ধূমপান ছাড়ার কৌশল

  ডা. মোহাম্মদ আজিজুর রহমান ১৫ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ধূমপান ছাড়ার কৌশল

দেশে তামাক শুধু ধূমপানে ব্যবহৃত হয় না, সঙ্গে জর্দা, গুলের মতো ভয়াবহভাবে তামাকের ব্যবহার হয়। তামাকের মধ্যে ৭০টি ক্যান্সার তৈরির উপাদানসহ প্রায় ৭০০০টি বিষাক্ত উপাদান রয়েছে, অথচ অবলীলায় তামাকের ব্যবহার চলছে। দেশে এখন পুরুষের পাশাপাশি উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে নারী ধূমপায়ীদের সংখ্যা।

সিগারেটের মূল নেশাদায়ক উপাদান নিকোটিন এক প্রকারের স্নায়ুবিষ (নিউরোটক্সিন), যা একধরনের অ্যাসিটাইলকোলিন রিসেপ্টরের (কোলিনার্গিক অ্যাসিটাইলকোলিন রিসেপ্টর) ওপর কাজ করে। কিন্তু তামাকের ধোঁয়াতে নিকোটিন ছাড়াও নানা ক্যান্সারপ্রদায়ী পদার্থ থাকে, যেমন বেঞ্জোপাইরিন ইত্যাদি বহুচক্রী আরোমাটিক যৌগ। তামাক বা নিকোটিন গ্রহণ করলে তা শরীরের প্রতিটি অংশে প্রভাব ফেলে।

এটি ব্যবহারের ফলে অ্যাড্রিনালিন ক্ষরণ বেড়ে গিয়ে শরীরের উত্তাপ, হৃৎপিণ্ডের গতি ও রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয়। ধূমপায়ীদের শরীরে বিশেষত মুখ, স্তন, ফুসফুস, গর্ভাশয়, পাকস্থলি, কিডনি বা প্যানক্রিয়াসে ক্যান্সারের প্রবল আশঙ্কা থাকে। যারা অন্যভাবে তামাক ব্যবহার করে তাদের ক্ষেত্রে মুখ, পাকস্থলি, ইসোফেগাস, ল্যারিংস ও প্যানক্রিয়াসে ক্যান্সার হতে পারে।

দীর্ঘমেয়াদি তামাকের ব্যবহারে আরও অনেক শারীরিক সমস্যা সৃষ্টি হয়। ত্বক ও দাঁতে বার্ধক্যের চিহ্ন দেখা দেয়, চোখে ছানি পড়ে, রক্তচাপের তারতম্য ঘটে, কোলেস্টেরল, শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা, হার্টের গোলোযোগ, স্ট্রোকের সম্ভাবনা এবং গর্ভবতী মহিলাদের গর্ভপাত বা গর্ভধারণের সমস্যা দেখা দেয়।

এগুলো ছাড়াও ডায়াবেটিস, রিউম্যাটয়েড আর্থারাইটিস ও অস্টিওপোরোসিসের ঝুঁকি বেড়ে যায়। হিসেবমতো একজন ধূমপায়ী ব্যক্তির জীবনসীমা কোনো অধূমপায়ীর তুলনায় সাধারণত ১৫ বছর কমে যায়।

সেকেন্ড হ্যান্ড স্মোক বা প্যাসিভ স্কোকিং থেকেও শরীরে কুপ্রভাব পড়ে, যাতে অনেক সময় মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। দীর্ঘদিন ধরে পরোক্ষ ধূমপানের কারণে লাং, ব্রেস্ট ও লিভারে ক্যান্সারের সম্ভাবনা থাকে। এর জন্য স্ট্রোক ও হার্ট অ্যাটাকও হয়। প্রচলিত বিশ্বাসের বিপরীতে বলা চলে, সেকেন্ড হ্যান্ড স্মোকের পরিণতিতে কোনো ‘নিরাপদ মাত্রা পাওয়া যায় না। ধূমপানের পরিণতি অতীব ভয়াবহ। অকাল মৃত্যু অনিবার্য।

লেখক : বক্ষব্যাধি বিশেষজ্ঞ, ইবনেসিনা ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড কনসাল্টেশান সেন্টার, লালবাগ, ঢাকা

[email protected]

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×