চুনারুঘাটে নারীশিক্ষা প্রসারে এক অনন্য উদ্যোগ

  আবুল কালাম আজাদ ১৬ জুলাই ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

উপজেলার ১৩টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১৪৩ জন ছাত্রীর মধ্যে বাইসাইকেল বিতরণ করা হয়
উপজেলার ১৩টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১৪৩ জন ছাত্রীর মধ্যে বাইসাইকেল বিতরণ করা হয়

চন্দ্রমল্লিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী তারা ভৌমিজ বাইসাইকেল পেয়ে আনন্দিত। বাড়ি থেকে স্কুল ৯ কিলোমিটারের দীর্ঘ পথ কিছুটা পায়ে আর কিছুটা পথ সিএনজিতে আসতে হতো তাকে।

এ প্রসঙ্গে তার মা চা শ্রমিক সুমিতি ভৌমিজ বলেন, এখন মেয়ে নিয়মিত স্কুলে যেতে পারবে। গাড়ি ভাড়া জোগাড় করতে না পারলে সেদিন স্কুল কামাই হবে এই দুশ্চিন্তাটা থাকবে না।

চুনারুঘাট উপজেলার ছয়শ্রী গ্রামের মনিপুরী পাড়ার মনি সিনহা তিন কিলোমিটার পথ হেঁটে আমরোড স্কুলে আসেন। সাইকেল পেয়ে মনি সিনহা বলেন, আমি খুব খুশি হয়েছি। এখন দ্রুত স্কুলে আসতে পারব।

একই উপজেলার শেখপাড়া গ্রামের সিদরাতুল মুনতাহা শাকির মোহামদ উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর একজন শিক্ষার্থী। প্রতিদিন তাকে আট কিলোমিটার পথ পাড়ি দিতে হয়। আবার এই পথের অনেকটাই গ্রামের মেঠো পথ। বাইসাইকেল পেয়ে তার দীর্ঘদিনের কষ্ট লাগব হবে বলে আনন্দিত।

আম বাগানের স্মৃতি সাঁওতাল তার বাবার কাছে অনেকবার বায়না করেছেন একটি সাইকেল কিনে দেয়ার জন্য। তার অনেক সহপাঠী সাইকেল চালিয়ে স্কুলে আসেন। কিন্তু চা শ্রমিক বাবার সাধ্য ছিল না মেয়েকে একটি সাইকেল কিনে দেয়ার। কিন্তু পড়াশোনার প্রতি অদম্য আগ্রহ থেকে স্মৃতি হেঁটেই স্কুলে আসত। সাইকেল পেয়ে স্মৃতি জানান, তার স্বপ্ন পূরণ হল। এখন স্কুলে আসতে তার আর কষ্ট হবে না।

চুনারুঘাট উপজেলার ভারত সীমান্তে অবস্থিত নালুয়া চা বাগান। পাহাড়ি দুর্গম রাস্তা এবং দারিদ্র্যের কারণে অনেকে শিক্ষার্থী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আসতে পারে না। নারী শিক্ষা জাগরণ এবং সমাজের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে এগিয়ে নিতে অনন্য উদ্যোগ নিয়েছে চুনারুঘাট উপজেলা পরিষদ। বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির প্রায় ১৬ লাখ টাকা ব্যয়ে উপজেলার ১৩টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১৪৩ জন ছাত্রীর মধ্যে বাইসাইকেল বিতরণ করা হয়। গোলাপি ও নীল রঙের প্রতিটি সাইকেলের দাম ১৩ হাজার টাকা। সম্প্রতি উপজেলা কমপ্লেক্সের সামনে জেলা প্রশাসক মনীষ চাকমা ও সাইকেল বিতরণের উদ্যোক্তা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আবু তাহের শিক্ষার্থীদের মাঝে সাইকেল হস্তান্তর করেন।

এ প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক মনীষ চাকমা বলেন, ছাত্রীরা বাইসাইকেলে চড়ে বিদ্যালয়ে আসার কারণে ইভটিজিং থেকে মুক্ত থাকবে। বাল্যবিয়ে, নারী নির্যাতন প্রতিরোধ, সামাজিক নানা অবক্ষয় রোধে এসব শিক্ষার্থী বাইসাইকেল ব্যবহার করতে পারবে। এছাড়া শিক্ষায় এসব শিক্ষার্থীরা এগিয়ে যাবে। এটি নারীর ক্ষমতায়নের প্রতীক এবং জনবান্ধব উদ্যোগ। মানবিক উন্নয়নের অনন্য এই উদ্যোগের ফলে চুনারুঘাটের শিক্ষার গুণগত উন্নয়নে এর ভূমিকা থাকবে।

উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহেরের মতে, চুনারুঘাট উপজেলাকে শতভাগ শিক্ষিত করা, নারীর ক্ষমতায়নের জন্য এই উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। আগামী বছর ৫শ’ ছাত্রীকে বাইসাইকেল দেয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাইজার মোহাম্মদ ফারাবি জানান, সমাজে বৈষম্য দূর করতে এবং ঝরেপড়া রোধ করতে এই উদ্যোগ অনন্য। এই সাইকেলে চড়ে ছাত্রীরা স্কুলে যাবে। এর ফলে সমাজে একটি ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাইজার মোহাম্মদ ফারাবীর সভাপতিত্বে ও সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা রফিকুল ইসলামের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান লুৎফুর রহমান মহালদার, কাজী সাফিয়া আক্তার, সহকারী কমিশনার ভূমি তাহমিনা আক্তার, অফিসার ইনচার্জ কে এম আজমিরুজ্জামান, ইউপি চেয়ারম্যান আবদুর রশিদ, আলহাজ শামছুন্নাহার, হুমায়ূন কবির খান, আবেদ হাসনাত চৌধুরী সনজু, রমিজ উদ্দিন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শামছুল হক, প্রধান শিক্ষক আবদুল আউয়াল, আ. সামাদ মাস্টার ও ব্যকস সভাপতি আলহাজ আবুল হোসেন আকল মিয়া।

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter