শবেবরাতের রকমারি হালুয়া

আজ পবিত্র শবেবরাত। এ উপলক্ষে রুটি-হালুয়া খাওয়া ঐতিহ্যের অংশ। আটটি হালুয়া-রুটির রেসিপি দিয়েছেন ঘরেবাইরের রন্ধনশিল্পীরা- রেসিপি দিয়েছেন দিল আফরোজ সাইদা, আলোকচিত্রী- মনির আহমেদ

  ০৯ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ফ্রুটস হালুয়া

যা লাগবে : মিক্সড ফ্রুটস ক্যান ১টা, পানি ২ কাপ, চায়না গ্রাস ১০ গ্রাম, চিনি ১ কাপ বা পছন্দ অনুযায়ী, ঘি ৩ টেবিল চামচ, এলাচি ৩/৪টা, গোলাপজল ১ টেবিল চামচ।

যেভাবে করবেন : ননস্টিক হাঁড়িতে ঘি নিয়ে গরম করে তাতে প্রথমে এলাচ দিয়ে পানি ঢেলে দিতে হবে, তারপর চিনি দিন। অন্য একটি হাঁড়িতে অল্প পানি দিয়ে চায়না গ্রাস জ্বাল দিন। চায়না গ্রাস গলে ভালোভাবে মিশে গেলে আগের হাঁড়িতে ঢেলে দিন। ঘন হয়ে এলে নামিয়ে ফেলুন। অল্প কালার দিতে পারেন চাইলে। এলাচ দানাগুলো উঠিয়ে ফেলে দিন। একটা মোল্ডে ঘি মাখিয়ে তাতে ফ্রুটস ছড়িয়ে দিয়ে দিতে হবে। এবার তাতে চায়না গ্রাসের মিশ্রণ কিছুটা ঠাণ্ডা করে মোল্ডে ঢেলে দিন। ঠাণ্ডা করে ফ্রিজে রেখে দিন। ২-৩ ঘণ্টা পর জমে এলে কেটে পরিবেশন করুন।

বন রুটি

যা লাগবে ময়দা ৫০০ গ্রাম, গুঁড়াদুধ ৪ টেবিল চামচ, চিনি ৩ টেবিল চামচ, লবণ ২ চা চামচ, ডিম ১টি, ইস্ট ২ চা চামচ, পানি ১ কাপ, সয়াবিন তেল ২ টেবিল চামচ।

যেভাবে করবেন : ময়দা চেলে সব উপকরণ মেপে রাখতে হবে। একটি ছড়ানো জায়গায় রাখতে হবে। তেল ছাড়া সব উপকরণ একসঙ্গে মিশাতে হবে। এবার তাতে অল্প অল্প করে পানি দিয়ে মিশিয়ে ফেলতে হবে। ৫ মিনিট ঢেকে রাখুন। ৫ মিনিট পর তেল মিশিয়ে ভালো করে মাখতে হবে। ক্লিন আপটেস্ট পাত্র থেকে উঠে আসবে। শাইনিংটেস্ট খামিরটা চকচকে দেখাবে, উইন্ডোটেস্ট গুঁটি থাকবে না, এই ৩টা ধাপ সম্পন্ন হলে বুঝতে হবে মিক্সিং হয়েছে। বাটিতে খামিরটা সমান করে গরম জায়গায় বা রান্নাঘরে ঢেকে রাখতে হবে। কিছুক্ষণ পর খামির ফুলে উঠলে ফুলে উঠা খামির হাত দিয়ে চেপে বাতাস বের করে ছুরি দিয়ে কেটে পিস পিস করে ওজন করে নিতে হবে নির্দিষ্ট ডিজাইনে সব বানানো হয়ে গেলে অয়েল ব্রাশ করা ট্রেতে রেখে গরম জায়গায় কিছুক্ষণ রেখে দিন। ১৫০ ডিগ্রিতে ৭-১০ মিনিট প্রিহিট করে ১৮০ ডিগ্রিতে ১০-১৫ মিনিট বেক করতে হবে। ওভেনে থেকে বের করে বাটার ব্রাশ করে দিতে হবে।

তিরত্ন হালুয়া

যা লাগবে : গাজর সিদ্ধ করে বাটা ১ কাপ, মটরশুঁটি সিদ্ধ করে বাটা ১ কাপ, সুজি আধাকাপ, চিনি ২ কাপ, ঘি আধা কাপ, গুঁড়াদুধ দেড় কাপ, পেস্তাবাদাম ২ টেবিল চামচ, এলাচ গুঁড়া ২ চা চামচ।

যেভাবে করবেন : হাঁড়িতে ৩ ভাগের একভাগ ঘি নিয়ে তাতে এলাচ গুঁড়া ও গাজর বাটা দিন। বাকি সব উপকরণ তিনভাগ করে একভাগ নিয়ে গাজরের সঙ্গে দিন। ঘন হয়ে এলে নামিয়ে ঘি মাখানো ট্রেতে চেপে রেখে দিন। আবার হাঁড়িতে আরেক ভাগ ঘি দিয়ে তাতে এলাচ গুঁড়া ও মটরশুঁটি বাটা দিন। আস্তে আস্তে বাকি উপকরণগুলো এক ভাগ করে দিন। ভালো করে নাড়ুন। ঘন হয়ে হাঁড়ি থেকে আলগা হয়ে এলে নামিয়ে ফেলুন। এ মিশ্রণটা গাজর বাটার ওপরে ঢেলে দিন। আবার বাকি ঘিতে এলাচ গুঁড়া ও সুজি দিয়ে ভেজে কিছু পানি দিয়ে নাড়ুন। নরম হয়ে এলে চিনি ও অন্য সব উপকরণ দিন। হাঁড়ি থেকে আলগা হয়ে এলে, নামিয়ে মটরশুঁটির মিশ্রণের ওপরে ঢেলে দিন। শক্ত হয়ে এলে কেটে পরিবেশন করুন তিরত্ন হালুয়া।

পেঁপের লাড্ডু

যা লাগবে : পেঁপে কুরিয়ে নেয়া ২ কাপ, চিনি ১ কাপ, ঘি আধা কাপ, এলাচ ৪টা, গোলাপজল ২ চা চামচ, জাফরান ১ চিমটি, লবণ স্বাদমতো, কালার গ্রিনকালার, সাজানোর জন্য পেস্তা/চেরি।

যেভাবে করবেন : পেঁপে ছিলে ধুয়ে নিন। তারপর গ্রেটার দিয়ে কুচি করে নিন। অল্প পানি দিয়ে সিদ্ধ করে নিন। গোলাপজলে জাফরান ভিজিয়ে রাখুন। এবার হাঁড়িতে ঘি দিয়ে তাতে এলাচ ছেড়ে দিন। তারপর পেঁপে কুচি ও চিনি দিন। অল্প লবণ দিন। ভালোভাবে নেড়ে পানি শুকিয়ে এলে কালার ও গোলাপজলে ভিজানো জাফরান দিন। হালুয়া হাঁড়ি থেকে আলগা হয়ে এলে নামিয়ে একটু ঠাণ্ডা করে নিন। যদি লাড্ডু করতে চান তাহলে লাড্ডুর আকারে বল করে নিন। পেস্তা বা চেরি দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

ছোলার ডালের হালুয়া

যা লাগবে : ছোলার ডাল ১-২ কেজি, চিনি ১-২ কেজি, তরল দুধ ১-২ কেজি, গুঁড়া দুধ ১-২ কাপ, ঘি ১-২ কাপ, তেজপাতা ২টি, এলাচ ৬টি, লবঙ্গ ৬টি, দারুচিনি ৪ টুকরা, বিভিন্ন ধরনের বাদাম ইচ্ছানুযায়ী, এলাচ গুঁড়া ১-৩ চা চামচ, লবণ সামান্য।

যেভাবে করবেন : ছোলার ডাল তরল দুধ দিয়ে প্রেসার কুকারে সিদ্ধ করে নিন। ঠাণ্ডা করে বেটে বা ব্লেন্ড করে নিন। মৃদু আঁচে ননস্টিক প্যানে ঘি গরম দিন। তেজপাতা, এলাচ, লবঙ্গ, দারুচিনি দিয়ে ১ মিনিট ভাজুন। ডাল বাটা দিয়ে ১৫-২০ মিনিট নেড়েচেড়ে চিনি ও লবণ দিন। নাড়তে থাকুন। চিনি গলা পানি টেনে এলে গুঁড়া দুধ দিয়ে মিশান। হালুয়া তাল ধরে প্যান ছেড়ে উঠে এলে এলাচ গুঁড়া ও ১ টেবিল চামচ ঘি দিয়ে নামান। ঘি ব্রাশ করা ছড়ানো ফ্লাট পাত্রে ঢেলে সমান করে দিন। ঠাণ্ডা হলে বরফি আকারে কাটুন। অথবা ছাঁচে ঘি মাখিয়ে ছবির মতো শেপে হালুয়া বানিয়ে নিন।

গাজরের হালুয়া

যা লাগবে : গাজর কুচি ৩ কাপ, ঘি ৪ টেবিল চামচ, চিনি দেড় কাপ, এলাচ ৪টা, জাফরান অল্প, গোলাপজল ১ টেবিল চামচ, গুঁড়াদুধ ১/২ কাপ, পেস্তাবাদাম হালুয়া যত পিস হবে, তত পিস

যেভাবে করবেন : গাজর কুচি কুচি করে সিদ্ধ করে ব্লেন্ডারে দিয়ে পেস্ট করে নিতে হবে। জাফরান গোলাপজলে ভিজিয়ে রাখুন। ননস্টিক কড়াইয়ে ঘি দিয়ে তাতে প্রথমে এলাচ দিয়ে পরে গাজর বাটা, চিনি দিয়ে নাড়তে হবে, কিছুক্ষণ পর গুঁড়াদুধ দিয়ে নাড়ুন। গোলাপজলে ভিজানো জাফরান দিন। হালুয়া হাঁড়ি থেকে আলগা হয়ে এলে নামিয়ে ফেলবেন। কিছুটা গরম থাকতেই গাজরের সেইপ করে মাথায় একটা পেস্তা ঢুকিয়ে দেবেন। সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

আরও খবর
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত