বাড়িতে সঠিকভাবে রক্তচাপ মাপার পদ্ধতি
jugantor
বাড়িতে সঠিকভাবে রক্তচাপ মাপার পদ্ধতি

  সুস্থ থাকুন ডেস্ক  

০৬ আগস্ট ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বাসায় বা বাড়িতে বা রেজিস্টার্ড চিকিৎসকের চেম্বার ছাড়া অন্যত্র সঠিকভাবে রক্তচাপ মাপার জন্য ২০১৭ সালে আমেরিকান কলেজ অব কার্ডিওলজি, আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন ও অন্যান্য কিছু গুরুত্বপূর্ণ সংস্থাগুলো কিছু সুপারিশ ও দিকনির্দেশনা দিয়েছে যা নিম্নরূপ :

রোগী বা রোগীর আত্মীয়স্বজন যিনি রোগীর রক্তচাপ মাপবেন তাকে অবশ্যই একজন রক্তচাপ মাপতে অভিজ্ঞ মেডিকেল পারসোনেল বা চিকিৎসকের অধীনে রক্তচাপ মাপার প্রশিক্ষণ থাকতে হবে ও নিম্নলিখিত বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করতে হবে।

রক্তচাপ সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান

* রক্তচাপ মাপা সম্পর্কে জ্ঞান ও কোনো যন্ত্র দিয়ে মাপতে হবে সে সম্পর্কে জ্ঞান।

* এ সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে যে, বিভিন্ন মানুষের রক্তচাপ বিভিন্ন রকমের হয়, একই মানুষের রক্তচাপ বিভিন্ন সময় ও বিভিন্ন পরিবেশে বিভিন্ন হতে পারে, এমনকি দুই হাতে দুই রকমের হতে পারে।

* রক্তচাপ মাপার মান কত হলে স্বাভাবিক বা অস্বাভাবিক বা কত হলে কি কি অসুবিধা হতে পারে সে সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে।

রক্তচাপ মাপার যন্ত্র সম্পর্কে ধারণা

* রক্তচাপ মাপতে ভালো ও পরীক্ষিত অটোমেটেড মেশিন ব্যবহার করতে হবে। চিকিৎসকরা সাধারণত যেসব মেশিন রক্তচাপ মাপতে ব্যবহার করেন যেমন-পারদযুক্ত বা এনরয়েড যেখানে রক্তচাপ মাপার জন্য স্টেথোস্কোপ দিয়ে বিশেষ ধরনের শব্দ করোটকো শোনা হয় তা সাধারণ মানুষের পক্ষে আয়ত্ত করা কঠিন, সময় সাপেক্ষ ও অধিক দক্ষতা প্রয়োজন।

* যেসব যন্ত্রে মেমোরি থাকে অর্থাৎ রক্তচাপ মাপার মান সংরক্ষিত থাকে তা ব্যবহার করা ভালো।

* রক্তচাপ মাপার মেশিনের সঠিক মাপের কাফ সাইজ ব্যবহার করতে হবে, কাফের ভেতরে যে বাডার বা বাতাসপূর্ণ হওয়ার থলি থাকে তা অবশ্যই বাহুর ৮০ ভাগের বেশি প্রস্থের জায়গা পূর্ণ করতে হবে। উপযুক্ত কাফ সাইজের চেয়ে ছোট বা বড় কাফ সাইজ রক্তচাপ মাপার ক্ষেত্রে ব্যবহার করলে তা লিপিবদ্ধ রাখতে হবে।

* প্রথমবার রক্তচাপ মাপার সময় অবশ্যই দুই হাতেই রক্তচাপ দেখতে হবে এবং যে হাতে রক্তচাপ বেশি ওই মান লিপিবদ্ধ করতে হবে ও ভবিষ্যতে ওই হাতের রক্তচাপ মাপতে হবে।

রোগীকে সঠিকভাবে প্রস্তুত করতে হবে

* রোগীকে কমপক্ষে ৫ মিনিট আরাম করে চেয়ারে বসতে হবে পা মাটিতে লাগিয়ে। এক পা আরেক পায়ের ওপর রাখা যাবে না। সোফায় বসে রক্তচাপ মাপা যাবে না।

* রক্তচাপ মাপার আধা ঘণ্টার মধ্যে রোগী কোনো রকমের কফি বা চা পান, ধূমপান বা ব্যায়াম বা পরিশ্রমের কাজ করতে পারবে না।

* প্রস্রাবের বেগ নিয়ে রক্তচাপ মাপা যাবে না, তাই রক্তচাপ মাপার আগে প্রস্রাবের থলি খালি করতে হবে।

* রক্তচাপ মাপার মেশিনের কাফ লাগানোর জায়গায় অর্থাৎ বাহুতে কোনো কাপড় রাখা যাবে না, সব ধরনের কাপড় সরাতে হবে।

* বিশ্রাম বা আরাম করার সময় অথবা রক্তচাপ মাপার সময় রোগী বা চিকিৎসক বা যিনি রক্তচাপ মাপেন কেউই কোনো ধরনের কথা বলতে পারবেন না।

রক্তচাপ মাপার সঠিক টেকনিক বা পদ্ধতি মানতে হবে

* রক্তচাপ মাপতে সঠিক রক্তচাপ মাপার মেশিন ব্যবহার করতে হবে এবং মেশিনটি মাঝে মাঝে ক্যালিব্রেট করতে হবে অর্থাৎ অন্য মেশিনের মাপের সঙ্গে মিলিয়ে দেখতে হবে।

* রোগীর যে বাহুতে রক্তচাপ মাপা হবে সে বাহু অবশ্যই টেবিল বা ডেস্কের ওপর রাখতে হবে।

* রক্তচাপ মাপার মেশিনের কাফসহ রোগীর বাহু অবশ্যই বুকের মাঝ বরাবর রাখতে হবে।

রক্তচাপ কয়েকবার মাপতে হবে

* সকালে ওষুধ খাবার আগে ও রাতে খাবার খাওয়ার আগে ১ মিনিট পরপর অন্তত ২ বার করে রক্তচাপ মাপতে হবে। রক্তচাপ প্রতিদিন মাপতে হবে ও লিপিবদ্ধ করতে হবে। কোনো নতুন ওষুধ যোগ করার বা ওষুধের মাত্রা বা পরিমাণ কমানোর ২ সপ্তাহ পর্যন্ত প্রতিদিন ও ২ সপ্তাহ পর সপ্তাহে ১ দিন রক্তচাপ মাপা নিয়ম। ডাক্তারের সঙ্গে সাক্ষাতের আগে ১ সপ্তাহ প্রতিদিন রক্তচাপ মাপতে হবে ও লিবিদ্ধ করতে হবে।

* ডাক্তারের সঙ্গে সাক্ষাতের সময় মেশিনের মেমোরিতে সংরক্ষিত রক্ত চাপের মানের ফলাফল বা আলাদা কাগজে লিপিবদ্ধ রক্তচাপ মাপার মান রোগীর সঙ্গে আনতে হবে।

বাড়িতে সঠিকভাবে রক্তচাপ মাপার পদ্ধতি

 সুস্থ থাকুন ডেস্ক 
০৬ আগস্ট ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বাসায় বা বাড়িতে বা রেজিস্টার্ড চিকিৎসকের চেম্বার ছাড়া অন্যত্র সঠিকভাবে রক্তচাপ মাপার জন্য ২০১৭ সালে আমেরিকান কলেজ অব কার্ডিওলজি, আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন ও অন্যান্য কিছু গুরুত্বপূর্ণ সংস্থাগুলো কিছু সুপারিশ ও দিকনির্দেশনা দিয়েছে যা নিম্নরূপ :

রোগী বা রোগীর আত্মীয়স্বজন যিনি রোগীর রক্তচাপ মাপবেন তাকে অবশ্যই একজন রক্তচাপ মাপতে অভিজ্ঞ মেডিকেল পারসোনেল বা চিকিৎসকের অধীনে রক্তচাপ মাপার প্রশিক্ষণ থাকতে হবে ও নিম্নলিখিত বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করতে হবে।

রক্তচাপ সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান

* রক্তচাপ মাপা সম্পর্কে জ্ঞান ও কোনো যন্ত্র দিয়ে মাপতে হবে সে সম্পর্কে জ্ঞান।

* এ সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে যে, বিভিন্ন মানুষের রক্তচাপ বিভিন্ন রকমের হয়, একই মানুষের রক্তচাপ বিভিন্ন সময় ও বিভিন্ন পরিবেশে বিভিন্ন হতে পারে, এমনকি দুই হাতে দুই রকমের হতে পারে।

* রক্তচাপ মাপার মান কত হলে স্বাভাবিক বা অস্বাভাবিক বা কত হলে কি কি অসুবিধা হতে পারে সে সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে।

রক্তচাপ মাপার যন্ত্র সম্পর্কে ধারণা

* রক্তচাপ মাপতে ভালো ও পরীক্ষিত অটোমেটেড মেশিন ব্যবহার করতে হবে। চিকিৎসকরা সাধারণত যেসব মেশিন রক্তচাপ মাপতে ব্যবহার করেন যেমন-পারদযুক্ত বা এনরয়েড যেখানে রক্তচাপ মাপার জন্য স্টেথোস্কোপ দিয়ে বিশেষ ধরনের শব্দ করোটকো শোনা হয় তা সাধারণ মানুষের পক্ষে আয়ত্ত করা কঠিন, সময় সাপেক্ষ ও অধিক দক্ষতা প্রয়োজন।

* যেসব যন্ত্রে মেমোরি থাকে অর্থাৎ রক্তচাপ মাপার মান সংরক্ষিত থাকে তা ব্যবহার করা ভালো।

* রক্তচাপ মাপার মেশিনের সঠিক মাপের কাফ সাইজ ব্যবহার করতে হবে, কাফের ভেতরে যে বাডার বা বাতাসপূর্ণ হওয়ার থলি থাকে তা অবশ্যই বাহুর ৮০ ভাগের বেশি প্রস্থের জায়গা পূর্ণ করতে হবে। উপযুক্ত কাফ সাইজের চেয়ে ছোট বা বড় কাফ সাইজ রক্তচাপ মাপার ক্ষেত্রে ব্যবহার করলে তা লিপিবদ্ধ রাখতে হবে।

* প্রথমবার রক্তচাপ মাপার সময় অবশ্যই দুই হাতেই রক্তচাপ দেখতে হবে এবং যে হাতে রক্তচাপ বেশি ওই মান লিপিবদ্ধ করতে হবে ও ভবিষ্যতে ওই হাতের রক্তচাপ মাপতে হবে।

রোগীকে সঠিকভাবে প্রস্তুত করতে হবে

* রোগীকে কমপক্ষে ৫ মিনিট আরাম করে চেয়ারে বসতে হবে পা মাটিতে লাগিয়ে। এক পা আরেক পায়ের ওপর রাখা যাবে না। সোফায় বসে রক্তচাপ মাপা যাবে না।

* রক্তচাপ মাপার আধা ঘণ্টার মধ্যে রোগী কোনো রকমের কফি বা চা পান, ধূমপান বা ব্যায়াম বা পরিশ্রমের কাজ করতে পারবে না।

* প্রস্রাবের বেগ নিয়ে রক্তচাপ মাপা যাবে না, তাই রক্তচাপ মাপার আগে প্রস্রাবের থলি খালি করতে হবে।

* রক্তচাপ মাপার মেশিনের কাফ লাগানোর জায়গায় অর্থাৎ বাহুতে কোনো কাপড় রাখা যাবে না, সব ধরনের কাপড় সরাতে হবে।

* বিশ্রাম বা আরাম করার সময় অথবা রক্তচাপ মাপার সময় রোগী বা চিকিৎসক বা যিনি রক্তচাপ মাপেন কেউই কোনো ধরনের কথা বলতে পারবেন না।

রক্তচাপ মাপার সঠিক টেকনিক বা পদ্ধতি মানতে হবে

* রক্তচাপ মাপতে সঠিক রক্তচাপ মাপার মেশিন ব্যবহার করতে হবে এবং মেশিনটি মাঝে মাঝে ক্যালিব্রেট করতে হবে অর্থাৎ অন্য মেশিনের মাপের সঙ্গে মিলিয়ে দেখতে হবে।

* রোগীর যে বাহুতে রক্তচাপ মাপা হবে সে বাহু অবশ্যই টেবিল বা ডেস্কের ওপর রাখতে হবে।

* রক্তচাপ মাপার মেশিনের কাফসহ রোগীর বাহু অবশ্যই বুকের মাঝ বরাবর রাখতে হবে।

রক্তচাপ কয়েকবার মাপতে হবে

* সকালে ওষুধ খাবার আগে ও রাতে খাবার খাওয়ার আগে ১ মিনিট পরপর অন্তত ২ বার করে রক্তচাপ মাপতে হবে। রক্তচাপ প্রতিদিন মাপতে হবে ও লিপিবদ্ধ করতে হবে। কোনো নতুন ওষুধ যোগ করার বা ওষুধের মাত্রা বা পরিমাণ কমানোর ২ সপ্তাহ পর্যন্ত প্রতিদিন ও ২ সপ্তাহ পর সপ্তাহে ১ দিন রক্তচাপ মাপা নিয়ম। ডাক্তারের সঙ্গে সাক্ষাতের আগে ১ সপ্তাহ প্রতিদিন রক্তচাপ মাপতে হবে ও লিবিদ্ধ করতে হবে।

* ডাক্তারের সঙ্গে সাক্ষাতের সময় মেশিনের মেমোরিতে সংরক্ষিত রক্ত চাপের মানের ফলাফল বা আলাদা কাগজে লিপিবদ্ধ রক্তচাপ মাপার মান রোগীর সঙ্গে আনতে হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন