নির্যাতনের শিকার নারী ও কন্যাশিশুদের সহায়তায় ‘আস্থা’

  শিল্পী নাগ ০৭ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জেন্ডারভিত্তিক সহিংসতা প্রতিরোধে ও প্রতিকারে দেশের চারটি জেলার সহিংসতার শিকার নারী ও কন্যাশিশুদের সরকারি সেবা গ্রহণে সহযোগিতায় ‘আস্থা প্রজেক্ট’ কাজ করছে। জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিলের সহযোগিতায় নেদারল্যান্ডসের আর্থিক সহযোগিতায়, আইন ও সালিশ কেন্দ্রের যৌথ উদ্যোগে গতকাল সিরডাপ মিলনায়তনে ‘আস্থা প্রজেক্ট’-এর যাত্রা শুরু হল। চারটি জেলার জামালপুর, পটুয়াখালী, বগুড়া ও কক্সবাজারের ১০২টি ইউনিয়নের ১২ উপজেলায় জাতীয় পর্যায়ে ‘আস্থা প্রজেক্ট’-এর মাধ্যমে নির্যাতনের শিকার নারী ও কন্যাশিশুদের সরকারি মাল্টি সেক্টরাল সেবা দেয়া হবে। এর মাধ্যমে নির্যাতনের শিকার নারী ও কন্যাশিশু আদালতে আইনি সেবা, থানায় পুলিশি সেবা, হাসপাতালে স্বাস্থ্যসেবা, মহিলাবিষয়ক কার্যালয়ে সামাজিক সেবা পাবেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম এনডিসি বলেন, নারী ও কন্যাশিশুর প্রতি সহিংসতা বন্ধ করা একার পক্ষে সম্ভব নয়। এ ক্ষেত্রে সবার সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে। প্রতিটি মন্ত্রণালয় নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে আলাদা আলাদাভাবে কাজ করছে। নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে এবার আমরা ‘জয় অ্যাপস’ যুক্ত করেছি।

জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিলের বাংলাদেশ উপপ্রতিনিধি ইকো নারিতার মতে, বাংলাদেশে ২ শতাংশ নারী ও কন্যাশিশু শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের শিকার হয়।

স্বাগত বক্তব্যে আইন ও সালিশ কেন্দ্রের সভাপতি শিপা হাফিজ বলেন, জেন্ডারভিত্তিক সহিংসতা নারী ও কন্যাশিশুর মানবাধিকারকে প্রচণ্ডভাবে লঙ্ঘন করছে। এ সহিংসতা নারী-পুরুষ উভয়ের ওপরই হয়। নারীর প্রতি বেশি হয় বলে এদিকে আমরা বেশি নজর দিচ্ছি। তবে নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধ না হলে নারীর ক্ষমতায়ন হবে না।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আইন, বিচার ও সংসদ মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ বিচারক মো. জাফরুল হাসান জানান, আইনি সহায়তা পেতে ১৬৪৩০ নাম্বারে কল করতে হবে। জেন্ডার সহিংসতায় আইনি সহায়তাসহ ধর্ষণের শিকার নারীর ডিএনএ পরীক্ষার খরচও দেয়া হয়। বিবিএসএর ২০১৬ সালের এক পরিসংখ্যানে জানা যায়, ১৬ হাজার ৯০০ নারী ও কন্যাশিশুকে আইনি সহায়তা দেয়া হয়েছে।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব আবেদা আক্তার, নেদারল্যান্ডস দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত হ্যারি ভারওয়েজ, কমিউনিকেবল ডিজিস কন্ট্রোল, সিডিসির পরিচালক সানিয়া তাসমিন, আইন বিচার ও সংসদ মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ বিচারক জেসমিন আরা বেগম এবং পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব শাহেদ ইকবাল।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×