আষাঢ়ের কোড়া

  ড. আনম আমিনুর রহমান ০৪ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রাজশাহীর ভারতীয় সীমান্তবর্তী চরইল বিল। সঙ্গে আছে শিক্ষক সাইফুল ইসলাম ও জিকেন ভাই। ক্যামেরায় চোখ রেখে অপেক্ষায় আছি। কিছু সময় পর ধান ক্ষেতের ভেতর থেকে মাথায় লাল শিরস্ত্রাণযুক্ত একটি পাখি উড়াল দিল। সঙ্গে সঙ্গে বেশ কয়েকটা ছবি তুললাম। বাইশ বছর আগে ফকিরহাটের সাতশৈয়া গ্রামে প্রথম এ প্রজাতির একটি স্ত্রী পাখির ছবি তুলেছিলাম। তবে প্রকৃতিতে পুরুষ পাখি এ প্রথম দেখলাম। ছেলেবেলায় বাবার কাছে শুনেছি- এই পাখিকে পোষ মানিয়ে একই প্রজাতির বুনো পাখি ধরা হতো। গ্রামের অনেকেই এ কাজ করত।

২০১৮ সালের ২৯ জুন রহনপুরের চরইল বিলে দেখা পাখিটির নাম কোড়া। বন কোড়া বা জলমোরগ নামেও পরিচিত। ইংরেজি নাম Watercock বা Kora. বৈজ্ঞানিক নাম Gallicrex cinerea. সচরাচর দৃশ্যমান আবাসিক পাখিটি চীন ও ফিলিপাইনসহ দক্ষিণ ও দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার অনেক দেশেই দেখা যায়।

পুরুষ ও স্ত্রী কোড়ার দেহের রঙ একনজরে বাদামি। দেহের ওপরটায় গাঢ় বাদামিতে হলদে ছোপ। দেহের নিচে হলদের ওপর সরু বাদামি ডোরা। মাথার চাঁদি কালচে-বাদামি। কপালের সামনের ত্রিকোণাকার বর্মটি হলদে। চোখ ও চঞ্চু হলদে। লেজ খাটো। পা ও লম্বা আঙুল সবুজাভ। কিন্তু প্রজননকালে পুরুষ কোড়ার দেহের রঙ ধূসরাভ-কালো দেখায়। কপালে দেখা দেয় লাল টুকটুকে খাড়া বর্ম। চোখ ও চঞ্চুর রঙ হয় লালচে। পা ও আঙুল হয় সবুজাভ-লালচে। বাচ্চা দেখতে বড়দের মতোই, তবে দেহতল লালচে-পীত।

কোড়া হাওর, বিল, নলবন, জলাভূমি, প্লাবিত ধানক্ষেত বা ঘাসবনে বিচরণ করে। অতি লাজুক এ পাখি দিবাচর হলেও খুঁজে পাওয়া কঠিন। কারণ এরা লুকিয়ে লুকিয়ে চলাফেরা করে। সচরাচর একাকী বা জোড়ায় দেখা যায়। ভোরবেলা ও গোধুলী ছাড়াও বাদলা দিনে সক্রিয় থাকে। জলে ভাসমান আগাছায় বা ধানক্ষেতে হেঁটে হেঁটে জলজ উদ্ভিদের বীজ ও গোড়া, ধান, খোলসজাতীয় প্রাণী, কীটপতঙ্গ, ছোট মাছ ইত্যাদি খায়।

আষাঢ় কোড়ার প্রজননকাল। এ সময় পুরুষ পাখি নিজের সীমানা রক্ষায় অন্য পুরুষের সঙ্গে মারামারিও করে থাকে। এরা নলবন, ভাসমান ধানগাছ বা জলাভূমির ঝোপঝাড়ে ধানগাছ বা ঘাস দিয়ে গোলাকার বাসা বানায়। ডিম পাড়ে ৫ থেকে ৬টি। ডিমের রঙ হলদে বা লালচে-বাদামি ছিটছোপসহ সাদা, ফ্যাকাশে বা ইট লাল। স্ত্রী পাখি একাই ডিমে তা দেয়। ডিম ফোটে ২৩ দিনে।

লেখক : বন্যপ্রাণী জীববিজ্ঞানী ও প্রাণিচিকিৎসা বিশেষজ্ঞ, বন্যপ্রাণী প্রজনন ও সংরক্ষণ কেন্দ্র, বশেমুরকৃবি, সালনা, গাজীপুর

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.