বিশ্বসেরা হাসপাতালের বৈশিষ্ট্য

  যুগান্তর ডেস্ক ২৬ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

দেশের বাইরে চিকিৎসার প্রসঙ্গ এলে যে নাম ভেসে ওঠে তা হল ব্যাংকক হাসপাতাল। থাইল্যান্ডের এই হাসপাতালটিতে চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত আছেন বাংলাদেশি চিকিৎসক ডা. শক্তি রঞ্জন পাল।
বাংলাদেশি চিকিৎসক ডা. শক্তি রঞ্জন পাল। ছবি: যুগান্তর

দেশের বাইরে চিকিৎসার প্রসঙ্গ এলে যে নাম ভেসে ওঠে তা হল ব্যাংকক হাসপাতাল। থাইল্যান্ডের এই হাসপাতালটিতে চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত আছেন বাংলাদেশি চিকিৎসক ডা. শক্তি রঞ্জন পাল।

ডা. শক্তি রঞ্জন পাল বলেন, বিদেশে চিকিৎসা নিতে এসে বাংলাদেশিরা মূলত ভাষাগত জটিলতায় পড়েন। এই হাসপাতালে ‘বাংলাদেশ মেডিকেল সার্ভিস’ নামে একটি আলাদা এরিয়া এবং কাউন্টার রয়েছে। চিকিৎসা প্রযুক্তিতে সিটি স্ক্যান, এমআরআই, পেট-সিটির মতো টপ টেকনোলজি রয়েছে ব্যাংকক হাসপাতালে। থাইল্যান্ড, কম্বোডিয়া ও চীনের ৪৯টি সহযোগী বা চেইন হাসপাতালের ‘হেড কোয়ার্টার’ এ হাসপাতাল।

হৃদরোগ নির্ণয়ে সিটি এনজিওগ্রামের জন্য রয়েছে ২৫৬-স্লাইস কার্ডিয়াক সিটি মেশিন। স্পেশালিটি হচ্ছে, অল আরটারি গ্রাফট। হার্টের বাইপাস সার্জারিতে সাধারণত পা থেকে ভেইন নিয়ে হার্টে লাগিয়ে দেয়া হয়। সেগুলো ১০ থেকে ১৫ বছরের মধ্যে আবার বন্ধ হয়ে যায়। কারণ পায়ের ভেইন হার্টের সঙ্গে ভালো ম্যাচ করে না। বুকের বা পাকস্থলীর কিছু আরটারি আছে, যেগুলো তুলনামূলক বেশি ভালো। সেগুলো নেয়াও খুব কঠিন, এর জন্য আলাদা প্রযুক্তির প্রয়োজন হয়।

এখানকার ক্যান্সারের ডায়াগনোসিস পদ্ধতি উন্নত মানের। কমন টেস্টে যখন ক্যান্সার ধরা পড়ে না, তখন শতভাগ নিশ্চিত হতে এখানে ব্যবহার করা হয় চতুর্থ প্রজন্মের পেট-সিটি যা থাইল্যান্ডের কেবল এই হাসপাতালেই রয়েছে। পেট-সিটির মাধ্যমে কোথায় এবং কোন ধরনের ক্যান্সার তা নির্ণয় করা হয় ও চিকিৎসা পরবর্তী ফলোআপও করা হয়।

বাংলাদেশে ধানমণ্ডি, বনানী এবং চট্টগ্রামে ব্যাংকক হাসপাতালের অফিস রয়েছে। সেখান থেকে রোগীদের সব ধরনের তথ্য দিয়ে সহায়তা করা হয়। এই অফিসগুলোতে চিকিৎসক রয়েছেন, যারা ব্যাংককে কোন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের অধীনে চিকিৎসা নিতে হবে তা নির্ধারণ করে দেন।

প্রয়োজনে ব্যাংককের চিকিৎসকের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে রোগীর যোগাযোগ করিয়ে দেয়া হয়।

বিশেষত কোনো রোগী ব্যাংককে এসে চিকিৎসা নিয়ে যাওয়ার পরে যদি আবার পরামর্শের প্রয়োজন হয়, তখন রোগীকে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলিয়ে দেয়া হয়। চিকিৎসক টেলি মেডিসিনের মাধ্যমে ব্যবস্থাপত্র দেন। নতুন রোগীদের ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ হেলথ প্রোফাইল করার ব্যবস্থাও আছে। -সুস্থ থাকুন ডেস্ক

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×