বিশেষজ্ঞরা যা বললেন

চুক্তিপত্রে কী এবং কোথায় স্বাক্ষর করছেন

অধ্যাপক ইশরাত শামীম

  যুগান্তর ডেস্ক    ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

নারী গৃহশ্রমিকরা সৌদি আরবসহ অনেক দেশে গৃহকর্মী হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। এসব অভিবাসী নারী শ্রমিকদের পূর্বে অভিবাসন ব্যয় ২০ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছিল। এখন বিনা খরচে তাদের যাওয়ার সুযোগ রয়েছে। এরপরও যদি কোনো এজেন্সি অর্থ আদায় করেন তাহলে সেই এজেন্সিকে শাস্তি দেয়া দরকার। অভিবাসী নারী শ্রমিকদের অনেককেই বাংলাদেশে একটা চুক্তি করানো হয়। যদি ওখানে পৌঁছানোমাত্র আরেকটা চুক্তিপত্রে তাকে স্বাক্ষর করানো হয়, সেটাও তাকে জানানো, চুক্তিপত্রে তিনি কি এবং কোথায় স্বাক্ষর করছেন। যখন এসব বিষয় নিয়ে আদালতে মামলা হয় তখন ওই নারী গৃহকর্মী ভয়ে আদালতকে সত্যি কথা বলেন না। পুরো বিষয়টিই তিনি অস্বীকার করেন। মধ্যপ্রাচ্যের যেসব দেশে নারী গৃহকর্মীদের কর্মক্ষেত্রে এই ধরনের সমস্যার মুখোমুখি হতে হয় সেসব দেশে নতুন গৃহকর্মী না পাঠিয়ে হংকং, জাপান, ইউরোপের বিভিন্ন দেশে পাঠানোর চেষ্টা করা দরকার। আরেকটি বিষয় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়কে গুরুত্বের সঙ্গে নেয়া দরকার। অভিবাসী নারী শ্রমিক কোন দেশে যাচ্ছেন, কি কাজে যাচ্ছেন, কার মাধ্যমে যাচ্ছেন, কি কারণে তারা ফেরত আসছেন, বৈদেশিক মুদ্রা তারা কতটা পাঠাচ্ছেন, এ ক্ষেত্রে তাদের অবদান কতখানি তা সঠিক ডাটাবেজে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে থাকা দরকার। রিক্রুটিং এজেন্সি কাদের পাঠাচ্ছে, কি কাজে পাঠাচ্ছে এবং তাদের কাছ থেকে বাড়তি অর্থ নিচ্ছে কিনা ইত্যাদি বিষয়গুলো সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে মনিটরিং করা দরকার।

প্রেসিডেন্ট, সেন্টার ফর ওমেন অ্যান্ড চিলড্রেন স্টাডিজ

pran
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
bestelectronics

mans-world

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.