এতেকাফ

  মওলানা ওলীউর রহমান ০৮ জুন ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

এতেকাফ

গুরুত্বপূর্ণ একটি ইবাদত এতেকাফ। মানুষের জীবনের পরিশুদ্ধতার ক্ষেত্রে এতেকাফের বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। লাইলাতুল কদর বা শবেকদর পাওয়ার জন্যই এতেকাফ। যে রজনী হাজার মাস অপেক্ষা উত্তম।

হাজার হাজার বছর ধরে বিশ্ববাসীর যে কল্যাণ সাধিত হয়নি, রাব্বুল আলামীন বিশ্ববাসীকে সে কল্যাণ দান করেছেন এই মহিমান্বিত রাতে মহাগ্রন্থ আল কোরআন নাজিল করার মাধ্যমে। পবিত্র রাতের বরকত ও কল্যাণ লাভের জন্য রমজানের শেষ দশকে এতেকাফের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

এতেকাফ হল আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে নির্ধারিত নিয়ম অনুসরণ করে মসজিদে অবস্থান করা। যারা এতেকাফ করেন তাদের বলা হয় আল্লাহর মেহমান। এতেকাফ তিন প্রকার। ওয়াজিব, সুন্নত ও নফল।

কোনো কাজের জন্য এতেকাফের মান্নত করলে এতেকাফ করা ওয়াজিব। রমজানের শেষ দশ দিনের এতেকাফ হল সুন্নতে মোয়াক্কাদায়ে কেফায়া। অর্থাৎ এক মহল্লায় একজন আদায় করে নিলে গোটা মহল্লাবাসীর পক্ষে আদায় হয়ে যাবে।

আর যদি কেউ-ই আদায় না করে তাহলে গোটা মহল্লাবাসী এই সুন্নত ছাড়ার কারণে গোনাহগার হবে। নফল এতেকাফ হল যে কোনো সময় সওয়াবের নিয়তে মসজিদে অবস্থান করা। এতেকাফের জন্য সময়ের কোনো নির্ধারিত পরিমাণ নেই।

এক ঘণ্টা, দুই ঘণ্টা, একদিন, দু’দিন, ত্রিশ দিন, চল্লিশ দিন এতেকাফের নির্ধারিত কোনো সময়সীমা নেই। (দুররে মুখতার)।

রমজানের শেষ দশ দিনের এতেকাফের অনেক মর্যাদা রয়েছে। হুজুর (সা.) সবসমই রমজানের শেষ দশ দিনে এতেকাফ করতেন। হুজুর (সা.) এরশাদ করেন, এতেকাফকারী সব ধরনের গোনাহ থেকে মুক্ত থাকে এবং তাকে এত বেশি নেকি প্রদান করা হয় যে, সে যেন সর্বপ্রকার নেক কাজ করেছে। (মিশকাত)।

এতেকাফকারী দুনিয়ার সব ব্যস্ততা ত্যাগ করে সর্বক্ষণ আল্লাহর ইবাদতে নিয়োজিত থাকে। এতেকাফ চলাকালীন সে নামাজের সওয়াব পায়। রাসূল (সা.) বলেন, যে ব্যক্তি রমজানের শেষ দশ দিনে এতেকাফ করে সে দুই হজ এবং দুই ওমরার সওয়াব পায়। (বায়হাকি)।

ইমাম ইবনে কাইয়ুম বলেন, এতেকাফের উদ্দেশ্য হল রূহ এবং অন্তরকে আল্লাহর সঙ্গে মিলানো, সব ধরনের ব্যস্ততা থেকে মুক্ত হয়ে আল্লাহর জন্য ব্যস্ত হয়ে পড়া, পার্থিব সব সম্পর্ক ত্যাগ করে আল্লাহর সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করা।

এতেকাফ অবস্থায় জিকির, তেলাওয়াত এবং ধর্মীয় বইপুস্তক পাঠে অতিবাহিত করা উচিত। মহিলারা নিজ নিজ ঘরের নির্ধারিত জায়গায় এতেকাফ করতে পারেন।

লেখক : পেশ ইমাম ও খতিব পূর্বভাটপাড়া জামে মসজিদ, সিলেট

ই-মেইল : [email protected]

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter