নারীরা এগিয়েছে : নির্যাতনের মাত্রা বাড়ায় পিছিয়েছেও

  বাশার ফিরোজ ও শিল্পী নাগ ২৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

শেখ হাসিনা
আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ফাইল ফটো

২০১৮ সালের শেষ প্রহর। বছরজুড়ে দেশ-বিদেশের নারীর সফলতার গল্প যেমন আমাদের মুগ্ধ করেছে, তেমনি নারী ও মেয়েশিশু ধর্ষণ, যৌন নির্যাতন, হত্যার মতো অসংখ্য ঘটনাও আমাদের ব্যথিত করেছে।

গত বছরের তুলনায় এর সংখ্যাও বেড়েছে। বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের হিসাব অনুযায়ী জানুয়ারি থেকে অক্টোবর ২০১৮ পর্যন্ত ধর্ষণের শিকার ৬৪৬, গণধর্ষণের শিকার ১৬৫, ধর্ষণের পর হত্যা ৫৩, ধর্ষণের চেষ্টা ১১৫, শ্লীলতাহানির শিকার ৫৫, যৌন নির্যাতনের শিকার ১৪১, উত্ত্যক্তকরণের শিকার ১৪০ এবং উত্ত্যক্তের কারণে আত্মহত্যা করেছেন ১৪ জন।

নারীর অধিকার, মানবাধিকার সংস্থাসহ অনেক সংগঠন এ নিয়ে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে। তবে মানবাধিকার ও নারী গণমাধ্যমকর্মীদের আন্দোলনটা ছিল একটু ভিন্ন।

নারী-পুরুষের সমতাভিত্তিক রাষ্ট্র, সমাজ, পরিবারের নারী, মেয়েশিশুরা যাতে কর্মক্ষেত্র, স্কুল-কলেজ, এমনকি পরিবারে তাদের সহকর্মী, পরিচিত-পরিজনদের দ্বারা যৌন নির্যাতনের শিকার না হয়।

অভিযুক্ত ব্যক্তির শাস্তির জন্য প্রিন্ট, অনলাইন, টেলিভিশনের নারী সাংবাদিকরা সক্রিয়ভাবে মি টু আন্দোলনে অংশ নেন। অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য তাদের কর্মক্ষেত্রে অভিযোগও জানানো হয়। গ্রন্থনা : রীতা ভৌমিক, আবুল

ফোর্বস-এর ক্ষমতাধর নারী শেখ হাসিনা

বিশ্বের ক্ষমতাধর ১০০ নারীর তালিকায় ২৬তম স্থানে রয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত বছর ৩০তম অবস্থানে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিশ্বের ২০ নারী রাজনীতিকের মধ্যে তার অবস্থান ষষ্ঠ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কর্মজীবন প্রায় চার দশকেরও বেশি। তিনি বাংলাদেশের ১০ম জাতীয় সংসদের সরকার দলীয় প্রধান এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী।

তিন তিনবার তিনি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। এ বছরের ২৬ মে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কবি কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক ডক্টর অব লিটারেচার (ডি লিট) ডিগ্রি লাভ করেন।

নারীর ক্ষমতায়নে অসামান্য অবদানের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবছর পেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বেসরকারি সংস্থা গ্লোবাল সামিট অব উইমেন পুরস্কার।

ফোর্বসের ১০ ক্ষমতাধর নারী

অ্যাঙ্গেলা ম্যার্কেল

জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা ম্যার্কেল বিশ্বের প্রথম ক্ষমতাধর নারী। তিনি আট বছর ধরে শীর্ষ ক্ষমতাধর নারীর অবস্থানটি ধরে রেখেছেন। এ বছর নির্বাচনে কঠিন লড়াইয়ের মুখোমুখি অ্যাঙ্গেলা মার্কেল নিজেকে আবারও প্রমাণ করেছেন জার্মানির যোগ্য নেতা হিসেবে।

থেরেসা মে

প্রথম দশ জনের মধ্যে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র অবস্থান দ্বিতীয়। ডেভিড ক্যামেরন ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন থেকে ইংল্যান্ডকে বের করে আনার পরপরই পদত্যাগ করতে বাধ্য হন। দেশের টালমাটাল অবস্থা থেরেসা মে বেশ শক্ত হাতেই সামাল দিচ্ছেন।

মেলিন্ডা গেটস

বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের কো-চেয়ার মেলিন্ডা গেটসের অবস্থান তৃতীয়। বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তির স্ত্রী। তিনি বিল এবং মেলিন্ডা ফাউন্ডেশনের দেখাশুনা করেন।

শেরিল স্যান্ডবার্গ

ফেসবুকের চিফ অপারেটিং অফিসার শেরিল স্যান্ডবার্গের অবস্থান চতুর্থ। আর সম্পদের পরিমাণ ১.১৬ বিলিয়ন ডলার।

ম্যারি বারা

যুক্তরাষ্ট্রের মোটরযান প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান জেনারেল মোটরসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ম্যারি বারা। বিশ্বের অটোমোবাইল ব্যবসায় সর্ববৃহৎ দায়িত্বে প্রথম নারী। তিনি ফোর্বসের ক্ষমতাধর দশ নারীর তালিকায় পঞ্চম অবস্থানে রয়েছেন।

সুসান ওজিস্কি

যুক্তরাষ্ট্রের ভিডিও স্ট্রিমিং ওয়েবসাইট ইউটিউবের প্রধান নির্বাহী সুসান ওজিস্কি ষষ্ঠ অবস্থানে। তিনি একজন সফল ব্যবসায়ী।

অ্যাবিগেইল জনসন

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বহুজাতিক আর্থিক প্রতিষ্ঠান ফিডেল্টি ইনভেস্টমেন্টের প্রধান নির্বাহী অ্যাবিগেইল জনসন রয়েছেন সপ্তম অবস্থানে। তার প্রতিষ্ঠান আমেরিকার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মিউচুয়াল ফান্ড কোম্পানি।

ক্রিস্টিন লাগার্দে

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্রিস্টিন লাগার্দে অষ্টম অবস্থানে। ফ্রান্সের আইনজীবী তিনি। ফ্রান্সের অর্থমন্ত্রীও ছিলেন।

আনা প্যাট্রিসিয়া বোটিন

স্যান টানডার গ্রুপের চেয়ারম্যান আনা প্যাট্রিসিয়া বোটিনের অবস্থান নবম। তিনি বোটন পরিবারের চতুর্থ প্রজন্মের সদস্য হিসেবে এ পদ গ্রহণ করেছেন।

গিনি রোমেট্রি

আইবিএমের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা গিনি রোমেট্রির অবস্থান দশম।

দেশ বিদেশে সফল যারা

জেরিন মাহমুদ হোসেন

এক্সেপশনাল উইমেন অব এক্সিলেন্স সম্মাননা পেয়েছেন চার্টার্ড অ্যাকাউন্টিং ফার্মের পার্টনার জেরিন মাহমুদ হোসেন। ভারতের দিল্লিতে উইমেন ইকোনমিক ফোরামের পক্ষ থেকে তিনি এই সম্মাননা গ্রহণ করেন।

শারমিন সুলতানা

‘৬১তম কমনওয়েলথ পয়েন্ট অব লাইট’ পুরস্কার পেয়েছেন বাংলাদেশি স্বেচ্ছাসেবী শারমিন সুলতানা। কনওয়েলথ প্রধান হিসেবে ব্রিটিশ রানীর স্বাক্ষর করা একটি সনদও পেয়েছেন। প্রজননস্বাস্থ্যসেবা প্রদানে অভিজ্ঞ শারমিন সুলতানা কক্সবাজারের কুতুপালং শরণার্থী শিবিরে রোহিঙ্গা নারী ও কন্যাশিশুদের প্রজননস্বাস্থ্যসেবায় সহায়তা করেছেন।

জায়বা তাহিয়া

কুইন্স ইয়াং লিডারস অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন বাংলাদেশের জায়বা তাহিয়া। ব্রিটেনের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের হাত থেকে ফেমের প্রতিষ্ঠাতা জায়বা তাহিয়া এ পুরস্কার গ্রহণ করেন।

নোবেল জয়ী দুই নারী

নাদিয়া মুরাদ

যৌন সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াই করে শান্তিতে নোবেল জিতেন ইরাকের কুর্দি অধিকারকর্মী নাদিয়া মুরাদ। যুদ্ধে ধর্ষণ ও যৌন সহিংসতাকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার বন্ধে দীর্ঘ সময় ধরে আন্দোলন চালিয়ে আসছেন। যুদ্ধকালে ও সশস্ত্র সংগ্রামের সময় যৌন সহিংসতা প্রতিরোধে অবদানের জন্য তাকে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়।

ডোনা স্ট্রিকল্যান্ড

লেজার নিয়ে গবেষণায় পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল জিতেন কানাডার প্রথম নারী বিজ্ঞানী ডোনা স্ট্রিকল্যান্ড। ৫৫ বছরের ইতিহাসেও তিনি একমাত্র নারী যিনি পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পেলেন। তিনি খাটো ও তীব্র লেজার পালস উন্নয়নে সাহায্য করেছেন, যা শিল্পকারখানা ও চিকিৎসা ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হচ্ছে।

বাংলাদেশ উইমেন পুলিশ অ্যাওয়ার্ড

২০ নারী পুলিশ সদস্য

বাংলাদেশ উইমেন পুলিশ অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন ২০ নারী পুলিশ সদস্য। তাদের মধ্যে লাইফ এচিভমেন্ট ক্যাটাগরিতে পেয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশ হেড কোয়ার্টার্সের ডিআইজি (লজিস্টিকস) মিলি বিশ্বাস পিপিএম, বাংলাদেশ পুলিশ ওমেন লিডারশিপ ক্যাটাগরিতে পেয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশ হেড কোয়ার্টার্সের এআইজি (মিডিয়া অ্যান্ড পিআর) সহেলী ফেরদৌস, বাংলাদেশ পুলিশ সিআইডি, ঢাকার বিশেষ পুলিশ সুপার (ফরেনসিক) রুমানা আক্তার, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মাহমুদা আফরোজ লাকী পিপিএম, রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি থানার পুলিশ পরিদর্শক হাসিনা বেগম।

মেডেল অব কারেজ ক্যাটাগরিতে পেয়েছেন কুষ্টিয়া সার্কেল অফিসের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নুরানী ফেরদৌস দিশা, মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাজী মাকসুদা লিমা, বাগেরহাটের জেলা গোয়েন্দা শাখার নারী কনস্টেবল/৬১৯ মমতাজ খাতুন। কমিউনিটি সার্ভিস ক্যাটাগরিতে পেয়েছেন চাঁদপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার, পিপিএম, বরিশালের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার (কোতয়ালী থানা) শাহানাজ পারভীন পিপিএম (সেবা), বরগুনা জেলার নারী সহকারী সাব-ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র) সামসুর নাহার আক্তার, শরীয়তপুর পালং মডেল থানার নারী সাব-ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র) রানু আক্তার। চাঁপাইনবাবগঞ্জের নারী ও শিশু সহায়তা ডেস্ক ইনচার্জ নবা ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র) মোছা. ইসমাতারা। পিসকিপিং মিশন ক্যাটাগরিতে পেয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশ হেড কোয়ার্টার্সের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কমিউনিটি পুলিশিং) খন্দকার শামিমা ইয়াছমিন, ডিএমপি, ঢাকার পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন।

এক্সেলিনেন্স ইন সার্ভিস ক্যাটাগরিতে বাংলাদেশ পুলিশ হেড কোয়ার্টার্সের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ট্রেনিং-২) মৌসুমী মণ্ডল, পাবনা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোছা. শামিমা আক্তার, ডিএমপি, ঢাকার অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার নাজমুন নাহার, পাসপোর্ট শাখা এসবি, ঢাকা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, মাকসুদা আক্তার খানম, পিপিএম, ১১ এপিবিএন, উত্তরা থেকে সংযুক্ত ৮ এপিবিএন-এর নারী কনস্টেবল/১১৫৮০ সোনিয়া আক্তার।

অঞ্জু সরকার

যশোর জেলার কেশবপুর থানার মূলগ্রামের অঞ্জু সরকার পেয়েছেন স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকের অ্যাগ্রো অ্যাওয়ার্ড। নারী ক্যাটাগরিতে তিনি বছরের সেরা কৃষক নির্বাচিত হন।

চন্দনা ঘোষ

‘ক্ষুদ্র মাঝারি উদ্যোক্তা’ হিসেবে প্রেসিডেন্ট অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন ঠাকুরগাঁয়ের চন্দনা ঘোষ। তিনি সফল একজন নারী উদ্যোক্তা। চন্দ্রমল্লিকা শোরুমের কর্ণধার।

প্রতিভা সাংমা

‘আনসাং ওমেন ন্যাশন বিল্ডার্স ২০১৮’ সম্মাননা পেয়েছেন মধুপুরের শিক্ষানুরাগী প্রতিভা সাংমা। তিনি গারো নৃ-গোষ্ঠী সমাজে শিক্ষার আলো ছড়াচ্ছেন।

দেশে প্রথম যারা

মেজর জেনারেল সুসানে গীতি

সশস্ত্রবাহিনীর ইতিহাসে প্রথম নারী মেজর জেনারেল সুসানে গীতি। ৩০ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, কোয়ার্টার মাস্টার জেনারেল লেফটেন্যান্ট জেনারেল মো. সামছুল হক তাকে র‌্যাঙ্ক ব্যাজ পরিয়ে দেন।

বিদেশে প্রথম যারা

ডলি বেগম

ডলি বেগম নিউ ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রার্থী হয়ে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে কানাডার প্রাদেশিক নির্বাচনে অংশ নেন। তিনি ১৯ হাজার ৭৫১ ভোট পেয়ে জয়ী হন। তার জয়ের মাধ্যমে কানাডার অন্টারিও প্রদেশের স্কারবরো সাউথওয়েস্ট লিবারেল আধিপত্যের অবসান ঘটে।

উইয়াম আল দাখিল

রক্ষণশীল সৌদি আরবের জাতীয় টেলিভিশন আল সৌদিয়া চ্যানেলে সংবাদ উপস্থাপন করেন প্রথম নারী উইয়াম আল দাখিল। একজন পুরুষ সহকর্মীর সঙ্গে সাড়ে ৯টার নিউজ বুলেটিন পড়ে ‘ইতিহাস গড়েন’ তিনি।

আনা বার্নস

তৃতীয় উপন্যাস ‘মিল্কম্যান’-এর জন্য ম্যান বুকার পুরস্কার জিতেছেন উত্তর আয়ারল্যান্ডের লেখিকা আনা বার্নস। তিনি উত্তর আয়ারল্যান্ডের প্রথম নারী যিনি এই পুরস্কার পেলেন। পুরস্কারের অর্থ হিসেবে পেয়েছেন ৫০ হাজার পাউন্ড।

গীতা গোপীনাথ

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) প্রথম প্রধান নারী অর্থনীতিবিদ গীতা গোপীনাথ। রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার সাবেক গভর্নর রঘুরাম রাজনের পর তিনি হলেন এ দায়িত্ব নেয়া প্রথম ভারতীয়। আইএমএফের প্রধান অর্থনীতিবিদ মরিস ওবস্টফেন্ডের স্থলাভিষিক্ত হন তিনি।

মেহরিন ফারুকি

অস্ট্রেলিয়ার প্রথম মুসলিম নারী সিনেটর মেহরিন ফারুকি। নিউ সাউথ ওয়েলস থেকে নির্বাচিত গ্রিন পার্টির সংসদ সদস্য থেকে তিনি সিনেট সদস্য নির্বাচিত হন।

বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ড কাপ

শৈলকুপা দোহারো প্রাইমারি স্কুল চ্যাম্পিয়ন

ঝিনাইদহের শৈলকুপার দোহারো প্রাইমারি স্কুলের খুদে মেয়ে ফুটবলাররা বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ড কাপ ফুটবলের ফাইনালে প্রথমবারের মতো জাতীয় পর্যায়ে চ্যাম্পিয়ন হন। তারা ময়মনসিংহের নান্দাইলের পাঁচরুখী স্কুলকে হারিয়ে এই গৌরব অর্জন করেন। তাদের মধ্যে তাহমিনা খাতুন সর্বোচ্চ সাত গোল করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে গোল্ডেন বুট পুরস্কার গ্রহণ করেন।

জাতীয় মহিলা দাবা

রানী হামিদ

জাতীয় মহিলা দাবায় চ্যাম্পিয়ন হয়ে ১৯তম শিরোপা জয় করেন আন্তর্জাতিক নারী মাস্টার রানী হামিদ। এবার নয়টি ম্যাচের আটটিতে জিতেন তিনি।

জাতীয় যুব মহিলা হ্যান্ডবল প্রতিযোগিতা

জাতীয় যুব মহিলা হ্যান্ডবল প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে জামালপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থা। ফাইনালে তারা নওগাঁ জেলা ক্রীড়া সংস্থাকে ২৮-১৬ গোলে হারিয়ে বিজয়ী হয়। টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় হন চ্যাম্পিয়ন দলের আল্পনা।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×