দুষ্ট কাকু
jugantor
মজার পড়া পাঠক ছড়া
দুষ্ট কাকু

  শাফায়েত হোসেন রুবেল  

২১ মে ২০২৩, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আমি তখন দুধের বাচ্চা, চড়ি মায়ের কোলে,

সবাই আমায় আদর করে, কোলে-কাঁধে তোলে।

কিন্তু একটা দুষ্ট কাকু ছিল যা শয়তান!

একা পেলেই চিমটি দিত, মলে দিত কান।

কাঁদলে আমি মনে মনে হতো সে খুব খুশি,

মনে চাইত দেই পাজিটার নাক বরাবর ঘুষি!

কিন্তু আমি ভীষণ পিচ্চি, অতটা বল নেই,

কথা বলতেও শিখিনি যে মাকে নালিশ দেই।

বয়স ক’মাস বাড়তেই আমার দাঁত গজাল মুখে,

কাকুর প্রতি ক্ষোভের আগুন জ্বলছে তখন বুকে।

নিজেকে কী ভাবে শালা? আমিও কি কম?

দাঁড়া ব্যাটা! এবার আমি হচ্ছি তোরই যম!

ভাবতে ভাবতে ঘরের দ্বারে পেলাম কাকুর দেখা,

ব্যাটার মুখে দুষ্টু-হাসি, ঘরে আমি একা।

চুপিচুপি ঢুকে ঘরে এলো আমার কাছে,

কী জানি আজ পাজিটার কী বদ মতলব আছে?

যেইনা ব্যাটা গেল আমার গালে চিমটি দিতে,

অমনি হাতে কামড় দিলাম সবটুকু শক্তিতে।

চিৎকার করে উঠল ব্যাটা দিয়ে একটা লাফ,

বেহুঁশ হয়ে পড়ল ফ্লোরে বলেই বাপরে বাপ!

লোকজন তাকে হাসপাতালে নিল সঙ্গে সঙ্গে,

তিনটি সেলাই লাগল দুষ্টু কাকুটার ডান হাতে।

তারপর কাকু তিন দিন ছিল হাসপাতালের শয্যায়,

আমাকে আর কক্ষনো সে ব্যথা দেয়নি লজ্জায়।

কাদিরদী কলেজ, বোয়ালমারী, ফরিদপুর।

মজার পড়া পাঠক ছড়া

দুষ্ট কাকু

 শাফায়েত হোসেন রুবেল 
২১ মে ২০২৩, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আমি তখন দুধের বাচ্চা, চড়ি মায়ের কোলে,

সবাই আমায় আদর করে, কোলে-কাঁধে তোলে।

কিন্তু একটা দুষ্ট কাকু ছিল যা শয়তান!

একা পেলেই চিমটি দিত, মলে দিত কান।

কাঁদলে আমি মনে মনে হতো সে খুব খুশি,

মনে চাইত দেই পাজিটার নাক বরাবর ঘুষি!

কিন্তু আমি ভীষণ পিচ্চি, অতটা বল নেই,

কথা বলতেও শিখিনি যে মাকে নালিশ দেই।

বয়স ক’মাস বাড়তেই আমার দাঁত গজাল মুখে,

কাকুর প্রতি ক্ষোভের আগুন জ্বলছে তখন বুকে।

নিজেকে কী ভাবে শালা? আমিও কি কম?

দাঁড়া ব্যাটা! এবার আমি হচ্ছি তোরই যম!

ভাবতে ভাবতে ঘরের দ্বারে পেলাম কাকুর দেখা,

ব্যাটার মুখে দুষ্টু-হাসি, ঘরে আমি একা।

চুপিচুপি ঢুকে ঘরে এলো আমার কাছে,

কী জানি আজ পাজিটার কী বদ মতলব আছে?

যেইনা ব্যাটা গেল আমার গালে চিমটি দিতে,

অমনি হাতে কামড় দিলাম সবটুকু শক্তিতে।

চিৎকার করে উঠল ব্যাটা দিয়ে একটা লাফ,

বেহুঁশ হয়ে পড়ল ফ্লোরে বলেই বাপরে বাপ!

লোকজন তাকে হাসপাতালে নিল সঙ্গে সঙ্গে,

তিনটি সেলাই লাগল দুষ্টু কাকুটার ডান হাতে।

তারপর কাকু তিন দিন ছিল হাসপাতালের শয্যায়,

আমাকে আর কক্ষনো সে ব্যথা দেয়নি লজ্জায়।

কাদিরদী কলেজ, বোয়ালমারী, ফরিদপুর।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন