ধর্ম ও নৈতিকতা শেখান সন্তানকে

  আহনাফ আবদুল কাদির ১১ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

দুনিয়া ব্যস্ত মুঠোফোন আর ইন্টারনেটের রঙিন ছবিতে। একই ছাদের নিচে বসবাস করেও কারও সঙ্গে কারও কথা নেই, দেখা নেই, ভাব বিনিময় নেই। তাই পারিবারিক বন্ধনও নেই আগের মতো। কারও সম্পর্কে কেউ খবর রাখে না। স্বামী-স্ত্রী, ছেলেমেয়ে দিনশেষে কে কোথা থেকে ফিরছে কেউ জানে না। কে কোথায় খাচ্ছে, কার সঙ্গে মিশছে, কোথায় সময় কাটাচ্ছে তার খবরও জানা নেই কারও কাছে। প্রত্যেকেই নিজের মতো করে মুঠোফোনে ব্যস্ত। এই বিচ্ছিন্নতার যুগে সবাই জড়িয়ে পড়ছে পারিবারিক কলহে। বখে যাচ্ছে সন্তানরা। ইহকাল ও পরকাল দুটিই নষ্ট করছে। পবিত্র কোরআন আমাদের সতর্ক করছে এমন পারিবারিক দুর্গতি ও ভাঙন থেকে। পারিবারিক সম্পর্ক জোরালো ও দৃঢ় করে পরিবারের অন্য সদস্যদের বাঁচাতে হবে দুনিয়া ও আখেরাতের দগ্ধতার সেই ভয়াবহতা থেকে। কোরআনের ভাষায়, ‘হে বিশ্বাসীরা, তোমরা নিজেরা জাহান্নামের ভয়াবহতা থেকে বাঁচ এবং নিজেদের পরিবারকে জাহান্নামের ভয়াবহতা থেকে বাঁচাও’ (সূরা তাহরিম : ৬)। রাসূল (সা.) বলেছেন, ‘তোমরা তোমাদের পরিবারের কাছে ফিরে যাও। তাদের ধর্মজ্ঞান শিক্ষা দাও। আর তাদের বল, লব্ধজ্ঞান অনুযায়ী কাজ করতে’ (সহিহ বুখারি)। আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা.) নবী (সা.) থেকে বর্ণনা করেছেন; তিনি বলেছেন, ‘তোমরা তোমাদের সন্তানদের সঙ্গে কোমল ব্যবহার কর। তাদের উত্তম শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ প্রদান কর’ (ইবনে মাজাহ)। আরও বলেছেন, ‘তোমার ওপর তোমার প্রভুর, তোমার শরীরের, তোমার সন্তানের অধিকার রয়েছে। অতএব, অধিকারপ্রাপ্তদের অধিকার প্রদান কর’ (সহিহ বুখারি)। সন্তানদের ধর্ম ও নীতি নৈতিকতার জ্ঞান শিক্ষা দেয়া পিতা-মাতার অন্যতম দায়িত্ব। পারিবারিক শিক্ষা সন্তানদের সুস্থভাবে গড়ে উঠতে সাহায্য করে। আমরা আজ নিজেরাই অসচেতন হয়ে বেছে নিয়েছি নীতিহীন জীবন। আর আমাদের সন্তানদেরও ছেড়ে দিচ্ছি বল্গাহীন জীবনের দিকে, অনিশ্চিত ভবিষ্যতের পথে। যারা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন গ্যাং গ্রুপের সঙ্গে যুক্ত হয়ে, রাজনৈতিক আশ্রয়ে থাকা তথাকথিত বড় ভাইদের সঙ্গ পেয়ে নিত্যনতুন অন্যায়, অপকর্মে ও মাদকতায় বড় হচ্ছে। এভাবেই ছন্নছাড়া হচ্ছে আমাদের ভবিষ্যৎ।

ভবিষ্যৎকে সুন্দর করতে ও বাঁচাতে আমাদেরই এগিয়ে আসতে হবে। ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষার সমন্বয়ে একটি আধুনিক শিক্ষা ব্যবস্থা প্রণয়ন করা আজ জরুরি হয়ে পড়েছে।

লেখক : শিক্ষক ও কলামিস্ট

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×