সহকর্মীর সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়তে হবে

  উপমা ইসলাম রূপা ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সহকর্মীর সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়তে হবে।
সহকর্মীর সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়তে হবে। ছবি সংগৃহীত

দিনের বেশি সময় আপনাকে কাটাতে হয় কর্মক্ষেত্রে। কর্মক্ষেত্রে নিজের সৃজনশীলতার সঙ্গে আস্থাশীল অবস্থান গড়ে তোলার জন্য সহকর্মীর সঙ্গে সুসম্পর্ক রাখা অত্যন্ত জরুরি। আর সুসম্পর্ক শুধু ভালোভাবে কাজ করার মানসিক শক্তিই দেয় না একই সঙ্গে আপনার কাজের উদ্যমতাও বাড়িয়ে তুলবে।

কর্মক্ষেত্রে একটি স্বস্তিকর পরিবেশ আপনার কাজের প্রতি দ্বিগুণ পরিমাণ মনোযোগ বাড়িয়ে তুলতে পারে। তাই কর্মক্ষেত্রে সহকর্মীদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক এবং সহায়তামূলক আচরণ গড়ে তোলার ক্ষেত্রে লক্ষ্য রাখতে পারেন এ বিষয়গুলোর দিকে।

সহযোগিতাপূর্ণ মনোভাব রাখুন

সহকর্মীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়তে চাইলে আপনাকে অবশ্যই সহযোগিতাপূর্ণ মনোভাব রাখতে হবে। কর্মক্ষেত্রে সহকর্মীর বিপদে কিংবা সমস্যায় এগিয়ে আসুন। এ সহযোগিতাই হয়তো ভবিষ্যতের কোনো জটিল সমস্যার সমাধান হিসেবে আপনার কাছে ফিরে আসবে। কারণ পারস্পারিক সহযোগিতাই পারে সুসম্পর্ক গড়ে তুলতে।

প্রতিযোগিতা এড়িয়ে চলুন

সহকর্মীর সঙ্গে সম্পর্ক ভালো রাখতে চাইলে অবশ্যই প্রতিযোগিতা এড়িয়ে চলতে হবে। আপনার সহকর্মী আপনার চেয়ে কোন দিক দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন এটা ভেবে যদি আপনি কোন অসুস্থ উপায়ে তার চেয়ে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন সেটা মোটেও ভালো মানুষের পরিচয় নয়। কারণ প্রতিযোগিতা সম্পর্ক নষ্ট করার সঙ্গে শত্রুতা বাড়ায়। নিজের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করুন। দেখবেন, প্রতিযোগিতা ছাড়াই সফল হচ্ছেন। আর সম্পর্কও ভালো থাকবে।

ঈর্ষা এবং নিন্দা

থেকে বিরত থাকুন

সহকর্মীর কোনো কাজ খারাপ লাগলে সরাসরি তাকেই বলুন। কিন্তু নিন্দা করবেন না। সহকর্মীর ভালো কাজকে ঈর্ষা না করে বরং সে যে বিষয়ে দক্ষ তার কাছ থেকে সেটি শিখে নিন। এতে আপনার কাজে দক্ষতা বাড়ার সঙ্গে সহকর্মীর সঙ্গে আন্তরিক সম্পর্ক গড়ে উঠবে।

তোষামোদ নয় প্রশংসা করুন

প্রত্যেক মানুষেরই আলাদা কিছু ভালো গুণ থাকে। তাই সহকর্মীর ভালো এবং কৃতিত্বপূর্ণ কাজের প্রশংসা করুন। কারণ কৃতিত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতি সবাই পেতে চায়। আর প্রশংসা বাণীতে সম্পর্কও ভালো থাকে। অন্যের কৃতিত্বপূর্ণ কাজকে কখনোই নিজের বলে চালানোর চেষ্টা করবেন না। এতে সম্পর্ক নষ্ট হওয়ার সঙ্গে আপনার ব্যক্তিত্ব সম্পর্কেও খারাপ ধারণা তৈরি হবে। তাই প্রশংসা করুন কিন্তু কখনোই তোষামোদ করবেন না।

অফিস রাজনীতি পরিহার

অফিস পলিটিক্স সহকর্মীর সঙ্গে দূরত্ব তৈরি করে। সহকর্মীর সঙ্গে ভালো সম্পর্ক রাখতে চাইলে এই নোংরা বিষয় পরিহার করুন। মনে রাখবেন, আজ আপনি যার ক্ষতি করার চেষ্টা করবেন আগামীতে আপনার সহযোগীরাই হয়তো তার পক্ষ নিয়ে আপনার ক্ষতির চেষ্টা করবে। সুতরাং বুঝতেই পারছেন অফিস রাজনীতি কারোর জন্যই ভালো ফল বয়ে আনে না।

বিশেষ দিনগুলো মনে রাখুন

সহকর্মীদের বিশেষ দিনগুলো মনে রাখুন। যেমন জন্মদিনে উইশ করতে পারেন, সঙ্গে ছোট্ট একটা উপহার, কার্ড বা ফুল দিন। দেখবেন সহকর্মীর সঙ্গে ভালো সম্পর্ক কেউ আটকে রাখতে পারবে না।

ইতিবাচক আড্ডা দিন

অফিসের একঘেঁয়ে একটানা কাজের ফাঁকে চা বা কফির সঙ্গে ইতিবাচক আড্ডা বা কুশল বিনিময় মনকে প্রফুল্ল করে। আর মনের প্রফুল্লতা কাজের স্পৃহা বাড়িয়ে তোলার সঙ্গে সহকর্মীর সঙ্গে সম্পর্কও সহজ করে। এছাড়া ছুটির দিনে অফিস সহকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে দূরে কোথাও ঘুরতেও যেতে পারেন।

ব্যক্তিগত বিষয় এড়িয়ে চলুন

কর্মক্ষেত্রে নিজের এবং অন্যের একান্ত ব্যক্তিগত বিষয়গুলো এড়িয়ে চলুন। কাজের জায়গাকে কাজের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখার চেষ্টা করুন। নিজের ব্যক্তিগত সব বিষয় আলোচনা না করাই ভালো। আবার অন্যের একান্ত ব্যক্তিগত বিষয়েও আগ্রহ দেখাবেন না। তবে সম্পর্কের ধরন অনুযায়ী ব্যক্তিগত জীবনের খোঁজখবর নিতে পারেন।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×