মহানবীর উপদেশ
jugantor
হজরত আলী (রা.)-এর উদ্দেশে
মহানবীর উপদেশ

   

১৮ জুন ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

১. হে আলী! মুসা (আ.)-এর কাছে হারুন (আ.)-এর মর্যাদা যেমন আমার কাছে তোমার মর্যাদা তেমন। তবে আমার পর আর কোনো নবী আসবেন না। আমি তোমাকে বিশেষ কিছু নির্দেশ দিচ্ছি যদি তুমি তা পালন কর তাহলে তুমি বেঁচে থাকবে সুখী ও সৌভাগ্যবান হয়ে আর তোমার মৃত্যু হবে শহিদ অবস্থায়। কেয়ামতের দিন তোমার প্রতিপালক তোমাকে পুনরুত্থিত করবেন ফকিহ ও আলেম হিসাবে।

২. আলী! মুমিনের চিহ্ন তিনটি. ক. সালাত আদায় করা। খ. রাত জেগে ইবাদত করা। গ. দান খয়রাত করা।

৩. আলী! মুনাফিকের চিহ্ন তিনটি : ক. সে মানুষের সামনে একাগ্রে সালাত আদায় করে। খ. একা সালাত আদায় করলে দ্রুততার সঙ্গে অন্য মনস্ক হয়ে সালাত আদায় করে। গ. সমাগমে আল্লাহকে স্মরণ করে, কিন্তু নির্জনে ভুলে যায়।

৪. আলী! জালেমের আলামত তিনটি : ক. সে শক্তি দিয়ে দুর্বলের ওপর কর্তৃত্ব খাটাবে। খ. মানুষের ধন-সম্পদ জোর করে ছিনিয়ে নেবে। গ. খাবার-দাবারে হালাল-হারামের ধার ধারবে না।

৫. আলী! হিংসুকের চিহ্ন তিনটি : ক. সে সামনে চাটুকারি করে। খ. পেছনে মন্দ কথা বলে গ. অপরের দুঃখে আনন্দিত হয়।

৬. আলী! মুনাফিকের অপর তিনটি চিহ্ন হলো : ক. সে মিথ্যা বলে খ. ওয়াদা ভঙ্গ করে। গ. আমানত নষ্ট করে আর উপদেশ তার কোনো উপকারে আসে না।

৭. আলী! অলসের কয়েকটি আলামত বলি : ক. সে আল্লাহর ইবাদতে অলসতা করে। খ. নির্ধারিত সময়ের পরে নামাজ আদায় করে। গ. অপচয় ও ভুল-ত্রুটি করে।

[আল্লামা আবুল ফজল আবদুর রহমান আস সুয়ূতি (রহ.) -এর ওসিয়তুন্নবী গ্রন্থ থেকে অনূদিত]

ইসলাম ও জীবন ডেস্ক

হজরত আলী (রা.)-এর উদ্দেশে

মহানবীর উপদেশ

  
১৮ জুন ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

১. হে আলী! মুসা (আ.)-এর কাছে হারুন (আ.)-এর মর্যাদা যেমন আমার কাছে তোমার মর্যাদা তেমন। তবে আমার পর আর কোনো নবী আসবেন না। আমি তোমাকে বিশেষ কিছু নির্দেশ দিচ্ছি যদি তুমি তা পালন কর তাহলে তুমি বেঁচে থাকবে সুখী ও সৌভাগ্যবান হয়ে আর তোমার মৃত্যু হবে শহিদ অবস্থায়। কেয়ামতের দিন তোমার প্রতিপালক তোমাকে পুনরুত্থিত করবেন ফকিহ ও আলেম হিসাবে।

২. আলী! মুমিনের চিহ্ন তিনটি. ক. সালাত আদায় করা। খ. রাত জেগে ইবাদত করা। গ. দান খয়রাত করা।

৩. আলী! মুনাফিকের চিহ্ন তিনটি : ক. সে মানুষের সামনে একাগ্রে সালাত আদায় করে। খ. একা সালাত আদায় করলে দ্রুততার সঙ্গে অন্য মনস্ক হয়ে সালাত আদায় করে। গ. সমাগমে আল্লাহকে স্মরণ করে, কিন্তু নির্জনে ভুলে যায়।

৪. আলী! জালেমের আলামত তিনটি : ক. সে শক্তি দিয়ে দুর্বলের ওপর কর্তৃত্ব খাটাবে। খ. মানুষের ধন-সম্পদ জোর করে ছিনিয়ে নেবে। গ. খাবার-দাবারে হালাল-হারামের ধার ধারবে না।

৫. আলী! হিংসুকের চিহ্ন তিনটি : ক. সে সামনে চাটুকারি করে। খ. পেছনে মন্দ কথা বলে গ. অপরের দুঃখে আনন্দিত হয়।

৬. আলী! মুনাফিকের অপর তিনটি চিহ্ন হলো : ক. সে মিথ্যা বলে খ. ওয়াদা ভঙ্গ করে। গ. আমানত নষ্ট করে আর উপদেশ তার কোনো উপকারে আসে না।

৭. আলী! অলসের কয়েকটি আলামত বলি : ক. সে আল্লাহর ইবাদতে অলসতা করে। খ. নির্ধারিত সময়ের পরে নামাজ আদায় করে। গ. অপচয় ও ভুল-ত্রুটি করে।

[আল্লামা আবুল ফজল আবদুর রহমান আস সুয়ূতি (রহ.) -এর ওসিয়তুন্নবী গ্রন্থ থেকে অনূদিত]

ইসলাম ও জীবন ডেস্ক

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন