শারদীয় আয়োজন
jugantor
শারদীয় আয়োজন

  লাইফস্টাইল ডেস্ক  

২০ অক্টোবর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ছবি সংগৃহীত

ফ্রেশ টিস্যুর অভিনব উদ্যোগ

গত কয়েকদিনের মধ্যে বনানী ১১ ব্রিজ, শাপলা চত্বর বা রাজসিক বিহার-এর পাশ দিয়ে গিয়েছেন কি? আশপাশ দিয়ে গিয়ে থাকলে হয়তো দেখেছেন, পুরো ব্রিজ-ই আলোকিত হয়ে আছে এক মায়াবী গোলাপি আলোয়।

দেখে নিশ্চয়ই জানতে ইচ্ছা করেছে, হঠাৎ করে কেন এ আলোকসজ্জা? এর উত্তরটি হচ্ছে- পিঙ্ক ইলুমিনেশন। বিশ্বের অনেক দেশেই ‘ইন্টারন্যাশনাল ব্রেস্ট ক্যান্সার অ্যাওয়ারনেস মান্থ’ উপলক্ষে তাদের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা গোলাপি আলোয় আলোকিত করে রাখে ব্রেস্ট ক্যান্সার নিয়ে সচেতনতা তৈরির জন্য। বাংলাদেশে এবার-ই প্রথমবারের মতো ফ্রেশ টিস্যু আয়োজন করল এ উদ্যোগের। শহরের বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা গোলাপি রঙে আলোকিত হয়ে আছে ব্রেস্ট ক্যান্সারবিষয়ক সচেতনতা ছড়ানোর জন্য।

তাদের আয়োজন শুধু এ আলোকসজ্জাতেই থেমে যায়নি। এর পাশাপাশি ‘ফ্রেশ টিস্যু : একটি চেকআপ আর দেরি নয়; মুছতে গ্লানি, এখনই সময়’- এ স্লোগান সামনে নিয়ে তারা নির্মাণ করেছে, কিছু সচেতনতামূলক বিজ্ঞাপন চিত্রও; যার মূল উদ্দেশ্য ছিল- দেশের নারীদের নিয়মিত ব্রেস্ট ক্যান্সারের মেডিকেল চেকআপে উৎসাহী করা এবং এর ভয়াবহতা সম্পর্কে সবাইকে জানানো। ইতোমধ্যেই অনলাইন দুনিয়ায় প্রশংসায় ভাসছে ফ্রেশ টিস্যুর এ উদ্যোগ।

ফ্রেশ টিস্যু দেশের ৮টি বিভাগীয় সদরে আয়োজন করেছে এক মাসব্যাপী একটি মেডিকেল ক্যাম্পেইন। যেখান থেকে এ ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণকারী এক হাজার নারী পাবেন, ব্রেস্ট ক্যান্সারের ফ্রি প্রাইমারি চেকআপ অ্যান্ড কন্সালট্যান্সি সার্ভিস। ফ্রেশ টিস্যু www.muchhejaakglani.com নামে একটি ওয়েবসাইট লঞ্চ করেছে, যেখানে ব্রেস্ট ক্যান্সারসম্পর্কিত সব প্রাথমিক তথ্য একসঙ্গে রাখা হয়েছে।

পূজা উদযাপনে সঙ্গী হোক উবার

পূজায় এক মণ্ডপ থেকে অন্য মণ্ডপে যেতে কিংবা পুরান ঢাকায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা ঘুরে বেড়াতে চাইলে উবার রেন্টালস হতে পারে ভালো একটি অপশন। কাছের মানুষ বা বন্ধুদের উপহার পাঠানো হল পূজার খুশি ভাগাভাগি করে নেয়ার সবচেয়ে ভালো উপায়। উপহার পাঠাতে ব্যবহার করতে পারেন ‘উবার কানেক্ট’। যে ঠিকানায় আপনার পার্সেল পাঠাতে চান তা উবার অ্যাপের ‘হোয়ার টু’ বক্সে লিখুন এবং ‘মোটো ডেলিভারি’-তে ক্লিক করুন। আপনার দোরগোড়া থেকে উপহার পৌঁছে যাবে আপনার প্রিয়জনের কাছে।

আপনি চাইলে পরিবার বা বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরে আসতে পারেন ঢাকার বাইরে থেকেও। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে সাভার বা গাজীপুরে আছে অনেক রিসোর্ট।

রেনেসন্স্ ঢাকা গুলশান হোটেলে পূজার আয়োজন

এ পূজার ছুটিতে রেনেসন্স্ ঢাকা গুলশান হোটেল প্রথমবারের মতো অতিথিদের জন্য তারবাহার মাল্টি কুইজিন রেস্টুরেন্ট-এ পূজার ভোজের আয়োজন করেছে। পূজার ভোজের আয়োজন নাম শুনেই বোঝা যায়, ভিন্ন রকমের স্বাদ এবং মজাদার খাবারের আয়োজন আছে যেমন খাসির কষা মাংস, পনির আমড়া কাসুন্দি, বেগুন বাহার, মাটন দম বিরিয়ানি, বাসন্তী পোলাও, মুগ ডাল ভুনা খিচুড়ি আর মিষ্টান্নতে থাকছে মজাদার রসগোল্লা, নারিকেলের নাড়ু, মুড়ির মোয়া ও সন্দেশসহ আরও অনেক কিছু। আর এ অফারটি চলবে ২৩ অক্টোবর থেকে ২৬ অক্টোবর পর্যন্ত। বিস্তারিত জানতে ০১৭০৪১১২৬৪৬-এ নম্বরে যোগাযোগ করুন।

রঙ বাংলাদেশ

স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্বল্প পরিসরে ১১ অক্টোবর মাদারীপুরের হরিকুমারিয়াল জাইমান টাওয়ারে নতুন শাখার উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন রঙ বাংলাদেশ-এর কর্ণধার সৌমিক দাস ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক-সার্বিক ইন্টারন্যাশনাল, সভাপতি মাদারীপুর চেম্বার অব কমার্স হাফিজুর রহমান খান। রঙ বাংলাদেশ-এর যেসব পণ্য রাজধানী ঢাকায় পাওয়া যায় তা এখন মাদারীপুরেও পাওয়া যাবে। ফলে বাঁচবে সময় আর ভ্রমণের ঝক্কি।

পরিবর্তিত সময়ের বাস্তবতায় এখন অনলাইনে পোশাক কিনতে এবং হোম ডেলিভারি সুবিধা পেতে ভিজিট করুন ওয়েবসাইট www.rang-bd.com।

ঢাকা রিজেন্সি-তে শারদীয় উৎসব

স্বাস্থ্যবিধি মেনে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজায় সবার জন্যই থাকছে ২২ অক্টোবর থেকে ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত ঢাকা রিজেন্সি’র জমকালো আয়োজন! রিজেন্সি হোটেল অ্যান্ড রিসোর্ট অতিথিদের জন্য তার জনপ্রিয় রেস্টুরেন্ট গ্রান্ডিওস-এ বিশেষ ভোজের আয়োজন রেখেছে। বিস্তারিত +৮৮০১৭১৩৩৩২৬৬১।

পূজায় মেঘ

ফ্যাশন হাউস মেঘ দুর্গাপূজা উপলক্ষে এনেছে ছেলেদের পাঞ্জাবি, টি-শার্ট, মেয়েদের কামিজ, শিশুদের ফতুয়া, ফ্রক ও টি-শার্ট। আরামদায়ক কাপড়ে উজ্জ্বল রঙে এসব পোশাকের নকশায় ফুটিয়ে তোলা হয়েছে শারদ উৎসবের আমেজ। ফেসবুক : facebook.com/meghfashionbd

বিশ্বরঙ

পোশাক অলংকরণের অনুষঙ্গ হিসেবে প্রকৃতির বিভিন্ন উপাদানকে গ্রাফিক্যাল জ্যামিতিক ফর্মের সমন্বয়ে উপস্থাপন করেছে কাপড়ের মলিন সার্ফেসে। পোশাকের প্যাটার্নেও এসেছে ভিন্নতা। এবার দুর্গাপূজার পোশাকগুলো সিল্ক, হাফ সিল্ক, ধুপিয়ান ও অ্যান্ডিসহ বিভিন্ন কাপড়ের শাড়ি, পাঞ্জাবি, থ্রি-পিস, ফতুয়া, শার্ট ও টি-শার্ট ইত্যাদিতে তুলে ধরা হয়েছে প্রকৃতির উপাদান- গাছ, লতা-পাতা ও ফুল ইত্যাদির গ্রাফিক্যাল জ্যামিতিক ফর্মগুলোর মোটিফ এবং গরমের কথা মাথায় রেখে ব্যবহার করা হয়েছে সুতি ও খাদি কাপড়। অনলাইনে www.bishworang.com

কে ক্র্যাফট

পূজার এ বিশেষ আয়োজনের রং, কাপড়ের মান ও বৈচিত্র্যপূর্ণ ডিজাইন ক্রেতাদের সন্তুষ্ট করবে। কটন, কোটা, লিনেন ও জর্জেট কাপড়ে মোটিফ হিসেবে পৌরাণিক, মানডালা, মাধুবনী, ফুল ও প্রচলিত ফোক স্থান পেয়েছে পোশাকে। মাধ্যম হিসেবে স্ক্রিন প্রিন্ট, ব্লকপ্রিন্ট, হাতের কাজ (ভরাট, কাঁথা ও কাশ্মীরি) অ্যাম্ব্রয়ডারি ও কারচুপি সংযুক্ত হয়েছে। অনলাইন স্টোর kaykraft.com

সেইলর

পোশাক অলংকরণের অনুষঙ্গ হিসেবে পার্ল ও ফ্লোরাল প্রিন্টের জ্যামিতিক ফর্ম নান্দনিক উপস্থাপনায় তুলে ধরা হয়েছে কাপড়ের জমিনে। পোশাকের প্যাটার্নেও থাকছে বরাবরের মতো নতুনত্ব। সিল্কের প্রাধান্য বেশি থাকলেও হাফ সিল্ক, লিনেন, অ্যান্ডিসহ বিভিন্ন কাপড়ের ব্যবহার রয়েছে কালেকশনটিতে। দুর্গাপূজার বিশেষ কালেকশনটি পাওয়া যাবে সেইলরের ঢাকা ও ঢাকার বাইরের সব শোরুমে। কেনা যাবে ওয়েবসাইটে (https://www.sailor.clothing) লগইন করেও।

অঞ্জন’স

এসেছে বিভিন্ন ধরনের নকশা ও প্যাটার্নে বৈচিত্র্যময় পোশাক। এ আয়োজনকে ঘিরে করা হয়েছে বিভিন্ন ডিজাইনের শাড়ি, সালোয়ার-কামিজ, পাঞ্জাবি, লেডিস ফতুয়া, কুর্তা ও টপস। ছোটদের জন্যও থাকছে বিভিন্ন ধরনের রঙিন পোশাক। পোশাকে আরামের কথা চিন্তা করে বেছে নেয়া হয়েছে কটন, লিনেন কটন, জর্জেট ও সিল্কসহ নতুন ধরনের উইভিং ডিজাইনের কাপড়। পোশাক ছাড়াও থাকছে বিভিন্ন ধরনের গয়না ও হোমটেক্সটাইল। আউটলেট ছাড়াও এবারের আয়োজনগুলো অনলাইনে www.anjans.com-এ পাওয়া যাবে।

সারা

পূজার কালেকশনে এবারের থিম হচ্ছে- ফুলেল শোভা। পোশাকের ডিজাইনে থাকছে ফ্লোরাল প্রিন্টের আধিপত্য। পাশাপাশি সিজনটা এখন গরম এবং বৃষ্টির মিশেলে তাই কাপড়ের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়েছে সুতি এবং ভিসকস; পাশাপাশি কিছু ক্ষেত্রে সিল্কের ব্যবহারও থাকছে। আউটলেটের পাশাপাশি ‘সারা’-এর নিজস্ব ওয়েবসাইট www.saralifestyle.com.bd-এ পাবেন।

লা রিভ

পূজা-সংগ্রহ নিয়ে লা রিভের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মন্নুজান নার্গিস জানান, বছরের এ সময়ে শুধু প্রকৃতিতেই রং বদল হয় না, বাঙালির সার্বজনীন সংস্কৃতির নানা উপাদানও পূজার পোশাকে উঠে আসে। তাই এ কালেকশনে গ্রামবাংলার উঠান-আল্পনা, টেপাপুতুল, পেঁচা, পদ্ম, শিউলি, জবা, গাঁদা ও সবুজ লতার বনের পাশাপাশি ট্রাইবাল মেডালিয়ন, ফল ল্যান্ডস্কেপ, আরবাসকিউ গ্রাফিক্স, দামাস্ক রিপিট, শেভরন ও বেঙ্গল স্ট্রাইপস নিয়ে কাজ করেছে লা রিভ। কাপড় হিসেব কটন, ভিসকোস, আর্ট সিল্ক, টু-টোন জ্যাকার্ড, ফেইলি, রেয়ন, কটন ব্লেন্ড, জর্জেট এবং সাটিন বেছে নেয়া হয়েছে, যা শরতের ক্যাজুয়াল স্টাইল এবং পূজার পার্টি দুটো অনুষ্ঠানেই মানিয়ে যাবে। লা রিভের পণ্য অনলাইনে কিনতে www.lerevecraye.com এবং www.facebook.com/ lerevecraye

শারদীয় আয়োজন

 লাইফস্টাইল ডেস্ক 
২০ অক্টোবর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
ছবি সংগৃহীত
ছবি সংগৃহীত

ফ্রেশ টিস্যুর অভিনব উদ্যোগ

গত কয়েকদিনের মধ্যে বনানী ১১ ব্রিজ, শাপলা চত্বর বা রাজসিক বিহার-এর পাশ দিয়ে গিয়েছেন কি? আশপাশ দিয়ে গিয়ে থাকলে হয়তো দেখেছেন, পুরো ব্রিজ-ই আলোকিত হয়ে আছে এক মায়াবী গোলাপি আলোয়।

দেখে নিশ্চয়ই জানতে ইচ্ছা করেছে, হঠাৎ করে কেন এ আলোকসজ্জা? এর উত্তরটি হচ্ছে- পিঙ্ক ইলুমিনেশন। বিশ্বের অনেক দেশেই ‘ইন্টারন্যাশনাল ব্রেস্ট ক্যান্সার অ্যাওয়ারনেস মান্থ’ উপলক্ষে তাদের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা গোলাপি আলোয় আলোকিত করে রাখে ব্রেস্ট ক্যান্সার নিয়ে সচেতনতা তৈরির জন্য। বাংলাদেশে এবার-ই প্রথমবারের মতো ফ্রেশ টিস্যু আয়োজন করল এ উদ্যোগের। শহরের বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা গোলাপি রঙে আলোকিত হয়ে আছে ব্রেস্ট ক্যান্সারবিষয়ক সচেতনতা ছড়ানোর জন্য।

তাদের আয়োজন শুধু এ আলোকসজ্জাতেই থেমে যায়নি। এর পাশাপাশি ‘ফ্রেশ টিস্যু : একটি চেকআপ আর দেরি নয়; মুছতে গ্লানি, এখনই সময়’- এ স্লোগান সামনে নিয়ে তারা নির্মাণ করেছে, কিছু সচেতনতামূলক বিজ্ঞাপন চিত্রও; যার মূল উদ্দেশ্য ছিল- দেশের নারীদের নিয়মিত ব্রেস্ট ক্যান্সারের মেডিকেল চেকআপে উৎসাহী করা এবং এর ভয়াবহতা সম্পর্কে সবাইকে জানানো। ইতোমধ্যেই অনলাইন দুনিয়ায় প্রশংসায় ভাসছে ফ্রেশ টিস্যুর এ উদ্যোগ।

ফ্রেশ টিস্যু দেশের ৮টি বিভাগীয় সদরে আয়োজন করেছে এক মাসব্যাপী একটি মেডিকেল ক্যাম্পেইন। যেখান থেকে এ ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণকারী এক হাজার নারী পাবেন, ব্রেস্ট ক্যান্সারের ফ্রি প্রাইমারি চেকআপ অ্যান্ড কন্সালট্যান্সি সার্ভিস। ফ্রেশ টিস্যু www.muchhejaakglani.com নামে একটি ওয়েবসাইট লঞ্চ করেছে, যেখানে ব্রেস্ট ক্যান্সারসম্পর্কিত সব প্রাথমিক তথ্য একসঙ্গে রাখা হয়েছে।

পূজা উদযাপনে সঙ্গী হোক উবার

পূজায় এক মণ্ডপ থেকে অন্য মণ্ডপে যেতে কিংবা পুরান ঢাকায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা ঘুরে বেড়াতে চাইলে উবার রেন্টালস হতে পারে ভালো একটি অপশন। কাছের মানুষ বা বন্ধুদের উপহার পাঠানো হল পূজার খুশি ভাগাভাগি করে নেয়ার সবচেয়ে ভালো উপায়। উপহার পাঠাতে ব্যবহার করতে পারেন ‘উবার কানেক্ট’। যে ঠিকানায় আপনার পার্সেল পাঠাতে চান তা উবার অ্যাপের ‘হোয়ার টু’ বক্সে লিখুন এবং ‘মোটো ডেলিভারি’-তে ক্লিক করুন। আপনার দোরগোড়া থেকে উপহার পৌঁছে যাবে আপনার প্রিয়জনের কাছে।

আপনি চাইলে পরিবার বা বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরে আসতে পারেন ঢাকার বাইরে থেকেও। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে সাভার বা গাজীপুরে আছে অনেক রিসোর্ট।

রেনেসন্স্ ঢাকা গুলশান হোটেলে পূজার আয়োজন

এ পূজার ছুটিতে রেনেসন্স্ ঢাকা গুলশান হোটেল প্রথমবারের মতো অতিথিদের জন্য তারবাহার মাল্টি কুইজিন রেস্টুরেন্ট-এ পূজার ভোজের আয়োজন করেছে। পূজার ভোজের আয়োজন নাম শুনেই বোঝা যায়, ভিন্ন রকমের স্বাদ এবং মজাদার খাবারের আয়োজন আছে যেমন খাসির কষা মাংস, পনির আমড়া কাসুন্দি, বেগুন বাহার, মাটন দম বিরিয়ানি, বাসন্তী পোলাও, মুগ ডাল ভুনা খিচুড়ি আর মিষ্টান্নতে থাকছে মজাদার রসগোল্লা, নারিকেলের নাড়ু, মুড়ির মোয়া ও সন্দেশসহ আরও অনেক কিছু। আর এ অফারটি চলবে ২৩ অক্টোবর থেকে ২৬ অক্টোবর পর্যন্ত। বিস্তারিত জানতে ০১৭০৪১১২৬৪৬-এ নম্বরে যোগাযোগ করুন।

রঙ বাংলাদেশ

স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্বল্প পরিসরে ১১ অক্টোবর মাদারীপুরের হরিকুমারিয়াল জাইমান টাওয়ারে নতুন শাখার উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন রঙ বাংলাদেশ-এর কর্ণধার সৌমিক দাস ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক-সার্বিক ইন্টারন্যাশনাল, সভাপতি মাদারীপুর চেম্বার অব কমার্স হাফিজুর রহমান খান। রঙ বাংলাদেশ-এর যেসব পণ্য রাজধানী ঢাকায় পাওয়া যায় তা এখন মাদারীপুরেও পাওয়া যাবে। ফলে বাঁচবে সময় আর ভ্রমণের ঝক্কি।

পরিবর্তিত সময়ের বাস্তবতায় এখন অনলাইনে পোশাক কিনতে এবং হোম ডেলিভারি সুবিধা পেতে ভিজিট করুন ওয়েবসাইট www.rang-bd.com।

ঢাকা রিজেন্সি-তে শারদীয় উৎসব

স্বাস্থ্যবিধি মেনে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজায় সবার জন্যই থাকছে ২২ অক্টোবর থেকে ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত ঢাকা রিজেন্সি’র জমকালো আয়োজন! রিজেন্সি হোটেল অ্যান্ড রিসোর্ট অতিথিদের জন্য তার জনপ্রিয় রেস্টুরেন্ট গ্রান্ডিওস-এ বিশেষ ভোজের আয়োজন রেখেছে। বিস্তারিত +৮৮০১৭১৩৩৩২৬৬১।

পূজায় মেঘ

ফ্যাশন হাউস মেঘ দুর্গাপূজা উপলক্ষে এনেছে ছেলেদের পাঞ্জাবি, টি-শার্ট, মেয়েদের কামিজ, শিশুদের ফতুয়া, ফ্রক ও টি-শার্ট। আরামদায়ক কাপড়ে উজ্জ্বল রঙে এসব পোশাকের নকশায় ফুটিয়ে তোলা হয়েছে শারদ উৎসবের আমেজ। ফেসবুক : facebook.com/meghfashionbd

বিশ্বরঙ

পোশাক অলংকরণের অনুষঙ্গ হিসেবে প্রকৃতির বিভিন্ন উপাদানকে গ্রাফিক্যাল জ্যামিতিক ফর্মের সমন্বয়ে উপস্থাপন করেছে কাপড়ের মলিন সার্ফেসে। পোশাকের প্যাটার্নেও এসেছে ভিন্নতা। এবার দুর্গাপূজার পোশাকগুলো সিল্ক, হাফ সিল্ক, ধুপিয়ান ও অ্যান্ডিসহ বিভিন্ন কাপড়ের শাড়ি, পাঞ্জাবি, থ্রি-পিস, ফতুয়া, শার্ট ও টি-শার্ট ইত্যাদিতে তুলে ধরা হয়েছে প্রকৃতির উপাদান- গাছ, লতা-পাতা ও ফুল ইত্যাদির গ্রাফিক্যাল জ্যামিতিক ফর্মগুলোর মোটিফ এবং গরমের কথা মাথায় রেখে ব্যবহার করা হয়েছে সুতি ও খাদি কাপড়। অনলাইনে www.bishworang.com

কে ক্র্যাফট

পূজার এ বিশেষ আয়োজনের রং, কাপড়ের মান ও বৈচিত্র্যপূর্ণ ডিজাইন ক্রেতাদের সন্তুষ্ট করবে। কটন, কোটা, লিনেন ও জর্জেট কাপড়ে মোটিফ হিসেবে পৌরাণিক, মানডালা, মাধুবনী, ফুল ও প্রচলিত ফোক স্থান পেয়েছে পোশাকে। মাধ্যম হিসেবে স্ক্রিন প্রিন্ট, ব্লকপ্রিন্ট, হাতের কাজ (ভরাট, কাঁথা ও কাশ্মীরি) অ্যাম্ব্রয়ডারি ও কারচুপি সংযুক্ত হয়েছে। অনলাইন স্টোর kaykraft.com

সেইলর

পোশাক অলংকরণের অনুষঙ্গ হিসেবে পার্ল ও ফ্লোরাল প্রিন্টের জ্যামিতিক ফর্ম নান্দনিক উপস্থাপনায় তুলে ধরা হয়েছে কাপড়ের জমিনে। পোশাকের প্যাটার্নেও থাকছে বরাবরের মতো নতুনত্ব। সিল্কের প্রাধান্য বেশি থাকলেও হাফ সিল্ক, লিনেন, অ্যান্ডিসহ বিভিন্ন কাপড়ের ব্যবহার রয়েছে কালেকশনটিতে। দুর্গাপূজার বিশেষ কালেকশনটি পাওয়া যাবে সেইলরের ঢাকা ও ঢাকার বাইরের সব শোরুমে। কেনা যাবে ওয়েবসাইটে (https://www.sailor.clothing) লগইন করেও।

অঞ্জন’স

এসেছে বিভিন্ন ধরনের নকশা ও প্যাটার্নে বৈচিত্র্যময় পোশাক। এ আয়োজনকে ঘিরে করা হয়েছে বিভিন্ন ডিজাইনের শাড়ি, সালোয়ার-কামিজ, পাঞ্জাবি, লেডিস ফতুয়া, কুর্তা ও টপস। ছোটদের জন্যও থাকছে বিভিন্ন ধরনের রঙিন পোশাক। পোশাকে আরামের কথা চিন্তা করে বেছে নেয়া হয়েছে কটন, লিনেন কটন, জর্জেট ও সিল্কসহ নতুন ধরনের উইভিং ডিজাইনের কাপড়। পোশাক ছাড়াও থাকছে বিভিন্ন ধরনের গয়না ও হোমটেক্সটাইল। আউটলেট ছাড়াও এবারের আয়োজনগুলো অনলাইনে www.anjans.com-এ পাওয়া যাবে।

সারা

পূজার কালেকশনে এবারের থিম হচ্ছে- ফুলেল শোভা। পোশাকের ডিজাইনে থাকছে ফ্লোরাল প্রিন্টের আধিপত্য। পাশাপাশি সিজনটা এখন গরম এবং বৃষ্টির মিশেলে তাই কাপড়ের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়েছে সুতি এবং ভিসকস; পাশাপাশি কিছু ক্ষেত্রে সিল্কের ব্যবহারও থাকছে। আউটলেটের পাশাপাশি ‘সারা’-এর নিজস্ব ওয়েবসাইট www.saralifestyle.com.bd-এ পাবেন।

লা রিভ

পূজা-সংগ্রহ নিয়ে লা রিভের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মন্নুজান নার্গিস জানান, বছরের এ সময়ে শুধু প্রকৃতিতেই রং বদল হয় না, বাঙালির সার্বজনীন সংস্কৃতির নানা উপাদানও পূজার পোশাকে উঠে আসে। তাই এ কালেকশনে গ্রামবাংলার উঠান-আল্পনা, টেপাপুতুল, পেঁচা, পদ্ম, শিউলি, জবা, গাঁদা ও সবুজ লতার বনের পাশাপাশি ট্রাইবাল মেডালিয়ন, ফল ল্যান্ডস্কেপ, আরবাসকিউ গ্রাফিক্স, দামাস্ক রিপিট, শেভরন ও বেঙ্গল স্ট্রাইপস নিয়ে কাজ করেছে লা রিভ। কাপড় হিসেব কটন, ভিসকোস, আর্ট সিল্ক, টু-টোন জ্যাকার্ড, ফেইলি, রেয়ন, কটন ব্লেন্ড, জর্জেট এবং সাটিন বেছে নেয়া হয়েছে, যা শরতের ক্যাজুয়াল স্টাইল এবং পূজার পার্টি দুটো অনুষ্ঠানেই মানিয়ে যাবে। লা রিভের পণ্য অনলাইনে কিনতে www.lerevecraye.com এবং www.facebook.com/ lerevecraye