হার্ট অ্যাটাক হলে তাৎক্ষণিক করণীয়
jugantor
হার্ট অ্যাটাক হলে তাৎক্ষণিক করণীয়

  অধ্যাপক ডা. মো. তৌফিকুর রহমান ফারুক  

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কারো হার্ট অ্যাটাক হলে দ্রুত কিছু ব্যবস্থা নিলে রোগের ভয়াবহতা কমিয়ে আনা সম্ভব। এ ব্যাপারগুলো সম্পর্কে সবার ধারণা থাকা আবশ্যক।

প্রথমেই ব্যথানাশক ওষুধ খাওয়াতে হবে

বুকে ব্যথা অনুভূত হলে সঙ্গে সঙ্গেই রোগীকে অ্যাসপিরিন জাতীয় ওষুধ খাওয়াতে হবে। অনেক রোগীর অ্যাসপিরিনে এলার্জি থাকতে পারে। সে ক্ষেত্রে ডাক্তার রোগীকে অন্য যে ব্যথানাশক ওষুধ লিখে দিয়েছেন তা খাওয়াতে হবে। ব্যথানাশক ওষুধ চিবিয়ে সেবন করার উপযুক্ত কিনা তা ডাক্তারের কাছ থেকে জেনে নেওয়া ভালো। কারণ গলাধঃকরণ করা ওষুধের তুলনায় চিবিয়ে সেবন করা ওষুধ দ্রুত শরীরের উপর ক্রিয়া করে। চিবিয়ে সেবন করার মতো শক্তি না থাকলে ওষুধ গুঁড়া করে সেবন করতে সাহায্য করতে হবে।

যত তাড়াতাড়ি সম্ভব হাসপাতালে নিতে হবে

দ্রুত নিকটস্থ হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করতে হবে। কয়েকটি হাসপাতালের জরুরি বিভাগের অ্যাম্বুলেন্স নাম্বার তাই সবসময় মুঠোফোনের স্পিড ডায়ালে রেখে দেওয়া উচিত। এ ছাড়া বাসায় একটি খাতায় এবং রোগীর পকেটে চিরকুট বা কার্ড হিসাবে এ নাম্বারগুলো রাখা বুদ্ধিমানের কাজ। এতে প্রয়োজনের সময় ফোন নাম্বার পেতে সুবিধা হবে।

রোগীর শ্বাস নিতে সমস্যা হচ্ছে কিনা খেয়াল করতে হবে

রোগীর নিঃশ্বাস নিতে অসুবিধা হলে শরীরে পর্যাপ্ত বাতাস প্রবেশের ব্যবস্থা করতে হবে। এজন্য শরীরের অতিরিক্ত কাপড় ঢিলেঢালা করে দিতে হবে। অনেক সময় রোগীর জিহ্বা গলায় আটকে যেতে পারে। এ রকম হলে দ্রুত তা ছাড়িয়ে দিতে হবে। বমি এলে যাতে তা শ্বাসনালিতে চলে না যায় সেদিকে খেয়াল রাখা দরকার।

রোগী কোথাও ভ্রমণে গেলে সঙ্গে প্রয়োজনীয় তথ্য সম্বলিত চিরকুট

রাখতে হবে

হৃদরোগীদের অন্যদের তুলনায় হার্ট অ্যাটাক হওয়ার আশঙ্কা বেশি। একাকী কোনো যানবাহনে বা কোনো অনুষ্ঠানে থাকা অবস্থায় হৃদরোগীদের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তখন যাতে দেরি না হয় সেজন্য রোগীর পকেটে সবসময় আগে থেকে একটি কার্ড বা চিরকুট রাখতে হবে। সেখানে তার রক্তের গ্রুপ, কোন কোন ওষুধ ও খাদ্যে অ্যালার্জি রয়েছে ইত্যাদি যাবতীয় তথ্য থাকবে। আজকাল অধিকাংশ মানুষের মুঠোফোন লক করা থাকে। তাই প্রয়োজনীয় কিছু ফোন নাম্বার ও রোগীর ব্যক্তিগত ডাক্তারের নাম্বারও সেই চিরকুটে দিয়ে রাখা উচিত। এতে অপরিচিত মানুষদের সাহায্য করতে সুবিধা হবে।

হৃদস্পন্দন বন্ধ হয়ে গেলে সিপিআর পদ্ধতি প্রয়োগ করতে হবে

হার্ট অ্যাটাক হলে রোগীর কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট বা জ্ঞান হারিয়ে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এক্ষেত্রে দুই হাত দিয়ে রোগীকে সিপিআর (কার্ডিয়াক পালমোনারি রিসাসসিটেশন) দিতে হবে। ইন্টারনেটে সিপিআর কিভাবে দিতে হয় তা নিয়ে অসংখ্য ভিডিও ও আর্টিকেল রয়েছে। সবচেয়ে ভালো হয় যদি অভিজ্ঞ কোনো ডাক্তারের কাছ থেকে হাতে কলমে পদ্ধতিটি শিখে নেওয়া হয়। এতে বিপদের সময় আপনার অভিজ্ঞতা আরেকজনের জীবন বাঁচানোর কারণও হতে পারে। মনে রাখতে হবে, সিপিআর পদ্ধতি কেবল হৃৎপিণ্ড কাজ করা বন্ধ করলেই প্রয়োগ করতে হবে। এ পদ্ধতির মাধ্যমে হৃৎপিণ্ড কাজ না করলেও সাময়িকভাবে দেহে রক্ত চলাচল অব্যাহত থাকে।

বিপদের মধ্যে কী কী করতে হবে তার একটি কর্মপরিকল্পনা তৈরি করে রাখা উচিত

পরিবারে হৃদরোগে আক্রান্ত ব্যক্তি থাকলে সবসময় আসন্ন দুর্ঘটনার জন্য একটি কর্মপরিকল্পনা তৈরি করে রাখা জরুরি। সব বয়সের সদস্যকে এ পরিকল্পনা অনুযায়ী প্রশিক্ষণ দেওয়া যেতে পারে। এতে আসল বিপদের সময় কী পদক্ষেপ নেওয়া লাগবে তা নিয়ে কোনো কালক্ষেপণ হবে না।

লেখক : মেডিসিন ও হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ, মেডিনোভা, মালিবাগ

হার্ট অ্যাটাক হলে তাৎক্ষণিক করণীয়

 অধ্যাপক ডা. মো. তৌফিকুর রহমান ফারুক 
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কারো হার্ট অ্যাটাক হলে দ্রুত কিছু ব্যবস্থা নিলে রোগের ভয়াবহতা কমিয়ে আনা সম্ভব। এ ব্যাপারগুলো সম্পর্কে সবার ধারণা থাকা আবশ্যক।

প্রথমেই ব্যথানাশক ওষুধ খাওয়াতে হবে

বুকে ব্যথা অনুভূত হলে সঙ্গে সঙ্গেই রোগীকে অ্যাসপিরিন জাতীয় ওষুধ খাওয়াতে হবে। অনেক রোগীর অ্যাসপিরিনে এলার্জি থাকতে পারে। সে ক্ষেত্রে ডাক্তার রোগীকে অন্য যে ব্যথানাশক ওষুধ লিখে দিয়েছেন তা খাওয়াতে হবে। ব্যথানাশক ওষুধ চিবিয়ে সেবন করার উপযুক্ত কিনা তা ডাক্তারের কাছ থেকে জেনে নেওয়া ভালো। কারণ গলাধঃকরণ করা ওষুধের তুলনায় চিবিয়ে সেবন করা ওষুধ দ্রুত শরীরের উপর ক্রিয়া করে। চিবিয়ে সেবন করার মতো শক্তি না থাকলে ওষুধ গুঁড়া করে সেবন করতে সাহায্য করতে হবে।

যত তাড়াতাড়ি সম্ভব হাসপাতালে নিতে হবে

দ্রুত নিকটস্থ হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করতে হবে। কয়েকটি হাসপাতালের জরুরি বিভাগের অ্যাম্বুলেন্স নাম্বার তাই সবসময় মুঠোফোনের স্পিড ডায়ালে রেখে দেওয়া উচিত। এ ছাড়া বাসায় একটি খাতায় এবং রোগীর পকেটে চিরকুট বা কার্ড হিসাবে এ নাম্বারগুলো রাখা বুদ্ধিমানের কাজ। এতে প্রয়োজনের সময় ফোন নাম্বার পেতে সুবিধা হবে।

রোগীর শ্বাস নিতে সমস্যা হচ্ছে কিনা খেয়াল করতে হবে

রোগীর নিঃশ্বাস নিতে অসুবিধা হলে শরীরে পর্যাপ্ত বাতাস প্রবেশের ব্যবস্থা করতে হবে। এজন্য শরীরের অতিরিক্ত কাপড় ঢিলেঢালা করে দিতে হবে। অনেক সময় রোগীর জিহ্বা গলায় আটকে যেতে পারে। এ রকম হলে দ্রুত তা ছাড়িয়ে দিতে হবে। বমি এলে যাতে তা শ্বাসনালিতে চলে না যায় সেদিকে খেয়াল রাখা দরকার।

রোগী কোথাও ভ্রমণে গেলে সঙ্গে প্রয়োজনীয় তথ্য সম্বলিত চিরকুট

রাখতে হবে

হৃদরোগীদের অন্যদের তুলনায় হার্ট অ্যাটাক হওয়ার আশঙ্কা বেশি। একাকী কোনো যানবাহনে বা কোনো অনুষ্ঠানে থাকা অবস্থায় হৃদরোগীদের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তখন যাতে দেরি না হয় সেজন্য রোগীর পকেটে সবসময় আগে থেকে একটি কার্ড বা চিরকুট রাখতে হবে। সেখানে তার রক্তের গ্রুপ, কোন কোন ওষুধ ও খাদ্যে অ্যালার্জি রয়েছে ইত্যাদি যাবতীয় তথ্য থাকবে। আজকাল অধিকাংশ মানুষের মুঠোফোন লক করা থাকে। তাই প্রয়োজনীয় কিছু ফোন নাম্বার ও রোগীর ব্যক্তিগত ডাক্তারের নাম্বারও সেই চিরকুটে দিয়ে রাখা উচিত। এতে অপরিচিত মানুষদের সাহায্য করতে সুবিধা হবে।

হৃদস্পন্দন বন্ধ হয়ে গেলে সিপিআর পদ্ধতি প্রয়োগ করতে হবে

হার্ট অ্যাটাক হলে রোগীর কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট বা জ্ঞান হারিয়ে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এক্ষেত্রে দুই হাত দিয়ে রোগীকে সিপিআর (কার্ডিয়াক পালমোনারি রিসাসসিটেশন) দিতে হবে। ইন্টারনেটে সিপিআর কিভাবে দিতে হয় তা নিয়ে অসংখ্য ভিডিও ও আর্টিকেল রয়েছে। সবচেয়ে ভালো হয় যদি অভিজ্ঞ কোনো ডাক্তারের কাছ থেকে হাতে কলমে পদ্ধতিটি শিখে নেওয়া হয়। এতে বিপদের সময় আপনার অভিজ্ঞতা আরেকজনের জীবন বাঁচানোর কারণও হতে পারে। মনে রাখতে হবে, সিপিআর পদ্ধতি কেবল হৃৎপিণ্ড কাজ করা বন্ধ করলেই প্রয়োগ করতে হবে। এ পদ্ধতির মাধ্যমে হৃৎপিণ্ড কাজ না করলেও সাময়িকভাবে দেহে রক্ত চলাচল অব্যাহত থাকে।

বিপদের মধ্যে কী কী করতে হবে তার একটি কর্মপরিকল্পনা তৈরি করে রাখা উচিত

পরিবারে হৃদরোগে আক্রান্ত ব্যক্তি থাকলে সবসময় আসন্ন দুর্ঘটনার জন্য একটি কর্মপরিকল্পনা তৈরি করে রাখা জরুরি। সব বয়সের সদস্যকে এ পরিকল্পনা অনুযায়ী প্রশিক্ষণ দেওয়া যেতে পারে। এতে আসল বিপদের সময় কী পদক্ষেপ নেওয়া লাগবে তা নিয়ে কোনো কালক্ষেপণ হবে না।

লেখক : মেডিসিন ও হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ, মেডিনোভা, মালিবাগ

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন