আনন্দ ঘরোয়া সাজে
jugantor
আনন্দ ঘরোয়া সাজে

  আফরোজা পারভীন  

১১ মে ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

রূপ বিশেষজ্ঞ ও রেড বিউটি স্যালনের সিইও

ঈদের সাজটা চমকপ্রদ না হলে ঈদ উৎসবটা ম্লান হয়ে যায়। যদিও এবার করোনার কারণে ঘরেই কাটবে ঈদ। ঘরোয়া ঈদে ভিন্নমাত্রার খুশি নিয়ে আসতে স্নিগ্ধ ও আকর্ষণীয় সাজে কাটাতে পারেন ঈদের দিনটি। তবে সাজটা যেন অবশ্যই ঘরোয়া পরিবেশের সঙ্গে মানানসই হয়। কীভাবে? পরামর্শ দিচ্ছেন- রেড বিউটি স্যালনের সিইও ও রূপ বিশেষজ্ঞ আফরোজা পারভীনের পরামর্শ নিয়ে লিখেছেন- কেয়া আমান।

গত বছরের মতো এবারও কোথাও যাওয়ার তাড়া নেই। বিউটি এক্সপার্ট আফরোজা পারভীন বলেন, ‘পরিস্থিতির সঙ্গে আমাদের সবাইকেই মানিয়ে নিতে হয়। করোনার কারণে ঘুরতে যাওয়ার পরিকল্পনা না থাকলেও অনেকে হয়তো অনলাইনে কেনাকাটার সুযোগটি গ্রহণ করেছেন। পার্লারগুলো ঈদের আগে খোলা আছে। পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধি মেনে সেবা দেওয়া হচ্ছে। চাইলে ঈদের আগে পার্লারে গিয়ে ফেসিয়াল, পেডিকিউর, মেনিকিউর, হেয়ার ট্রিটমেন্টসহ বিভিন্ন সার্ভিস নিতে পারেন। যারা করোনা আতঙ্কে পার্লারে যেতে ইচ্ছুক নন তারা ঈদের আগের দুই-একদিন ঘরোয়া রূপচর্চা করুন। এতে ঈদের দিন স্কিন ফ্রেশ থাকবে। সাজটা সুন্দর বসবে। ফলে দেখতে সতেজ ও øিগ্ধ লাগবে। যেহেতু ঘরেই থাকা হবে, তাই খুব বেশি মেকআপ করার প্রয়োজন নেই।

সকালের স্নিগ্ধ সাজ

সকালের সাজ সম্পর্কে রূপবিশেষজ্ঞ আফরোজা পারভীনের পরামর্শ হচ্ছে, ‘সকালে কাজের চাপ বেশি থাকে। কাজের ও সাজের সুবিধার জন্য এ বেলায় সাজে ন্যাচারাল লুক বজায় রাখুন। যেটি একদম দুপুর পর্যন্ত আপনাকে øিগ্ধ রাখবে। সকালে খুব ভারি মেকআপ না করে প্রয়োজন মতো কন্সিলার ব্যবহার করে তারপরে পাউডার মেখে চেহারায় একটা সতেজভাব আনা যেতে পারে।’ সকালের দিকে চাইলে চুলটা ছেড়ে রাখতে পারেন। চুল ছেড়ে কিংবা খোঁপা করে চুলে গুঁজে দিতে পারেন বারান্দায় ফুটে থাকা কোনো ফুল। সঙ্গে হালকা গহনা।

দুপুরে হালকা সাজে

সকালের সাজের ওপরেই দুপুরে আমরা ফেস পাউডার বুলিয়ে নিতে পারি। চিকবোনে সকালের চেয়ে ব্লাশন একটোন বাড়িয়ে দিতে পারি। ব্লাশনের টোন হতে পারে গোলাপি, পিচের মতো কালারগুলো। ব্লাশন সাজে গ্লো আনে। গরমে দুপুরে আইশ্যাডো ব্যবহার না করে শুধু ওয়াটার প্রুফ মাশকাড়া ব্যবহার করুন। ঠোঁটে ন্যুড, গোলাপি কিংবা কফি রঙের লিপস্টিক ভালো লাগবে এ বেলায়।

রাতে গর্জিয়াস ঘরোয়া সাজে

ঘরে থাকলেও রাতে একটু ইচ্ছামতো বা গাঢ় সাজে সাজা যেতেই পারে। রাতের সাজে পোশাকটা গর্জিয়াস হলে মেকআপটা পরিচ্ছন্ন ও উজ্জ্বল রাখুন। প্রথমেই মেকআপ দীর্ঘস্থায়ী করতে প্রাইমার লাগিয়ে নিন। এরপর স্কিন টোনের চেয়ে একশেড উজ্জ্বল ফাউন্ডেশন ব্লেন্ড করে দিন। সামান্য পানি দিয়ে বেইজটা মিলয়ে দুই মিনিট পর হালকা করে কমপ্যাক্ট পাউডার লাগিয়ে বেইজ বসিয়ে দিন। এরপর শিমার দিয়ে কনট্যুরিং করে ব্লাশন দিন। চোখে গোল্ডেন এবং ব্ল্যাক কম্বিনেশনে আইশ্যাডো ব্যবহার করতে যেতে পারে।

আনন্দ ঘরোয়া সাজে

 আফরোজা পারভীন 
১১ মে ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

রূপ বিশেষজ্ঞ ও রেড বিউটি স্যালনের সিইও

ঈদের সাজটা চমকপ্রদ না হলে ঈদ উৎসবটা ম্লান হয়ে যায়। যদিও এবার করোনার কারণে ঘরেই কাটবে ঈদ। ঘরোয়া ঈদে ভিন্নমাত্রার খুশি নিয়ে আসতে স্নিগ্ধ ও আকর্ষণীয় সাজে কাটাতে পারেন ঈদের দিনটি। তবে সাজটা যেন অবশ্যই ঘরোয়া পরিবেশের সঙ্গে মানানসই হয়। কীভাবে? পরামর্শ দিচ্ছেন- রেড বিউটি স্যালনের সিইও ও রূপ বিশেষজ্ঞ আফরোজা পারভীনের পরামর্শ নিয়ে লিখেছেন- কেয়া আমান।

গত বছরের মতো এবারও কোথাও যাওয়ার তাড়া নেই। বিউটি এক্সপার্ট আফরোজা পারভীন বলেন, ‘পরিস্থিতির সঙ্গে আমাদের সবাইকেই মানিয়ে নিতে হয়। করোনার কারণে ঘুরতে যাওয়ার পরিকল্পনা না থাকলেও অনেকে হয়তো অনলাইনে কেনাকাটার সুযোগটি গ্রহণ করেছেন। পার্লারগুলো ঈদের আগে খোলা আছে। পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধি মেনে সেবা দেওয়া হচ্ছে। চাইলে ঈদের আগে পার্লারে গিয়ে ফেসিয়াল, পেডিকিউর, মেনিকিউর, হেয়ার ট্রিটমেন্টসহ বিভিন্ন সার্ভিস নিতে পারেন। যারা করোনা আতঙ্কে পার্লারে যেতে ইচ্ছুক নন তারা ঈদের আগের দুই-একদিন ঘরোয়া রূপচর্চা করুন। এতে ঈদের দিন স্কিন ফ্রেশ থাকবে। সাজটা সুন্দর বসবে। ফলে দেখতে সতেজ ও øিগ্ধ লাগবে। যেহেতু ঘরেই থাকা হবে, তাই খুব বেশি মেকআপ করার প্রয়োজন নেই।

সকালের স্নিগ্ধ সাজ

সকালের সাজ সম্পর্কে রূপবিশেষজ্ঞ আফরোজা পারভীনের পরামর্শ হচ্ছে, ‘সকালে কাজের চাপ বেশি থাকে। কাজের ও সাজের সুবিধার জন্য এ বেলায় সাজে ন্যাচারাল লুক বজায় রাখুন। যেটি একদম দুপুর পর্যন্ত আপনাকে øিগ্ধ রাখবে। সকালে খুব ভারি মেকআপ না করে প্রয়োজন মতো কন্সিলার ব্যবহার করে তারপরে পাউডার মেখে চেহারায় একটা সতেজভাব আনা যেতে পারে।’ সকালের দিকে চাইলে চুলটা ছেড়ে রাখতে পারেন। চুল ছেড়ে কিংবা খোঁপা করে চুলে গুঁজে দিতে পারেন বারান্দায় ফুটে থাকা কোনো ফুল। সঙ্গে হালকা গহনা।

দুপুরে হালকা সাজে

সকালের সাজের ওপরেই দুপুরে আমরা ফেস পাউডার বুলিয়ে নিতে পারি। চিকবোনে সকালের চেয়ে ব্লাশন একটোন বাড়িয়ে দিতে পারি। ব্লাশনের টোন হতে পারে গোলাপি, পিচের মতো কালারগুলো। ব্লাশন সাজে গ্লো আনে। গরমে দুপুরে আইশ্যাডো ব্যবহার না করে শুধু ওয়াটার প্রুফ মাশকাড়া ব্যবহার করুন। ঠোঁটে ন্যুড, গোলাপি কিংবা কফি রঙের লিপস্টিক ভালো লাগবে এ বেলায়।

রাতে গর্জিয়াস ঘরোয়া সাজে

ঘরে থাকলেও রাতে একটু ইচ্ছামতো বা গাঢ় সাজে সাজা যেতেই পারে। রাতের সাজে পোশাকটা গর্জিয়াস হলে মেকআপটা পরিচ্ছন্ন ও উজ্জ্বল রাখুন। প্রথমেই মেকআপ দীর্ঘস্থায়ী করতে প্রাইমার লাগিয়ে নিন। এরপর স্কিন টোনের চেয়ে একশেড উজ্জ্বল ফাউন্ডেশন ব্লেন্ড করে দিন। সামান্য পানি দিয়ে বেইজটা মিলয়ে দুই মিনিট পর হালকা করে কমপ্যাক্ট পাউডার লাগিয়ে বেইজ বসিয়ে দিন। এরপর শিমার দিয়ে কনট্যুরিং করে ব্লাশন দিন। চোখে গোল্ডেন এবং ব্ল্যাক কম্বিনেশনে আইশ্যাডো ব্যবহার করতে যেতে পারে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন