বিশেষজ্ঞরা যা বললেন: অর্থনৈতিক উন্নয়নে নারীর অবদান অনেক

প্রকাশ : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক   

ড. নুরুল ইসলাম 
পরিচালক, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো

অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য নারীর অবদান অনেক। গত ১০ বছরে নারী অভিবাসীর সংখ্যা বেড়েছে। নারী অভিবাসন বন্ধ করলে তা মানবপাচারে পরিণত হবে। ১৭১টি দেশে অভিবাসন হয়। তার মধ্যে ৭টি দেশে মূল অভিবাসন হয়। দালালদের মাধ্যমে টাকা দিয়ে তারা চাকরি নিয়ে যায়। তারা এ তথ্য জানেন না, বিনা পয়সায় যাওয়া যায়। এ তথ্যও প্রচার করা দরকার।

প্রবাসে যাওয়ার আগেই তারা আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হন। এরপর কাজ করতে গিয়ে তারা বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হন। এক মাসব্যাপী প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা চালু থাকলেও অনেকে তা ঠিকমতো গ্রহণ করেন না। রিক্রুটিং এজেন্সির মাধ্যমে আবাসিক প্রশিক্ষণ না নিয়েই চলে যান। দালালও তাকে সত্য কথা বলে না। ফলে ভাষাগত সমস্যা, খাবারের অভ্যস্ততা না থাকা, আবার অনেকে বাড়ি ছেড়ে থাকায় অভ্যস্ত না হওয়ার কারণে ফিরে আসতে চান। অনেকে পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাওয়াতে পারেন না।

যে মালিক ওই গৃহকর্মীকে নিচ্ছেন তিনি দুই হাজার ডলার খরচ করার বিনিময়ে নিচ্ছেন। তিনি চাইবেন না এতটাকা খরচ করে লোক নিয়ে তাকে মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার আগে ফেরত পাঠাতে। নিয়োগ প্রক্রিয়ার নিয়ম যথাযথভাবে অনুসরণ করলে নারী অভিবাসীদের সমস্যার দিকটি কমবে। এ জন্য নারী অভিবাসনকে নিরাপদ করার জন্য সরকার উদ্যোগ নিয়েছে।

সারা দেশে ৪৮টি জায়গায় প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। এ তথ্যগুলো প্রচারের ব্যাপারে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি সংস্থা, গণমাধ্যমকেও সোচ্চার হতে হবে।