বই মেলায় ব্যাংক শীর্ষ নির্বাহীদের প্রকাশনা

  যুগান্তর ডেস্ক    ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মাশরুর আরেফিন এর প্রথম উপন্যাস ‘আগস্ট আবছায়া’

এক লেখক বন্ধু গতরাতে জিজ্ঞাসা করল, “কাজ যে নেই, তাতে কেমন লাগছে?” আমি বললাম, ‘বিষণ্ণ ও জঘন্য।’ আমার আফসোস হচ্ছে আরো কত কিছুই না বলার ছিল বইটাতে। এরই মধ্যে দেখছি বইটা পরিচিতি পাচ্ছে ‘বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড নিয়ে লেখা উপন্যাস’ হিসেবে। বইয়ের পোস্টারে লেখা ‘বাংলা সাহিত্যের পাপমোচন হলো’। অর্থাৎ বঙ্গবন্ধুর পরিবার-পরিজনসহ মৃত্যুর কথাই উঠছে ঘুরে ফিরে।

কথা মিথ্যা নয়। সম্ভবত বাংলা সাহিত্যে (কিংবা দু মলাটের ভেতরের যে কোনো বইয়ে) এভাবে প্রথমবারের মতো চিত্রিত হলো ১৪ আগস্ট ১৯৭৫-এর বিকেল সাড়ে চারটা থেকে নিয়ে ১৬ আগস্ট টুঙ্গিপাড়ার অপরাহ্নের মিনিট বাই মিনিট। এ-উপন্যাস শুধু এটুকুই নয়। এটা ওই নৃশংস হত্যাকাণ্ডের পাশাপাশি অন্য আরও অনেক কিছু।

লেখক : দি সিটি ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক

সময় প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত হলো ফারুক মঈনউদ্দীনের দুটি বই

মোহিনী মুম্বাই বইটি যখন প্রথম প্রকাশিত হয় তখন যারা ছয় বছরের শিশু, তারা এখন বিশ বছরের তরুণ। সুতরাং এই নতুন পাঠক প্রজন্মের জন্য বইটির আরেকটি পরিমার্জিত সংস্করণ বের করা হয়তো দরকার ছিল। ২০০০ সালের প্রথম থেকে পরবর্তী পাচ বছর ধরে দৈনিক প্রথম আলোতে ‘মুম্বাইর চিঠি’ শিরোনামের কলামটির নির্বাচিত কিছু এপিসোড সংকলিত হয়েছে এই বইতে।

সুদূরের অদূর দুয়ার মিয়ানমার, শ্রীলংকা, হংকং এবং অস্ট্রেলিয়াসহ চারটি দেশের ভ্রমণবৃত্তান্ত রয়েছে বইটির মোট বারোটি অধ্যায়ে। অস্ট্রেলিয়ার স্বর্ণখনি থেকে শুরু করে ঘরের কাছের রেঙ্গুন কিংবা শ্রীলংকার ভ্রমণ কেন্দ্রগুলোর অতি পরিচিত স্থানটিকেও নিতান্ত অপরিচিত মনে হতে পারে এখানে।

লেখক : ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক

হায়দার বসুনিয়া এবং শাহজাদা বসুনিয়ার ২টি করে উপন্যাস

অমর একুশে গ্রন্থমেলায় লেখক হায়দার বসুনিয়া এবং শাহজাদা বসুনিয়ার দুইটি করে উপন্যাস প্রকাশিত হয়েছে। সাবেক শিক্ষক হায়দার বসুনিয়ার ছেলে শাহজাদা বসুনিয়া।

হায়দার বসুনিয়া রচিত উপন্যাস দুটির নাম হল ‘কবিরের ভিটা-মাটি’ ও ‘কামনা’। আর শাহজাদা বসুনিয়ার লেখা উপন্যাস দুটির নাম হল ‘অ ঈৎঁবষ ঋধঃযবৎ’ ও ‘ঞযব ঈৎবফরঃ ঈধৎফং’ । চারটি বই প্রকাশিত হয়েছে বিশ্বসাহিত্য ভবন থেকে। এ বছরের বই মেলার ৫০৪-৫০৭ নং স্টলে পাওয়া যাচ্ছে বইগুলো। প্রসঙ্গত, হায়দার বসুনিয়া দীর্ঘ চল্লিশ বছরেরও বেশি সময় শিক্ষকতা করেছেন। ২০০৪ সালে শিক্ষকতা থেকে অবসর নেয়ার পর এখন পর্যন্ত তার লেখা ২৮টি সাহিত্য বই প্রকাশিত হয়েছে। অন্যদিকে, শাহজাদা বসুনিয়া একজন ঊর্ধ্বতন ব্যাংক কর্মকর্তা। বর্তমানে ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকে সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং পাবলিক অ্যাফেয়ার্স এন্ড ব্র্যান্ড কমিউনিকেশন ডিভিশনের প্রধান হিসেবে কর্মরত আছেন। এ পর্যন্ত তার লেখা ১০টি বই প্রকাশিত হয়েছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×