাদ্রি এবার এক গামলায় পানি আর আরেক গামলায় মদ রেখে প্রথমে পানির গামলায় কিছু পোকা ছেড়ে দিলেন। পোকাগুলো উড়ে গেল মুহূর্তে। তারপর কিছু পোকা মদের গামলায় ছাড়লেন। কিন্তু সেগুলো স্পিরিটের কারণে মারা পড়ল।

এ দেখে মাতালরা বলল, ‘বলেছিলাম না! মদ পেটের জন্যও অনেক উপকারী! মদ খেলে পেটের ক্ষতিকর সব পোকা মরে যায়!’

*

তিন চাপাবাজ বন্ধু নিজেদের বীরত্বের গল্প করছে।

প্রথম বন্ধু : জানিস, সেদিন আমি এক বৈঠকে দশ কেজি মাংস আর একশটা ডিম খেয়ে ফেলেছি! অথচ আমার কিছুই হয়নি!

দ্বিতীয় বন্ধু : কিছুদিন আগেও আমি জেলে ছিলাম। জেলের তালা ভেঙে বেরিয়ে এসেছি গতকাল। পুলিশ আমার কিছুই করতে পারেনি!

তৃতীয় বন্ধু : তোরা গল্প কর, আমি আজ উঠি। বাড়ি ফিরে আবার পোষা বাঘটাকে খাবার দিতে হবে!

*

পাঁচ হচ্ছে রকিবের জীবনে লাকি নাম্বার। তার জীবনে এ পাঁচের একটি বিশেষ প্রভাব রয়েছে। সে জন্য রেসে সে পাঁচ নম্বর ঘোড়াটির ওপর বাজি ধরল। রেস শেষে তার বন্ধু জানতে চাইল, ‘নিশ্চয়ই তোর ঘোড়াটা দৌড়ে প্রথম হয়েছে?’

‘না রে, ঘোড়াটা পঞ্চম স্থান অধিকার করেছে!’ জবাব দিল রকিব।

একগুচ্ছ কৌতুক

 গ্রন্থনা : রাফিয়া আক্তার 
২২ মে ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মদ্যপানের অপকারিতা বোঝাতে একবার এক পাদ্রি একটি প্রদর্শনীর আয়োজন করলেন। প্রথমে এক গামলায় পানি আর আরেক গামলায় মদ রেখে গরুদের পান করতে দিলেন পাদ্রি। স্বভাবতই মদের গামলা না ছুঁয়ে পানির গামলার পানি পান করল গরুগুলো। এ দেখে পাদ্রি মাতালদের বললেন, ‘দখো, মদ কত খারাপ! গরু পর্যন্ত পান করে না।’

‘ওরা তো গরু, মদের মর্ম বুঝবে কী করে? সমঝদার মানুষ হইলে ঠিকই পানি ছেড়ে মদই খেত!’ পাল্টা মন্তব্য করল মাতালরা।

পাদ্রি এবার এক গামলায় পানি আর আরেক গামলায় মদ রেখে প্রথমে পানির গামলায় কিছু পোকা ছেড়ে দিলেন। পোকাগুলো উড়ে গেল মুহূর্তে। তারপর কিছু পোকা মদের গামলায় ছাড়লেন। কিন্তু সেগুলো স্পিরিটের কারণে মারা পড়ল।

এ দেখে মাতালরা বলল, ‘বলেছিলাম না! মদ পেটের জন্যও অনেক উপকারী! মদ খেলে পেটের ক্ষতিকর সব পোকা মরে যায়!’

*

তিন চাপাবাজ বন্ধু নিজেদের বীরত্বের গল্প করছে।

প্রথম বন্ধু : জানিস, সেদিন আমি এক বৈঠকে দশ কেজি মাংস আর একশটা ডিম খেয়ে ফেলেছি! অথচ আমার কিছুই হয়নি!

দ্বিতীয় বন্ধু : কিছুদিন আগেও আমি জেলে ছিলাম। জেলের তালা ভেঙে বেরিয়ে এসেছি গতকাল। পুলিশ আমার কিছুই করতে পারেনি!

তৃতীয় বন্ধু : তোরা গল্প কর, আমি আজ উঠি। বাড়ি ফিরে আবার পোষা বাঘটাকে খাবার দিতে হবে!

*

পাঁচ হচ্ছে রকিবের জীবনে লাকি নাম্বার। তার জীবনে এ পাঁচের একটি বিশেষ প্রভাব রয়েছে। সে জন্য রেসে সে পাঁচ নম্বর ঘোড়াটির ওপর বাজি ধরল। রেস শেষে তার বন্ধু জানতে চাইল, ‘নিশ্চয়ই তোর ঘোড়াটা দৌড়ে প্রথম হয়েছে?’

‘না রে, ঘোড়াটা পঞ্চম স্থান অধিকার করেছে!’ জবাব দিল রকিব।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন