ব্যাগে যা যা রাখবেন এ সময়ে
jugantor
ব্যাগে যা যা রাখবেন এ সময়ে

  ফারিন সুমাইয়া  

২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ছবি সংগৃহীত

আকাশে কালো মেঘের আনাগোনা কিংবা প্রখর রোদ- প্রকৃতির এমন লুকোচুরির সময় নিজেকে রাখতে হবে সব সময়ের জন্য প্রস্তুত। এছাড়া কোভিড-১৯-এর কারণে হালকা জ্বর হলেও নানা ভাবনা উঁকি দেয় মনে। তাই বৃষ্টি থেকেও যেমন চাই সাবধানতা, তেমনি প্রচণ্ড রোদে যারা বাইরে কাজের খাতিরে দিনের একটা লম্বা সময় কাটান তারা যাতে গরমে অতিরিক্ত ঘামের ফলে জ্বর কিংবা সর্দির মতো রোগে আক্রান্ত না হোন- সে দিকেও নজর রাখা জরুরি। তাই যে কোনো পরিস্থিতির জন্য থাকতে হবে সব সময় প্রস্তুত।

অফিসের কাজে কিংবা নিত্যপ্রয়োজনীয় কাজের খাতিরে আমাদের এ সময়েও কম-বেশি বাইরে যেতে হয়। তাই অনেক সময় আমাদের সঙ্গে ল্যাপটপ থেকে শুরু করে নানা ধরনের কাগজ সঙ্গেই থাকে। হুট করে আসা বৃষ্টি সব কিছু নষ্ট করতে যথেষ্ট। ব্যাগটি যেন পানিরোধক হয়- তা নিশ্চিত করুন সবার আগে। সঙ্গে প্লাস্টিকের ব্যাগ রাখুন কিংবা জীপ ব্যাগ রাখুন, যাতে আপনার কাজের জিনিসগুলো সামলে রাখতে পারেন।

ব্যাগে ছাতা রাখুন সব সময়। ছাতা যেমন আপনাকে রোদ থেকে বাঁচাবে, তেমনি বৃষ্টির হাত থেকেও সুরক্ষা দেবে। এক্ষেত্রে অনেকেই ভেজা ছাতা ব্যাগে রাখতে চান না তাদের জন্য ব্যাগে আলাদা কাপড় কিংবা প্লাস্টিকের ব্যাগ রাখতে পারেন, যাতে ভেজা ছাতা মুড়িয়ে ব্যাগে রাখতে পারেন।

অফিসে যাওয়ার সময় যেহেতু যাতায়াত পথে নানা মানুষের সঙ্গে দেখা হচ্ছে তাই নিজের সুরক্ষাও এ সময়ে অনেক বেশি গুরুত্বের। তাই নিজের সুরক্ষার ক্ষেত্রে এক কিংবা দু’সেট কাপড় অফিসে রাখতে পারেন। পরবর্তীতে বদলে নিতে যাতে পারেন আর এ সময়েও নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে পারেন।

অনেকেই টুকিটাকি জিনিস কোথায় রাখেন- তা মনে করতে পারেন না। আর এ বিষয় নিয়ে পোহাতে হয় নানা ঝামেলা। আর এ সময়ে মাস্ক হচ্ছে তেমনি গুরুত্বপূর্ণ কিন্তু টুকিটাকি জিনিসের মতো। তাই একটি মাস্ক হারিয়ে গেলে কিংবা কোথায় রেখেছেন মনে করতে না পারলে অন্য একটি কেনা অবধি স্বস্তি নেই। আর এ সমস্যার সমাধানের ক্ষেত্রে ব্যাগে রাখতে পারেন অতিরিক্ত মাস্ক, যাতে একটি হারিয়ে গেলেও হাতের কাছে আরেকটি তৈরি থাকে।

হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ক্ষেত্রেও একই জিনিস মাথায় রাখুন। ব্যাগে অতিরিক্ত একটি স্যানিটাইজার রাখুন, যাতে নিজেকে সব সময় বাইরের জীবাণু থেকে শুরু করে করোনার প্রভাব থেকেও সুরক্ষিত রাখতে পারেন।

খাবার পানি নিজের সঙ্গে রাখার অভ্যাস করুন। দিনের একটা লম্বা সময় বাইরে থাকতে হয় তাই পানি আমাদের শরীরের জন্য খুবই দরকারি। আপনার শরীরের যতটুকু পানি প্রয়োজন তা শরীর না পেলে নানা রোগ বাসা বাঁধতে শুরু করে শরীরে। তাই পানি পান করার অভ্যাস করুন।

যাদের কাজের সময় কিংবা দৈনন্দিন সব ক্ষেত্রে চশমার প্রয়োজন পড়ে তারা ব্যাগে আলাদা একটি চশমা রাখুন। যাতে একটি চশমা হারিয়ে বা নষ্ট হয়ে গেলেও আপনার কাছে আরেকটি চশমা হাতের নাগালে থাকে।

করোনাকালীন এ সময়ে বাড়তি সতর্কতা আবশ্যক, যাতে আমরা নিজেরা সুস্থ থাকতে পারি পাশাপাশি কাছের মানুষদেরও সুস্থ রাখতে পারি।

ব্যাগে যা যা রাখবেন এ সময়ে

 ফারিন সুমাইয়া 
২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
ছবি সংগৃহীত
ছবি সংগৃহীত

আকাশে কালো মেঘের আনাগোনা কিংবা প্রখর রোদ- প্রকৃতির এমন লুকোচুরির সময় নিজেকে রাখতে হবে সব সময়ের জন্য প্রস্তুত। এছাড়া কোভিড-১৯-এর কারণে হালকা জ্বর হলেও নানা ভাবনা উঁকি দেয় মনে। তাই বৃষ্টি থেকেও যেমন চাই সাবধানতা, তেমনি প্রচণ্ড রোদে যারা বাইরে কাজের খাতিরে দিনের একটা লম্বা সময় কাটান তারা যাতে গরমে অতিরিক্ত ঘামের ফলে জ্বর কিংবা সর্দির মতো রোগে আক্রান্ত না হোন- সে দিকেও নজর রাখা জরুরি। তাই যে কোনো পরিস্থিতির জন্য থাকতে হবে সব সময় প্রস্তুত।

অফিসের কাজে কিংবা নিত্যপ্রয়োজনীয় কাজের খাতিরে আমাদের এ সময়েও কম-বেশি বাইরে যেতে হয়। তাই অনেক সময় আমাদের সঙ্গে ল্যাপটপ থেকে শুরু করে নানা ধরনের কাগজ সঙ্গেই থাকে। হুট করে আসা বৃষ্টি সব কিছু নষ্ট করতে যথেষ্ট। ব্যাগটি যেন পানিরোধক হয়- তা নিশ্চিত করুন সবার আগে। সঙ্গে প্লাস্টিকের ব্যাগ রাখুন কিংবা জীপ ব্যাগ রাখুন, যাতে আপনার কাজের জিনিসগুলো সামলে রাখতে পারেন।

ব্যাগে ছাতা রাখুন সব সময়। ছাতা যেমন আপনাকে রোদ থেকে বাঁচাবে, তেমনি বৃষ্টির হাত থেকেও সুরক্ষা দেবে। এক্ষেত্রে অনেকেই ভেজা ছাতা ব্যাগে রাখতে চান না তাদের জন্য ব্যাগে আলাদা কাপড় কিংবা প্লাস্টিকের ব্যাগ রাখতে পারেন, যাতে ভেজা ছাতা মুড়িয়ে ব্যাগে রাখতে পারেন।

অফিসে যাওয়ার সময় যেহেতু যাতায়াত পথে নানা মানুষের সঙ্গে দেখা হচ্ছে তাই নিজের সুরক্ষাও এ সময়ে অনেক বেশি গুরুত্বের। তাই নিজের সুরক্ষার ক্ষেত্রে এক কিংবা দু’সেট কাপড় অফিসে রাখতে পারেন। পরবর্তীতে বদলে নিতে যাতে পারেন আর এ সময়েও নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে পারেন।

অনেকেই টুকিটাকি জিনিস কোথায় রাখেন- তা মনে করতে পারেন না। আর এ বিষয় নিয়ে পোহাতে হয় নানা ঝামেলা। আর এ সময়ে মাস্ক হচ্ছে তেমনি গুরুত্বপূর্ণ কিন্তু টুকিটাকি জিনিসের মতো। তাই একটি মাস্ক হারিয়ে গেলে কিংবা কোথায় রেখেছেন মনে করতে না পারলে অন্য একটি কেনা অবধি স্বস্তি নেই। আর এ সমস্যার সমাধানের ক্ষেত্রে ব্যাগে রাখতে পারেন অতিরিক্ত মাস্ক, যাতে একটি হারিয়ে গেলেও হাতের কাছে আরেকটি তৈরি থাকে।

হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ক্ষেত্রেও একই জিনিস মাথায় রাখুন। ব্যাগে অতিরিক্ত একটি স্যানিটাইজার রাখুন, যাতে নিজেকে সব সময় বাইরের জীবাণু থেকে শুরু করে করোনার প্রভাব থেকেও সুরক্ষিত রাখতে পারেন।

খাবার পানি নিজের সঙ্গে রাখার অভ্যাস করুন। দিনের একটা লম্বা সময় বাইরে থাকতে হয় তাই পানি আমাদের শরীরের জন্য খুবই দরকারি। আপনার শরীরের যতটুকু পানি প্রয়োজন তা শরীর না পেলে নানা রোগ বাসা বাঁধতে শুরু করে শরীরে। তাই পানি পান করার অভ্যাস করুন।

যাদের কাজের সময় কিংবা দৈনন্দিন সব ক্ষেত্রে চশমার প্রয়োজন পড়ে তারা ব্যাগে আলাদা একটি চশমা রাখুন। যাতে একটি চশমা হারিয়ে বা নষ্ট হয়ে গেলেও আপনার কাছে আরেকটি চশমা হাতের নাগালে থাকে।

করোনাকালীন এ সময়ে বাড়তি সতর্কতা আবশ্যক, যাতে আমরা নিজেরা সুস্থ থাকতে পারি পাশাপাশি কাছের মানুষদেরও সুস্থ রাখতে পারি।